artk
শুক্রবার, এপ্রিল ২৬, ২০১৯ ১০:৫৫   |  ১৩,বৈশাখ ১৪২৬
বুধবার, জানুয়ারি ২৩, ২০১৯ ১২:৫৬

ত্বকের জন্য যে অভ্যাসগুলো ক্ষতিকর

লাইফস্টাইল ডেস্ক
media
ঘন ঘন ব্লিচ বা স্ক্রাবিং ত্বককে ফর্সা তো করেই না, উল্টো ত্বককে কালচে করে দেয়।

শীতে শুষ্ক আবহাওয়ার কারণে ত্বক হয় মলিন ও নিষ্প্রাণ। তা সাথে ত্বকের উজ্জ্বলতাও একেবারেই কমে যায়। কিন্তু সব পরিবর্তনই আবহাওয়ার জন্য হয় না। নিজেদের কিছু ভুল অভ্যাসের কারণে ধীরে ধীরে স্থায়ী ভাবে ত্বক নষ্ট হয়। জেনে নিন সে অভ্যাসগুলো কী কী?

ধূমপান

ত্বকের যত্নের পথে সবচেয়ে বড় বাধা ধূমপান। শুধু হৃদরোগ বা ফুসফুসের ক্যান্সার না ত্বকেরও অনেক ক্ষতি করে সিগারেটের নিকোটিন। এছাড়া সিগারেটের কার্বন মনো অক্সাইড ত্বকে অক্সিজেন পৌঁছনোর পথেও বাধা হয়ে দাঁড়ায়। ফলে ত্বক শুষ্ক হয় দ্রুত।

তেল-মসলা

খাবারের সঙ্গে শরীরে প্রবেশ করা তেল-মসলার পরিমান কমাতে না পারলে ত্বকের ক্ষতি প্রতিরোধ প্রায় অসম্ভব। শরীরের অতিরিক্ত তেল ত্বকের কোষের মুখগুলোকে আটকে দেয়। এর প্রভাবে ব্রণ হয় অনেক বেশি।

ব্লিচ ও স্ক্রাব

ত্বকের রং ফর্সা করার জন্য ব্লিচ ও স্ক্রাব করান অনেকেই। কিন্তু গায়ের রং বদলানো একেবারেই অসম্ভব। তাই ব্লিচ বা স্ক্রাবিংয়ে ফর্সা হওয়ার কোনো উপায় নেই। বরং বয়স ৪০ হওয়ার আগে ব্লিচ করার প্রয়োজন হয় না। আর করলেও তা ত্বকের অবস্থার উপর নির্ভর করে করানোই বুদ্ধিমানের কাজ। ঘন ঘন ব্লিচ বা স্ক্রাবিং ত্বককে ফর্সা তো করেই না, উল্টো ত্বককে কালচে করে দেয়।

গরম পানি

সারা শীতকাল জুড়ে গরম পানিতে মুখ পরিষ্কার করছেন নিশ্চয়ই। গরম পানি ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতাকে নষ্ট করে ও ত্বকের প্রয়োজনীয় তেল কমিয়ে দেয়। ফলে চামড়া ভাজ পড়া ও ত্বক রুক্ষ হওয়া সবচেয়ে বেশি হয় গরম পানির কারণে।

ইচ্ছামতো ওষুধ

চিকিৎসকের পরামর্শ না মেনে ইচ্ছামতো ওষুধ খাওয়া শরীরের জন্য তো খারাপই, ত্বকের জন্যও খুব ক্ষতিকর। আপনার ত্বকের জন্য ক্ষতিকর কিনা তা না জেনে একেবারেই ওষুধ খাওয়া যাবে না। প্রসাধনী বিজ্ঞাপন দেখেই বা অন্য কারো কথা শুনেই প্রসাধন কেনা উচিত নয়। প্রত্যেকের ত্বকের প্রকৃতি আলাদা হয় তাই না জেনে প্রসাধনী ব্যবহার করা উচিত নয়। তাই প্রসাধনী কেনার আগে রূপবিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিন।

শ্রীলঙ্কায় নিহতের সংখ্যা কমানো হয়েছে ঝিনাইদহে মা-মেয়েকে কুপিয়ে হত্যা চুয়াডাঙ্গায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মা-ছেলের মৃত্যু মোবাইলে আসক্তির কারণেই ভাঙছে সম্পর্ক! বিশ্ব মেধাসম্পদ দিবস শুক্রবার কুষ্টিয়ায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে ‘মাদক ব্যবসায়ী’ নিহত ডায়াবেটিস এড়াতে আগে থেকেই যে প্রস্তুতি নিবেন সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ ও মাদক নির্মূলে অভিভাবক সমাবেশ শুক্রবার চুয়াডাঙ্গায় ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা হামলাকারীদের লাশ নেবেন না শ্রীলংকার মুসলিমরা চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ছে না ক্ষমা না চাইলে শমীর সংবাদ বর্জন কৃষককে গুলি করে হত্যা করলেন আ. লীগ নেতা ৯০ ভাগ স্কুলের পাশে সিগারেট বিক্রি হয় বন্ধ হচ্ছে সাড়ে ২০ লাখ সিম হয় দুর্নীতিবাজরা থাকবে, না হয় আমি থাকব: গণপূর্তমন্ত্রী মোদির বিরুদ্ধে লড়াই করবেন অজয় রায় মুশফিকের ব্যাটে কপাল ফাটলো কোচের! দুই সন্তানসহ আত্মঘাতী এক হামলাকারীর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী, তিন পুলিশ নিহত নিজেকে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ঘোষণা করলেন জো বাইডেন জাহিদের বিরুদ্ধে শিগগিরই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা: ফখরুল রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট তৈরি রোধে দুদকের অভিযান সালমান খানের বিরুদ্ধে ছিনতাইয়ের অভিযোগ! নুসরাত হত্যা মামলার অন্যতম আসামি মহিউদ্দিন শাকিল গ্রেপ্তার প্রশাসনিক কর্মকর্তা হত্যা: ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড পুঁজিবাজারের এক পক্ষ সিংহ অপরটি ছাগলের বাচ্চা: অর্থমন্ত্রী আইএসকে বিস্ফোরক দেয় ৭ ভারতীয় প্রতিষ্ঠান! মোটরসাইকেলে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কা, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী নিহত সেই আবজাল-রুবিনাসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করবে দুদক ব্যবস্থাপত্র ছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক বিক্রি বন্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ