artk
বুধবার, আগষ্ট ২১, ২০১৯ ১:৪০   |  ৫,ভাদ্র ১৪২৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

রোববার, ফেব্রুয়ারী ১০, ২০১৯ ১১:২৭

শ্বেত ভাল্লুকের তাণ্ডবে রাশিয়ার দ্বীপে জরুরি অবস্থা জারি

media

রাশিয়ার একটি প্রত্যন্ত রাজ্যে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। কারণ গত কয়েকদিন ধরে অসংখ্য শ্বেত ভাল্লুক মানব বসতিগুলোয় এসে হাজির হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় কর্মকর্তারা।

নোভায়া যেমালয়া দ্বীপের কর্মকর্তারা বলছেন, এলাকাটিতে কয়েক হাজার মানুষ বসবাস করে। কিন্তু ভাল্লুকগুলো আসতে শুরু করার পর অনেক মানুষ হামলা শিকার হয়েছে।

আবাসিক এবং সরকারি ভবনগুলোয় প্রবেশ করছে এসব ভাল্লুক।

জলবায়ু পরিবর্তনের সবচেয়ে শিকার প্রাণিগুলোর মধ্যে রয়েছে শ্বেত ভাল্লুক। খাবারের খোজে প্রায়শ এসব ভাল্লুক লোকালয়ে হানা দেয়।

এসব ভাল্লুককে বিলুপ্তপ্রায় প্রাণি বলে তালিকাভুক্ত করেছে রাশিয়া। তাই শ্বেত ভাল্লুক শিকার করা নিষিদ্ধ।

কর্মকর্তারা বলছেন, পুলিশ যেসব পেট্রোল বা সিগন্যাল ব্যবহার করে এসব ভাল্লুক তাড়িয়ে থাকে, তা থেকে ভীতি কেটে গেছে এসব প্রাণির। ফলে এগুলো সামলাতে আরো কঠোর ব্যবস্থা নেয়া দরকার।

তারা বলছেন, ভাল্লুকগুলোকে তাড়ানোর অন্যসব পন্থা যদি ব্যর্থ হয়, তাহলে তাদের সামনে একটি পদ্ধতিই খোলা থাকবে। তা হচ্ছে, এগুলোর মধ্য থেকে একটি অংশকে মেরে ফেলা।

ওই এলাকার মূল বসতি যেখানে, সেই বেলুশা গুবায় ৫২টি ভাল্লুক দেখা গেছে। তাদের মধ্যে ছয় থেকে দশটি সবসময়েই সেখানে থাকছে।

স্থানীয় প্রশাসনের প্রধান ভিগানশা মুসিন বলেছেন, পাঁচটির বেশি ভাল্লুক রয়েছে স্থানীয় সামরিক ঘাঁটিতে, যেখানে বিমান বাহিনী এবং বিমান প্রতিরক্ষার বাহিনী মোতায়েন রয়েছে।

“১৯৮৩ সাল থেকে নোভায়া যেমালয়াতে আমি রয়েছে, কিন্তু এভাবে এতো বেশি মাত্রায় ভাল্লুকদের আসার ঘটনা দেখিনি।”

তার সহকারী জানিয়েছেন, এ কারণে বসতিগুলোর স্বাভাবিক জীবনযাপন ব্যাহত হয়ে পড়েছে।

“মানুষজন ভীত হয়ে পড়েছে, তাদের বাড়িঘর ছাড়তেও ভয় পাচ্ছে। তাদের প্রতিদিনকার রুটিন ভেঙে পড়েছে, অভিভাবকরা তাদের সন্তানদের স্কুল বা কিন্ডারগার্টেনে পাঠাচ্ছেন না।” বলছেন স্থানীয় প্রশাসনের ডেপুটি অ্যালেক্সান্ডার মিনায়েভ।

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে উত্তর মেরুর সাগরের বরফ গলে কমে যাচ্ছে, ফলে মেরু অঞ্চলে থাকা শ্বেত ভাল্লুকগুলো তাদের শিকারের অভ্যাস পাল্টাতে বাধ্য হচ্ছে। তারা বরফের রাজ্য থেকে বেরিয়ে ভূমিতে এসে খাবার খুঁজতে বাধ্য হচ্ছে, যা মানুষের সঙ্গে তাদের সাংঘর্ষিক পরিস্থিতির সম্ভাবনা তৈরি করছে।

২০১৬ সালে পাঁচজন রাশিয়ান বৈজ্ঞানিক ট্রোনোয় দ্বীপের একটি প্রত্যন্ত আবহাওয়া স্টেশনে বেশ কয়েকদিন শ্বেত ভাল্লুক দ্বারা অবরুদ্ধ থাকতে বাধ্য হয়েছিলেন। বিবিসি।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে কোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নয় রংচঙে তারিক আনাম খান সবজির ঝুড়িতেও ইয়াবা, আটক ২ ছাগল ছিনতাই: ছাত্রলীগ নেতার আগাম জামিন পদত্যাগ করলেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী গুইসেপে ভারত সফরে প্রধানমন্ত্রীকে মোদির আমন্ত্রণ জামিনে বের হয়ে গণপিটুনিতে মৃত্যু আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এমন প্রেস ব্রিফিং দুনিয়ার কোথায় আছে: হাইকোর্ট দেশে এসে ডেঙ্গুতে মারা গেলেন ডা. রেহানা বেগম ইলেকট্রনিক রেকর্ডকে সাক্ষ্য আইনে অন্তর্ভুক্তির জন্য চিঠি ৬০০ টাকার শাড়িতে সাজলেন কঙ্গনা যে ৫ দাবিতে অটল রোহিঙ্গারা গণতন্ত্র ছাড়া কাশ্মীর সমস্যার সমাধান সম্ভব নয়: অমর্ত্য সেন বিপিএলে মাশরাফি-সাকিব দুজনকেই চায় রংপুর কিশোরগঞ্জের সাবেক হিসাবরক্ষক সিরাজুল গ্রেফতার মিল্ক ভিটার ৫ হাজার একর জায়গার ৪ হাজার একরই বেহাত সুযোগ চান ফরহাদ, আত্মবিশ্বাসী জহুরুলও ‘নিজ বাড়ি-আশপাশ পরিচ্ছন্ন রাখলে ডেঙ্গু প্রতিরোধ সম্ভব: অধ্যাপক সায়ীদ লেনদেন ডিএসইতে কমলেও সিএসইতে বেড়েছে ক্ষতিকর প্রাণীর অনিষ্টতা থেকে মুক্ত থাকার দোয়া টাইগারদের দায়িত্ব নিতে ঢাকায় রাসেল ডমিঙ্গো এফআর টাওয়ার মামলা: তাসভীরের পর ফারুকের জামিন তৃতীয় টেস্ট থেকে ছিটকে পড়লেন স্মিথ বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দলের বিপক্ষে দল ঘোষণা করলো ভারত সংসদ সদস্য না হয়েও শুল্কমুক্ত ল্যান্ড ক্রুজার গাড়ি মুহিতের ত্রিদেশীয় সিরিজ: বাংলাদেশ সফরে আফগানদের দল ঘোষণা খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদ বাড়লো এক বছর মিন্নিকে কেন জামিন নয়, ৭ দিনের মধ্যে জানানোর নির্দেশ হাইকোর্টের সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে আসবে: মেয়র খোকন কাশ্মীরে স্কুল খুলেছে, শিক্ষার্থী নেই