artk
সোমবার, মার্চ ২৫, ২০১৯ ১০:৪৩   |  ১১,চৈত্র ১৪২৫

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

শনিবার, জানুয়ারি ১২, ২০১৯ ৭:৩৬

ইসলামের ‘চায়নিজ সংস্করণ’ বাস্তবায়নের চেষ্টা করছে চীন

media

আইন করে ইসলামের নিয়ম নীতি ও সংস্কৃতি বদলে ফেলতে যাচ্ছে চীন। মুসলিম প্রতিনিধিদের সঙ্গে দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা এ নিয়ে আলোচনা করে নতুন আইনের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন বলে চীনের ইংরেজি সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমসে প্রকাশিত সংবাদে বলা হয়েছে। 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এটা ধর্মীয় বিশ্বাসের ওপর চরম আঘাত এবং অযৌক্তিক। এর মাধ্যমে ধর্মীয় বিশ্বাসকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে চায় দেশটির সরকার। এটা মানবাধিকারের পরিপন্থী। 

জানা গেছে, ইসলামকে চীনের সমাজতান্ত্রিক সংস্কৃতির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ করে তুলতেই ওই নতুন আইন করা হচ্ছে। আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে ইসলাম ধর্মের ‘চাইনিজ ভার্সন' বাস্তবায়ন করার পরিকল্পনাও ঘোষণা করা হয়েছে৷

গত সপ্তাহে চীনের তিন প্রদেশে নিবন্ধন ছাড়া মসজিদে তল্লাশি চালিয়ে ৪০ জনকে গ্রেপ্তারের পরপর ইসলাম ধর্মের চীনা রূপের ঘোষণা এলো৷

চীন বিষয়ক বিশেষজ্ঞ ওকলোহামা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ডেভিড স্ট্রোপ বলেন, চীনের এই ধরনের সিদ্ধান্তের পেছনে বড় কারণ ইসলামিক দলগুলোর ওপর নিয়ন্ত্রণ নেয়া৷ এছাড়া চীন কখনোই অধিক বিদেশি বৈশিষ্ট্য সম্বলিত ধর্ম প্রসার হতে দেবে না৷ এক কথায় বলতে গেলে ইসলাম ধর্মের হাত ধরে যে আরব সংস্কৃতির প্রসার ও আরব ঘরানার মসজিদ গড়ে উঠছে চীনে, সেটিকে নিয়ন্ত্রণ করাই চীনা প্রশাসনের মূল লক্ষ্য৷ এর মধ্য দিয়ে ধর্মীয় বিশ্বাসকেও নিয়ন্ত্রণ করতে চায় চীন৷

চীনে উইঘুর ও অন্যান্য সম্প্রদায়ের মানুষকে আটক করে তাদের মতাদর্শ পরিবর্তনের জন্য বন্দিশিবির খোলা হয়েছে৷

এ প্রসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্রস্টবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের চীনা অধ‌্যাপক হাইয়ুন মা বলেন, ‘‘ধর্মীয় আচারে পরিবর্তনের সিদ্ধান্তকে চীনাদের অতি জাতীয়তাবাদের লক্ষণ বলেই মনে হয়৷ এখানে কয়েকটি বিষয়ে নজর দেওয়া যায়, এর মধ্যে নাস্তিকতার অনুসারী প্রশাসক দল একটি ধর্মকে পরিমার্জন করছে, এটি অযৌক্তিক৷''

তিনি আরো বলেন, ‘‘চীনারা মনে করে, আরব সংস্কৃতি মানেই ভয়ানক কিছু৷ তাই চীনা মুসলমানদের জীবন থেকে তাবৎ আরব আচার মুছে ফেলাটাই সঠিক সিদ্ধান্ত৷ এটিকে চীনা জাতীয়তাবাদের চরম পর্যায় বলা যায়, যার মধ্য দিয়ে ধর্মীয় বিশ্বাসকেও নিয়ন্ত্রণ করতে চায় চীন৷''

তিনি আরো উল্লেখ করেন, ধর্ম পরিমার্জনের এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হলে চীনা মুসলমানরা বিশ্ব মুসলিম ঐক্য থেকে আলাদা হয়ে একঘরে হয়ে পড়বে৷ এটাই চীনা প্রশাসনের মূল চাওয়া বলে মনে করা হচ্ছে৷ 

এদিকে দেশটির ১০ লাখেরও বেশি মুসলিমকে বিভিন্ন অস্থায়ী ক্যাম্পে আটক রেখে ধর্ম পালনে বাধা এবং জোর করে কমিউনিস্ট মতাদর্শে আস্থাশীল করার চেষ্টা হচ্ছে বলেও ধারণা জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থার৷ ইতোমধ্যে চীনের বিভিন্ন মসজিদ থেকে গম্বুজ ও চাঁদ-তারার প্রতিকৃতি সরিয়ে নেওয়া হয়েছে৷ সেখানে মাদ্রাসার পাশাপাশি আরবি ভাষা শেখানোও নিষিদ্ধ করা হয়েছে৷

এদিকে চীনা প্রশাসন দাবি করছে, দেশে মুসলমান বাড়ছে৷ এ অবস্থায় দেশের একটি বৃহত্তর জনগোষ্ঠীকে মুসলিম দেশগুলোর চলমান সন্ত্রাসবাদ ও উগ্র ধর্মান্ধতা থেকে দূরে রাখতেই পরিবর্তন আনা হচ্ছে৷ এটিকে চীনা জাতীয়তাবাদের প্রতি শ্রদ্ধাশীল ও সম্মানজনক সিদ্ধান্ত বলেই মনে করছেন তারা৷

আইপিএল: রাতে পাঞ্জাব-রাজস্থান মুখোমুখি চুয়াডাঙ্গায় ১টি নৌকা, ৩টিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিজয়ী লাইটের ব্যাটারিতে ২ কোটি ৭৮ লাখ টাকার স্বর্ণ সেরা নায়ক-নায়িকা রণবীর ও আলিয়া সিডনিতে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও বনভোজন অনুষ্ঠিত রাজধানীতে হেলে পড়েছে ছয়তলা ভবন সিডনিতে ক্রাইস্টচার্চে নিহতদের জন্য দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ভয়াল ২৫ মার্চ, জাতীয় গণহত্যা দিবস সোমবার ‘মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়া প্রভাব বিস্তার করেনি’ ত্বক ও চুলের সমস্যা? নিমপাতায় সমাধান রানী প্রথম এলিজাবেথ রক্ত পরিশোধন করতে খান পটল আনন্দ মিছিলে যুবলীগ নেতাকে হত্যার অভিযোগ সিরিয়া থেকে ৫০ টন সোনা লুট করেছে মার্কিন সেনারা বিএনপি অংশ নেয়নি বলে ভোটার উপস্থিতি কম: হানিফ মুসলিম দেশগুলো ভয়ে মুখ খোলে না: মাহাথির ‘ভেনেজুয়েলার অর্থ চুরি করেছে আমেরিকা’ ক্ষমতাচ্যুত হচ্ছেন থেরেসা মে! বক্স অফিসে ঝড় তুলেছে ‘কেসারি’ হিযবুত তাহরীরের প্রধান সমন্বয়ক মহিউদ্দিন খালাস রাজধানীর গুলশান-বনানীতে নিরাপত্তা জোরদার আ. লীগ প্রার্থীর বাবার মতো চেহারা দেখেই হামলা বেরোবি অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের কর্মবিরতি স্থগিত ইসলাম গ্রহণের আহ্বানে যা বললেন নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী নিউ লাইন ক্লোথিংসের আইপিওর লটারির ড্র অনুষ্ঠিত করপোরেট ট্যাক্স কমানোর দাবি আইসিএবির আন্দোলন কখনো ভেসে যায় না: রব ভোটের ‘পার্সেন্টেজ’ নিয়ে ইসির মাথা ব্যথা নেই: হেলালুদ্দীন শিশু বয়সেই খ্যাতি পেয়েছিলেন শাহনাজ রহমত উল্লাহ বিআরটিএ-পিডিবি-পাসপোর্ট অফিসে দুদকের অভিযান