artk
বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৪, ২০১৯ ৮:১০   |  ১১,মাঘ ১৪২৫
রোববার, জানুয়ারি ৬, ২০১৯ ৮:১০

রপ্তানিতে উৎসে কর কমলো

স্টাফ রিপোর্টার
media

পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে রপ্তানি মূল্যের ওপর উৎসে কর কর্তনের হার দশমিক ২৫ শতাংশ নির্ধারণ করে বিশেষ আদেশ জারি করেছে অর্থমন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ। এর ফলে পাটজাত দ্রব্য ব্যতীত তৈরি পোশাকসহ সব পণ্য রপ্তানিতে নতুন এই সুবিধা পাওয়া যাবে।  

পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে রপ্তানি মূল্যের ওপর উৎসে কর কর্তনের হার দশমিক ২৫ শতাংশ নির্ধারণ করে বিশেষ আদেশ জারি করেছে অর্থমন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ। এর ফলে পাটজাত দ্রব্য ব্যতীত তৈরি পোশাকসহ সব পণ্য রপ্তানিতে নতুন এই সুবিধা পাওয়া যাবে।  

অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও এনবিআর চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভুঁইয়া সই করা নতুন এ আদেশ ১ জানুয়ারি থেকে কার্যকর ধরা হয়েছে।

জারি করা নতুন এসআরওতে বলা হয়েছে, ১৯৮৪ সালের আয়কর অধ্যাদেশের ৪৪ ধারার ৪ উপধারা অনুযায়ী ৫ সেপ্টেম্বরের এসআরওটি সংশোধন করা হলো। আগের এসআরওতে উল্লিখিত উৎসে করহার দশমিক ৬ শতাংশের পরিবর্তে নতুন হার দশমিক ২৫ শতাংশ প্রযোজ্য হবে। মানে ১০০ টাকার তৈরি পোশাক রপ্তানিতে উৎসে কর ৬০ পয়সার পরিবর্তে ২৫ পয়সা করে প্রযোজ্য হবে।

এর আগে ২০১৮ সালের ৫ সেপ্টেম্বর গেজেটের মাধ্যমে প্রথম দফায় উৎসে করহার পরিবর্তন করা হয়েছিল। যেখানে বলা হয়েছে, পাটজাত পণ্য বাদে সব পণ্যে উৎসে আয়কর কর্তনের হার দশমিক ৬ শতাংশ করা হয়েছিল।  আয়কর অধ্যাদেশ, ১৯৮৪-এর ধারা ৫৩ বিবি ও ৫৩ বিবিবিবিতে যেসব পণ্যের কথা বলা হয়েছে, সেগুলোয় রপ্তানির ক্ষেত্রে রপ্তানিমূল্যের ওপর ওই আদেশ প্রযোজ্য ছিল।

এদিক গত অর্থবছরে রপ্তানির ক্ষেত্রে রপ্তানি মূল্যের ওপর ১ শতাংশ হারে উৎসে কর কর্তন প্রযোজ্য ছিল। ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জন্য পাটজাত দ্রব্য ছাড়া সব পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে উৎসে কর কর্তনের হার কমিয়ে শূন্য দশমিক ৭০ শতাংশ করা হয়। এনিয়ে একটি গেজেটও জারি করে এনবিআর। সে গেজেটের মেয়াদ গত জুন মাসে শেষ হয়। পরে ব্যবসায়ীদের দাবির মুখে এই উৎসে কর হার শূন্য দশমিক ৬০ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এমএজেড/ডি