artk
বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৪, ২০১৯ ৮:০৫   |  ১১,মাঘ ১৪২৫

স্টাফ রিপোর্টার

সংবাদ ডেস্ক

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ১০, ২০১৯ ৯:৩৯

সাভারে ইন্টারনেট ব্যবসার জেরে যুবলীগ নেতার গুলিতে আহত ৫

media

যুবলীগ নেতা রাসেল মাদবর

দাবিকৃত চাঁদার টাকা না দেয়ায় বৃহস্পতিবার সকালে তার অফিসে হামলা করে রাসেল মাদবরের লোকজন। এ সময় রাসেল মাদবরের ছোড়া গুলিতে ওই পাঁচজন আহত হন। তাদের মুমূর্ষু অবস্থায় সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানান যুবদল নেতা ইউনুছ।

সাভারে এক যুবলীগ নেতার গুলিতে পাঁচজন আহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধদের সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে সাভারের শাহীবাগ এলাকায় ইন্টারনেট ব্যবসাকে কেন্দ্র করে এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধরা হলেন- স্থানীয় ইসমাইল (২৫), মিরাজুল ইসলাম অপু (২৫), রেজাউল করিম (২৭), ডলি আক্তার (৩৯) ও সুমাইয়া আক্তার (২২)।

এ ব্যাপারে সাভার পৌর যুবদলের সহসভাপতি ইউনুছ পারভেজ জানান, তিনি দীর্ঘদিন ধরে সাভারের শাহীবাগ এলাকায় ইন্টারনেট ব্যবসা করছেন। নির্বাচনের পর কয়েকদিন ধরে তার কাছে প্রকাশ্যে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল মাদবরের ছেলে যুবলীগ নেতা রাসেল মাদবর।

দাবিকৃত চাঁদার টাকা না দেয়ায় বৃহস্পতিবার সকালে তার অফিসে হামলা করে রাসেল মাদবরের লোকজন। এ সময় রাসেল মাদবরের ছোড়া গুলিতে ওই পাঁচজন আহত হন। তাদের মুমূর্ষু অবস্থায় সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানান যুবদল নেতা ইউনুছ।

এ বিষয়ে সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাসেল মাদবরের বাবা কামাল মাদবর বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে পূর্বশত্রুতার জের ধরে তার শাহীবাগের বাসা লক্ষ্য করে প্রায় সাত রাউন্ড গুলি ছুড়েছে যুবদল নেতা ইউনুছ পারভেজ ও তার লোকজন। এ সময় তার বাসায় হামলা চালায় ও রাসেল মাদবরকে গুলি করে লাশ গুম করারও হুমকি দেয় তারা।

এ ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সেলিম রেজা জানান, শাহীবাগ এলাকায় গুলিতে আহতরা রাসেল ও তার লোকজন গুলি ছোড়েছে বলে জানান। এ ঘটনায় সাভার মডেল থানায় রাসেল ও তার লোকজনের বিরুদ্ধে ইউনুস পারভেজ একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।