artk
বুধবার, জুন ১৯, ২০১৯ ১২:০১   |  ৫,আষাঢ় ১৪২৬
বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ৩১, ২০১৯ ৯:২৭
মাদক সেবন, নারীর শ্লীলতাহানি, ছাত্রী নিপীড়ন

জাবির ১৭ শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার

media

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) মাদক সেবন, নারীর শ্লীলতাহানি, ছাত্রী নিপীড়নসহ নানা অভিযোগে বিভিন্ন বিভাগের ১৭ শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করা হয়েছে।

গত ১৮ জানুয়ারি সিন্ডিকেটের ৩০৪তম সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত একটি অফিস আদেশ দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন। 

অফিস আদেশে বলা হয়, মাইক্রোবায়োলোজি বিভাগের ৪৫তম ব্যাচের ১৬ ছাত্রী ও একই বিভাগের ৪৩তম ব্যাচের এক ছাত্রীর আনা অশ্লীলতা ও নিপীড়নের ঘটনায় তদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে একই বিভাগের ১১ শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করা হয়েছে।

এই ঘটনায় মাইক্রোবায়োলোজি বিভাগ ৪৫তম ব্যাচের মো. নাঈম-ই-আক্তার, ইজাজ আহমেদ, মো. মেহেদী হাসান ও মো. ইকবাল হোসেনকে ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বহিষ্কার ও পাঁচ হাজার টাকা আর্থিক দণ্ড দেয়া হয়েছে।

এই ঘটনায় একই বিভাগ ও ব্যাচের মো. সজিব হোসাইন, মো. আল-আমিন শৈশব, মো. আবু নাঈম ও জি এম তারিকুল ইসলামকে ছয় মাসের জন্য বহিষ্কার ও পাঁচ হাজার টাকা আর্থিক দণ্ড দেওয়া হয়েছে। 

এ ছাড়া একই বিভাগ ও ব্যাচের মো. শাহরিয়ার খানকে তিন মাসের জন্য বহিষ্কার ও পাঁচ হাজার টাকা আর্থিক দণ্ড এবং নাহিদুল ইসলাম ও মো. ওমর ফারুককে তিন মাসের বহিষ্কার করা হয়েছে।

গত ৯ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলায় তিন শিক্ষার্থীকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় মো. রিজওয়ান রাশেদ সোয়ান (নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ, ৪৭তম ব্যাচ), কে. এম. মাহিদ হাসান (প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ, ৪৭তম ব্যাচ) ও আহসানুজ্জামান শাওনকে (মার্কেটিং বিভাগ, ৪৭তম ব্যাচ) সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আ ফ ম আমালউদ্দিন হলের ৩৩৫ নম্বর কক্ষে মাদক সেবনের ঘটনায় সিএসই বিভাগের ৪২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মো. সাজ্জাদ হোসেন ও বাংলা বিভাগ ৩৯তম ব্যাচের মো. মঈন উদ্দিনকে (জনি) ছয় মাসের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।

এ ছাড়া নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের ৪৫তম ব্যাচের এক ছাত্রীকে নিপীড়নের ঘটনায় একই বিভাগের ৪৩তম ব্যাচের আজগর হোসেন রাব্বিকে তিন মাসের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।

আকাশের তৈরি সেই পরিবেশবান্ধব গাড়ি চালালেন ডিসি ‘পাসওয়ার্ড’ ছবির বিরুদ্ধে সেন্সর বোর্ডে অভিযোগ রেস্টুরেন্টে আফগান ক্রিকেটারদের ঝগড়াঝাঁটি প্রেমের টানে জার্মান নারী স্বামী-সংসার ফেলে খুলনায় যশোরে গণপিটুনিতে সন্ত্রাসী নিহত উবার চালককে পেটানোর ভিডিও করায় নিগৃহীত মিস ইন্ডিয়া বর্ষা ঋতুতে ব্যাঙ দাঁতে পেনসিল রেখে, বুড়ো আঙুলে ফুঁ দিয়েও সমস্যায় মুক্তি সৌদির প্রথম নারী পাইলট ইয়াসমিন মেসিদের দেখে ক্রুদ্ধ ম্যারাডোনা বগুড়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ গুলিবিদ্ধ ৮ মামলার আসামির মৃত্যু মিষ্টি কুমড়ায় যেসব ফাস্টফুড খাবার তৈরি করা যায় গোল করেও গোলশূন্য ড্র ব্রাজিলের হেসেখেলেই আফগানদের হারালো ইংল্যান্ড বিষাক্ত পোল্ট্রি-ফিস ফিড: ৬ কারখানা সিলগালা, ১০ জনের কারাদণ্ড ডোমিনিকান রিপাবলিক: মার্কিন পর্যটকদের মৃত্যুকূপ ঢাকাগামী সুন্দরবন-১০ লঞ্চে আগুন জাপানে শক্তিশালী ভূমিকম্প, সুনামি সতর্কতা জারি গাজীপুরে আ.লীগ প্রার্থী জয়ী, বিএনপি নেতার ভোট বর্জন ভাগনে অপহরণ: ফেসবুক লাইভে যা বললেন সোহেল তাজ আব্বাস: বদলে যাওয়া এক নিরব সব বিমানবন্দরে ডগ স্কোয়াড গঠনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর রূপপুর প্রকল্পের বালিশ-কাণ্ডে সংসদীয় কমিটির অসন্তোষ মিশরের প্রথম বৈধ প্রেসিডেন্ট মুরসির উত্থান যেভাবে দুষ্টু লোকজন সামান্য গণ্ডগোলের চেষ্টা করেছে: ইসি সচিব তুরস্কে মুরসির গায়েবানা জানাজায় জনতার ঢল দেশব্যাপী বিড়ি শ্রমিকদের বিক্ষোভ, মানববন্ধন ৩৬ বছরের লজ্জার রেকর্ড এখন রশিদের মোবাইলে লেনদেনে নতুন করে চার্জের সুযোগ নেই: বিটিআরসি মুরসির জানাজা কারাগারেই, দাফন হলো নীরবে