artk
বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৪, ২০১৯ ৯:১৯   |  ১১,মাঘ ১৪২৫

স্পোর্টস রিপোর্টার

সংবাদ ডেস্ক

শনিবার, জানুয়ারি ১২, ২০১৯ ৭:২৫

টানা চার হারের পর বিমর্ষ খুলনার অধিনায়ক রিয়াদ

স্পোর্টস রিপোর্টার
media

বিপিএলে ব্যর্থতার বৃত্ত ভাঙতে পারছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের খুলনা টাইটানস। শনিবার মিরপুরে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে সুপার ওভারে চিটাগং ভাইকিংসের সাথে হেরেছে তারা। টানা চার ম্যাচ হেরে টুর্নামেন্টের শেষ চারে উঠতে বাকি আট ম্যাচের মধ্যে অন্তত ছয়টি ম্যাচ জিততে হবে খুলনাকে। যা, খুলনার জন্য খুবই চ্যালেঞ্জ মনে করছেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

বিপিএলে ব্যর্থতার বৃত্ত ভাঙতে পারছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের খুলনা টাইটানস। শনিবার মিরপুরে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে সুপার ওভারে চিটাগং ভাইকিংসের সাথে হেরেছে তারা। টানা চার ম্যাচ হেরে টুর্নামেন্টের শেষ চারে উঠতে বাকি আট ম্যাচের মধ্যে অন্তত ছয়টি ম্যাচ জিততে হবে খুলনাকে। যা, খুলনার জন্য খুবই চ্যালেঞ্জ মনে করছেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

শনিবার মিরপুর নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে চিটাগং ভাইকিংসের সাথে সুপার ওভারে হেরেছে তারা। অথচ তার আগে শেষ ওভারে জিততে চিটাগংয়ের প্রয়োজন ছিল ১৯ রান। কিন্তু ঐ ওভারে খুলনার পেসার আরিফুল হক এক ওভারে ১৮ রান দিলে জয় হাতছাড়া হয় খুলনার। এরপর সুপার ওভারে এক ওভারে ১২ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে ১০ রানের বেশি তুলতে পারেনি তারা। ফলে এক ম্যাচে দুইবার জুয়ের সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি রিয়াদবাহিনী।

এ বিষয়ে রিয়াদ বলেন, ওই সময় অফস্পিনটা হয়তোবা একটু কঠিন হতো। শেষ ওভারে ১৯ রান, আমি ভাবলাম আরিফ ভালো অপশন। ও হয়তো ওয়াইড ইয়র্কার করবে! কিন্তু হয়নি দূর্ভাগবশত।,

এছাড়া রিয়াদ বলেন, এই ম্যাচে দুইটা সময় আমাদের ম্যাচ জেতার সুযোগ ছিল। টানা তিনটি ম্যাচ হেরে যাওয়ার পর আজকে ভালো একটি সুযোগ ছিল। কিন্তু আমরা দুইবারই সুযোগটা হারালাম। সুপার ওভারে ১১ রান বড় কোন লক্ষ্য না। এটা চেজঅ্যাবল। আমরা করতে পারেনি। জিততে পারলে ভালো লাগতো অবশ্যই। প্রথমবারের মতো বিপিএলে সুপার ওভার। কেউইতো আসলে সুপার ওভার চায় না। কোন অধিনায়কই সুপার ওভার খেলতে চাইবে না। আগেই বললাম, ১ ওভারে ১৯ রান ডিফেন্ড করা আমাদের উচিত ছিল। সুপার ওভারেও ১২ রান চেজ করা উচিত ছিল। কিন্তু আমরা পারিনি।,

টুর্নামেন্টে টিকে থাকার বিষয়ে তিনি বলেন, “এখন টুর্নামেন্টটি আমাদের কঠিন হয়ে গেছে। ৮ টা ম্যাচের মধ্যে আমাদের ৫ থেকে ৬ টা ম্যাচ জিততেই হবে। এটা অনেক কঠিন। তারপরও এটা ক্রিকেট খেলা। দলের প্রতি আমার মেসেজ থাকবে টুর্নামেন্টে বাকি ৮টা ম্যাচের কথা চিন্তা করে খেলে লাভ নেই। আমাদের একটা একটা করে ম্যাচের কথা চিন্তা করে খেলতে হবে।,

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসএস/এস/এএইচকে