artk
সোমবার, আগষ্ট ১৯, ২০১৯ ১২:২১   |  ৩,ভাদ্র ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৪, ২০১৯ ৭:৩৬

দুদকের অনুসন্ধান চলাকালেই সম্পদ জব্দের সিদ্ধান্ত

media

এ সময় কমিশনের অপরাধলব্ধ সম্পত্তি ব্যবস্থাপনা ইউনিটের পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছির, গোয়েন্দা ইউনিটের পরিচালক, আইন অনুবিভাগর পরিচালক ও বিশেষ তদন্ত অনুবিভাগের পরিচালকসহ  ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুসন্ধান চলাকালেই অবৈধভাবে অর্জিত সম্পদ জব্দের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। বৃহস্পতিবার সকালে সংস্থাটির প্রধান কার্যালয়ে কমিশনের বিশেষ সভায় এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়।  

দুদক চেয়ারম্যানের অফিস কক্ষে কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদের সভাপতিত্বে নবগঠিত ‘অপরাধলব্ধ সম্পত্তি ব্যবস্থাপনা ইউনিটের’ কার্যক্রম নিয়ে জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ২০০৪ সাল থেকে আজ পর্যন্ত অবৈধ সম্পদ সংক্রান্ত চলমান এবং কমিশনের পক্ষে রায় হয়েছে এমন সব মামলায় সম্পৃক্ত সকল প্রকার অবৈধ সম্পদ জব্দ/ক্রোক/অবরুদ্ধ করে মামলার তালিকা অনুযায়ী রেজিস্ট্রারে লিপিবদ্ধ করে কমিশনে উপস্থাপন করতে হবে এবং এসব কার্যক্রমে যারা যুক্ত থাকবেন তাদের ফরোয়ার্ড ডায়রি অনুসরণ করতে হবে।

ইতোমধ্যেই যেসব মামলায় আসামিদের শাস্তির পাশাপাশি আর্থিক জরিমানা করা হয়েছে অথবা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে তাও রেজিস্টারে লিপিবদ্ধ করার নির্দেশ দেন কমিশনের চেয়ারম্যান।

এখন থেকে প্রতিটি অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় সম্পদ জব্দ/ক্রোক করতে হবে। অবৈধ সম্পদ ভোগ করার সুযোগ কাউকেই দেয়া হবে না। অবৈধ সম্পদ রাষ্ট্রের অনুকূলে আনার জন্য দুদক ব্যবস্থা নেবে।

এসব সম্পদ ব্যবস্থাপনায় যাতে কোনো প্রকার দুর্নীতি, সম্পদের ক্ষতিসাধন কিংবা অব্যস্থাপনার সুযোগ না থাকে এমন একটি নীতিমালা প্রণয়নের জন্য কেবিনেট ডিভিশন, অর্থ মন্ত্রণালয়, আইন-বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে একটি যৌথসভায় আউট সোর্সিংয়ের মাধ্যমে সম্পদ ব্যবস্থাপনা করা যায় কি না-তা পরীক্ষা করার নির্দেশ দেন।

এসব সম্পদের যারা জিম্মাদার হবেন, তাদের জবাবদিহিতার বিষয়টিও বিশেষভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে হবে উল্লেখ করে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, দুর্নীতির একটি পথ বন্ধ করে আরেকটি পথ কখনই খুলতে দেওয়া যাবে না।

সভায় তিনি বলেন, দুদকের যেসব মামলায় আসামিরা মারা গেছেন কিন্তু অবৈধ সম্পতি রয়ে গেছে এসব অবৈধ সম্পদ ক্রোক/জব্দ/বাজেয়াপ্ত করার জন্য আইনি পদক্ষেপ নিতে হবে।

এ সময় কমিশনের অপরাধলব্ধ সম্পত্তি ব্যবস্থাপনা ইউনিটের পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছির, গোয়েন্দা ইউনিটের পরিচালক, আইন অনুবিভাগর পরিচালক ও বিশেষ তদন্ত অনুবিভাগের পরিচালকসহ  ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পরবর্তীকালে দুদক কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে দুদক মহাপরিচালক (প্রশাসন) মুনীর চৌধুরী বলেন, এখন থেকেই দুর্নীতির অনুসন্ধান বা তদন্তকালে অবৈধভাবে অর্জিত সম্পত্তি দুদকের আওতায় নিয়ে আসা হবে। কোনোক্রমেই দুর্নীতিবাজ কিংবা অন্য কাউকে এই সম্পদ ভোগ করতে দেওয়া হবে না। দুদকই ওই সম্পত্তির ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করবে।

তিনি আরো বলেন, শুধু তাই নয় ২০০৪ সাল থেকে এখন পর্যন্ত দুদকের মামলায় যত সম্পদ ফ্রিজ বা ক্রোক হয়েছে, তাও দুদকের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

 

পেয়ারা পাড়তে গিয়ে স্কুলছাত্রীর করুণ মৃত্যু খুলনার সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ ভারত পরমাণু যুদ্ধ বাধাতে পারে: ইমরান খান রাঙামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনা সদস্য নিহত এক মাসেই তিনবার বাড়লো সোনার দাম ছাত্রদলের নেতেৃত্বে আসতে মনোনয়নপত্র কিনলেন ১০৮ জন ‘অদৃশ্য খুঁটির’ জোরে ৪ লাখ টাকার গাছ ৮০ হাজার টাকায় বিক্রি সিপিডির ভবনে এডিস মশার লার্ভা, ২০ হাজার টাকা জরিমানা শোক দিবসের আলোচনা সভা করবেন ড. কামাল চামড়া শিল্পে আপাতত সমস্যা নেই: শিল্পমন্ত্রী শোক দিবসের অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের রক্তদান সোমবার রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অতিরিক্ত ডিআইজি হলেন পুলিশের ২০ কর্মকর্তা এএসপির মেয়ের টেবিলের ওপর আঘাত হানলো কনস্টেবলের গুলি চামড়া বিক্রি বন্ধের সিদ্ধান্তে নেই আড়তদাররা দেশে এলো কলকাতায় নিহত ২ বাংলাদেশির মরদেহ ২৪ ঘণ্টায় ১৭০৬ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে সাকিবের সঙ্গে আমার দ্বন্দ্ব নেই: মাহমুদউল্লাহ বিমানবন্দরে ১০ হাজার ইয়াবাসহ আটক ১ ধর্ষণ মামলায় খুলনার কর কমিশনারের ছেলে রিমান্ডে মওদুদ আহমদ এ যুগের শয়তান: কৃষিমন্ত্রী রেকর্ড গড়া টেস্টে কিউইদের ৬ উইকেটে হারালো শ্রীলঙ্কা জারিন খানকে বিয়ে করছেন সালমান! এফআর টাওয়ার দুর্নীতি মামলায় তাসভির গ্রেফতার লঙ্কানদের কাছে টাইগারদের লজ্জার হার আলোকচিত্রী শহিদুলের বিরুদ্ধে মামলায় হাই কোর্টের আদেশ বহাল নিজেই তৈরি করুন পছন্দের নেইল পলিশ ভেড়ার লোভে স্ত্রীকে দিলেন প্রেমিকের হাতে! ঈদ পরবর্তী কার্যদিবসে সূচকে উত্থান খাবার দিতে দেরি করায় ওয়েটারকে গুলি করে হত্যা