artk
মঙ্গলবার, জুলাই ২৩, ২০১৯ ৩:৪৫   |  ৭,শ্রাবণ ১৪২৬
বুধবার, জানুয়ারি ২৩, ২০১৯ ৪:২৫

ইউনিপের চেয়ারম্যান-এমডিসহ ছয়জনের ১২ বছরের কারাদণ্ড

স্টাফ রিপোর্টার
media

২০১২ সালের ২১ এপ্রিল ঢাকায় বিক্ষোভ করেন ইউনিপেটুইউর ক্ষতিগ্রস্ত গ্রাহকরা

মুদ্রাপাচারের অভিযোগে করা দুদকের এক মামলায় ‘মাল্টি লেভেল মার্কেটিং’ কোম্পানি ইউনিপে-টু-ইউ বাংলাদেশ লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ ছয়জনকে ১২ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

একইসঙ্গে মামলার ছয় আসামিকে সব মিলিয়ে দুই হাজার সাতশ দুই কোটি ৪১ লাখ টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আবু সৈয়দ দিলজার হোসেন।

দণ্ডিত আসামিরা হলেন- ইউনিপে-টু-ইউ বাংলাদেশের লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মুনতাসির হোসেন, চেয়ারম্যান মো. শহীদুজ্জামান শাহীন, নির্বাহী পরিচালক মাসুদুর রহমান, মহা ব্যবস্থাপক এ এম জামসেদ রহমান, উপদেষ্টা মঞ্জুরুল এহসান চৌধুরী এবং ইউনিল্যান্ড লিমিটেডের পরিচালক এইচএম আরশাদ উল্লাহ।

তাদের মধ্যে শহীদুজ্জামান শাহীন, মাসুদুর রহমান ও মঞ্জুরুল এহসান চৌধুরী পলাতক।

আসামিদের মধ্যে তিনজনের উপস্থিতিতে বুধবার আট বছর আগের এ মামলার রায় ঘোষণা করেন তিনি।

রায়ে আদালত বলেছে, গ্রেপ্তার আসামিদের সাজা থেকে হাজতবাসকালীন সময় বাদ যাবে। আর জরিমানার অর্থ রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দিতে হবে।

২০১১ সালের ২৫ জানুয়ারি দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক তৌফিকুল ইসলাম ঢাকার শাহবাগ থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, ইউনিপে-টু-ইউ আমদানি, রপ্তানি ও মাল্টি লেভেল মার্কেটিং কোম্পানি হিসেবে রেজিস্ট্রার অব জয়েন্ট স্টক কোম্পানিজ অ্যান্ড ফার্মসের নিবন্ধন  নিয়ে কাজ শুরু করে।

কিন্তু আসামিরা বিনিয়োগের আইনকানুন ভঙ্গ করে ‘ভারচুয়াল গোল্ডে’ কথিত বিনিয়োগের কথা বলে অল্প সময়ের মধ্যে বেশি মুনাফার মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে অর্থ সংগ্রহ করে। তাদের প্রচার ও অপকৌশলে বিভ্রান্ত হয়ে আর্থিক লাভবান হওয়ার আশায় মানুষ ২০০৯ সালের নভেম্বর মাস থেকে ২০১০ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময়ে সিটি ব্যাংক নিউ মার্কেট শাখা, এনসিসি ব্যাংক নারায়গঞ্জ শাখা ও ব্র্যাক ব্যাংক এলিফেন্ট রোড শাখায় মোট ২৪৬ কোটি ৩০ লাখ ৪৫৪ টাকা জমা করে।”

আসামিদের মধ্যে ইউনিপে-টু-ইউর এমডি মুনতাসির হোসেন ও চেয়ারম্যান শহীদুজ্জামান শাহীন ২৫ কোটি ১২ লাখ ৩ হাজার ২০৭ টাকা ‘খরচ দেখিয়ে’ তুলে ব্যক্তিগত হিসাবে স্থানান্তর বা রূপান্তর করেন, যা মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে শস্তিযোগ্য অপরাধ।

তদন্ত শেষে ২০১১ সালের ২২ জুন এ মামলার আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় দুদক। ২০১৫ সালের ৬ জুলাই অভিযোগ গঠনের মধ্যে দিয়ে আসামিদের বিচার শুরুর আদেশ দেয় বিচারক।

রাষ্ট্রপক্ষে ২৭ জন সাক্ষীর মধ্যে ২৩ জনের সাক্ষ্য শুনে আদালত বুধবার ছয় আসমিকে দোষী সাব্যস্ত করে সাজার রায় দেন।

ছেলেধরা সন্দেহে কুষ্টিয়ায় ৮ ঘণ্টায় ৬ জনকে গণপিটুনি সন্দেহ হলে গণপিটুনি নয়, ৯৯৯ এ জানাতে পরামর্শ বন্যায় দেওয়ানগঞ্জে রেল লাইনের মাটি ধসে গেছে বন্যার্তদের পাশে বিএনপির ৫ টিম প্রিয়া সাহার এনজিও থেকে একযোগে ২৫ সদস্যের পদত্যাগ চার কারণে এসিড সন্ত্রাস কমেছে শিবপুরের ইউএনওকে লিগ্যাল নোটিশ পরিচ্ছন্ন রাজশাহীর প্রশংসা ভারতীয় হাইকমিশনারের ছেলেধরা সন্দেহে পাঁচ জেলায় ১৫ জনকে গণপিটুনি হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ থেকে বরখাস্ত প্রিয়া সোমালিয়ায় হোটেলের সামনে বোমা হামলা, নিহত ১৭ ১৭ মার্কিন গুপ্তচরকে গ্রেপ্তার করে কয়েকজনকে ফাঁসিতে ঝুলিয়েছে ইরান প্রিয়া সাহা বিভ্রান্তিমূলক ও নীতি গর্হিত বক্তব্য দিয়েছেন: বারকাত প্রায় দেড়শ গ্রামে জন্ম নিচ্ছে না কোনো কন্যাসন্তান শর্তসাপেক্ষে কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজকে তালিকাভুক্তির অনুমোদন কলকাতার রাস্তায় শ্লীলতাহানির শিকার অভিনেত্রী প্রণোদনার ৮৫ কোটি ৬৩ লাখ টাকা ছাড়ে চিঠি শ্রীলঙ্কায় গেলেন সাব্বির-বিজয়-মিঠুনরা গণপিটুনি বিএনপি-জামায়াতের নিখুঁত পরিকল্পনা: আইনমন্ত্রী স্ত্রী দোষ করলে স্বামী কেন তার দায় নেবেন: কাদের ফিলিস্তিনিদের ঘরবাড়ি ভেঙে ফেলছে ইসরায়েল এখন থেকে এক ক্লিকেই অনুমোদন ইসরায়েলের বিরুদ্ধে লড়াই ছাড়া বিজয় আসবে না কোহলিদের কোচ হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে কারস্টেন, মুডি, মাহেলা ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে যে অভিযোগে মামলা ব্যবসায়ী নূর আলীকে দুদকে তলব ব্যাংকারদের সক্ষমতা বাড়ানোর ওপর জোরারোপ পাকিস্তান ক্রিকেট দলকে ঢেলে সাজাচ্ছেন ইমরান খান! সৈয়দ মঞ্জুরের নেতৃত্বে বিএনপির শতাধিক নেতাকর্মীর জাপায় যোগদান জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি ডেঙ্গুতে আক্রান্ত