artk
শনিবার, আগষ্ট ১৭, ২০১৯ ৫:৫৫   |  ২,ভাদ্র ১৪২৬

কক্সবাজার প্রতিনিধি

সোমবার, ফেব্রুয়ারী ১১, ২০১৯ ৪:২৯

রোহিঙ্গাদের অর্থ যাচ্ছে কর্মকর্তাদের বিলাসিতায়: সিসিএনএফ

media

মিয়ানমারের রাখাইন থেকে প্রাণভয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ যাচ্ছে ‘আইএনজিও’দের বিলাসিতায়। কর্মকর্তাদের দামি গাড়ি ব্যবহার, বেশি বেতনে চাকরি ও ফাইভ স্টার হোটেলে থাকা-খাওয়াসহ আলিশান জীবন-যাপনে এসব অর্থ ব্যয় করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন কক্সবাজার ‘সিএসও-এনজিও’ ফোরাম (সিসিএনএফ)।

মিয়ানমারের রাখাইন থেকে প্রাণভয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ যাচ্ছে ‘আইএনজিও’দের বিলাসিতায়। কর্মকর্তাদের দামি গাড়ি ব্যবহার, বেশি বেতনে চাকরি ও ফাইভ স্টার হোটেলে থাকা-খাওয়াসহ আলিশান জীবন-যাপনে এসব অর্থ ব্যয় করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন কক্সবাজার ‘সিএসও-এনজিও’ ফোরাম (সিসিএনএফ)।

সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১২টার দিকে কক্সবাজার প্রেসক্লাবের মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন (সিসিএনএফ) কো-চেয়ারম্যান আবু মোরশেদ চৌধুরী খোকা।

তিনি লিখিত বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মোট ১২৩টি দেশি-বিদেশি এনজিও কাজ করছে। এর মধ্যে আন্তর্জাতিক এনজিও রয়েছে ২১টি এবং কক্সবাজারের স্থানীয় এনজিও রয়েছে ৫টি। অন্যরা দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে এসে কাজ করছে। এসব এনজিওরা বিভিন্নভাবে অর্থ এনে রোহিঙ্গাদের জন্য ব্যয় করা হচ্ছে। এসব অর্থের একটি অংশ আন্তর্জাতিক এনজিওতে কর্মরত কর্মকর্তারা বিলাসিতায় ব্যায় করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, গত ২০১৭ সালে যৌথ সাড়া পরিকল্পনা অনুসারে রোহিঙ্গা সংকট মিটাতে বাংলাদেশে মোট ৪৩৪.১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থ প্রয়োজন ছিল। এই পরিকল্পনার মোট ৩১৬.৯ মার্কিন ডলার জেআরপি পরিকল্পনার মাধ্যমে অর্থায়ন

করা হয়েছে। যা ২০১৭ সালে প্রাপ্ত মোট তহবিলের ৩৫.৯ শতাংশ। ২০১৭ সালে রোহিঙ্গা সংকট মোকাবেলায় মোট ৪৯৪.২ মিলিয়ন ডলারের তহবিল বাংলাদেশে গ্রহন করা হয়েছিল।

একইভাবে যৌথ সাড়া পরিকল্পনা (জেআরপি) ২০১৮ সালের বিপরিতে বাংলাদেশে সকল রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য ৯৫০.৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়েছিল। যার বিপরিতে জেআরপি পরিকল্পনার মাধ্যমে মোট ৬৫৫.০ মিলিয়ন (৬৮.৯ শতাংশ) মার্কিন ডলার অর্থ রোহিঙ্গা সংকট মোকাবেলায় আসে। অন্যদিকে এই পরিকল্পনার বাইর থেকে এসেছে মোট ৭২.৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। চলতি ২০১৯ সালে জয়েন্ট রেসপন্স প্লানের আওতায় পরিকল্পনা অনুযায়ী ৯২৫.০ মার্কিন ডলার এবং জেআরপির মাধ্যমে অর্জন ৫৫৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ধরা হয়েছে। অর্থাৎ প্রতি পরিবারের জন্য এক বছরে ২১৫ মার্কিন ডলার ব্যয় করার জন্য ধরা হয়েছে।

লিখিত বক্তব্যে তিনি আশংকা করে বলেন, ওপরে উল্লেখিত হিসাব অনুযায়ী সব অর্থ এই পর্যন্ত রোহিঙ্গাদের জন্য ব্যয় হয়নি। আমরা অসংখ্যবার কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে সরকারের কাছে এই বার্তা তুলে ধরার চেষ্টা করেছি।

কিন্তু, কাজের কাজ কিছু হচ্ছে না। আমাদের দাবি হচ্ছে, সরকার এসব এনজিওদের নিয়মিত মনিটরিং করতে হবে। যানবাহন ব্যয় কমাতে হবে এবং বিদেশি এনজিওদের আলিশান জীবন-যাপনের প্রতি বিধি-নিষেধ আরোপ করতে হবে। রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৭০ থেকে ৮০ শতাংশ স্থানীয়দের চাকরি দিতে হবে। যদি সম্ভব না হয়, তাহলে আগামীতে রোহিঙ্গা সংকট ভয়াবহ আকার ধারণ করবে কক্সবাজারে।’

সংবাদ সম্মেলনে কক্সবাজার ‘সিএসও-এনজিও’ ফোরাম (সিসিএনএফ) এর কো-চেয়ারম্যান ও কোস্ট ট্রাস্টের নির্বাহী পরিচালক রেজাউল করিম ও মুক্তি কক্সবাজার সমন্বয়ক অশোক কুমার সরকারসহ ওই ফোরামের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সৌদিতে বাস দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি হাজি নিহত সিরিজ বোমা হামলার বিচার অবশ্যই হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী একটি অসাধু চক্র চামড়ার দরপতনের খেলায় নেমেছে: তথ্যমন্ত্রী বিএনপির হাত ধরেই 'জঙ্গিবাদের' উত্থান: হানিফ ১ হাজার যাত্রীর অতিরিক্ত ভাড়ার টাকা ফেরত চিকিৎসা ও শিক্ষার উন্নয়নে সবকিছু করবে সরকার: প্রধানমন্ত্রী গাজীপুরের সাবেক মেয়র করিম বিএনপিতে ইসরাইলের শর্ত মেনে পশ্চিম তীর সফরে যাবেন না রাশিদা ক্রিকেট না খেলেই টাইগারদের কোচ রাসেল ডমিঙ্গো! ভেসে যাওয়া ২ ভাইয়ের একজনের লাশ উদ্ধার নাঙ্গলকোটে ট্রেনের ধাক্কায় ১ ব্যক্তি নিহত ডেঙ্গুতে ঢাকা মেডিকেলে আরও একজনের মৃত্যু অবসরের জন্য দুই মাস সময় চেয়েছেন মাশরাফি-পাপন ছাত্রদলের মনোনয়নপত্র বিতরণ শুরু ঢাকায় পৌঁছেছে হজের প্রথম ফিরতি ফ্লাইট টাইগারদের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো ব্রাজিলের দল ঘোষণা, থাকছেন নেইমার ইসি বাতিল করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চাইলেন ফখরুল বকেয়া না পেলে ট্যানারিতে চামড়া দেবেন না আড়তদাররা আ.লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হলেন আতাউর রহমান চিকিৎসার হাল: ম্যাজিস্ট্রেটই চরম হয়রানির শিকার শামসুর রাহমানের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী প্রথম বিদেশ সফরে বাংলাদেশ আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বার্সার হারে নেইমারকে ফেরানোর দাবি জোরালো হচ্ছে যমুনায় বেড়ানোর কথা বলে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ প্রেম করে বিয়ে, পরে তরুণীকে গলা কেটে হত্যা কাশ্মীর সঙ্কট নিয়ে রাষ্ট্রদূতদের বাকযুদ্ধ পুলিশি অভিযানের মধ্যেই গণপিটুনিতে নিহত ২ ফেসবুকে মেয়ে সেজে র‌্যাবের হাতে ধরা ছাত্রলীগ নেতা মেসিকে ছাড়া আরও একবার টের পেল বার্সা