artk
বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৪, ২০১৯ ৮:০৬   |  ১১,মাঘ ১৪২৫

বিনোদন ডেস্ক

সংবাদ ডেস্ক

শনিবার, জানুয়ারি ৫, ২০১৯ ৭:২৫

রঙিন পাতায় সেলিম চৌধুরী ও রিজভী

media

দুই দশক আগে ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যদিতে ‘বৃষ্টি পড়ে টাপুর টুপুর, পায়ে দিয়ে সোনার নুপূর’ গানটি গেয়ে দারুণ জনপ্রিয়তা পান সংগীতশিল্পী সেলিম চৌধুরী। বাকীউল আলমের লেখা এই গানটির সুর করেছিলেন মান্নান মোহাম্মদ। পরে গানটি ‘কুসুম কুসুম প্রেম’ চলচ্চিত্রেও ব্যবহৃত হয়। ১৯৮৯ সালে সেলেক্সের ব্যানারে বাজারে আসে সেলিম চৌধুরীর প্রথম গানের অ্যালবাম ‘কবিতার মতো চোখ’। সেই হিসেবে চলতি বছর সংগীতাঙ্গনে ৩০ বছরে পদাপর্ণ করলেন সেলিম চৌধুরী। সংগীতাঙ্গণে দীর্ঘ এই পথচলা সম্পর্কে কথা বলতে এনটিভির জনপ্রিয় বিনোদনমূলক ধারাবাহিক ‘রঙিন পাতা’ অনুষ্ঠানে অতিথি হয়েছেন তিনি।

অনুষ্ঠানটি ৬ জানুয়ারি রোববার রাত ৯টায় এনটিভিতে প্রচারিত হবে। এখানে সেলিম চৌধুরীর সঙ্গে অতিথি হয়েছেন সাংবাদিক ও গীতিকার রেজাউর রহমান রিজভী।

‘রঙিন পাতা’ সম্পর্কে সেলিম চৌধুরী বলেন, ‘গতানুগতিক ধারার সেলিব্রেটি শোর বাইরে এই অনুষ্ঠানটি। অনুষ্ঠানে উপস্থাপিকার প্রশ্নগুলোর ধরণও অনেক আলাদা ছিল। পাশাপাশি আমার সংগীতের দীর্ঘ ক্যারিয়ারের নানা প্রসঙ্গও আলোচনায় উঠে এসেছে।’

সাংবাদিক ও গীতিকার রেজাউর রহমান রিজভী বলেন, ‘সেলিম চৌধুরী আমার নিজেরও অত্যন্ত পছন্দের একজন সংগীতশিল্পী। তার শিল্পী সত্ত্বার বাইরেও তিনি একজন ভালো মানুষ। তার সঙ্গে একই অনুষ্ঠানে আড্ডা দিতে পেরে আমি আনন্দিত।’

কাজী মোহাম্মদ মোস্তফার পরিকল্পনা ও প্রযোজনায় ‘রঙিন পাতা’ অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেছেন তৌহিদা শ্রাবণ্য। অনুষ্ঠানটির গ্রন্থনা ও গবেষণা করেছেন নাইস নূর।

প্রসঙ্গত, সেলিম চৌধুরীর প্রথম অ্যালবাম ‘কবিতার মতো চোখ’-এর মিল্টন খন্দকারের লেখা ‘কবিতার মতো চোখ যে তোমার’ এবং রাধা রমনের ‘কারে দেখাবো মনের দুঃখ গো’ গান দুটি বেশ শ্রোতাপ্রিয়তা পায়। আলোচনায় চলে আসেন সেলিম চৌধুরী। এরপর বাজারে আসা তার উল্লেখযোগ্য অ্যালবামগুলো হচ্ছে- ‘মধু পূর্ণিমা রাতে’, ‘সজনী’, ‘প্রথম প্রেম’, ‘আইজ পাশা খেলবো’, ‘রূপ সাগরে’, ‘হাজার টাকার বাগান’, ‘একদিন তোর হইবোরে মরণ’, ‘টিয়া চন্দনা’, ‘বাউল বাতাস’ ইত্যাদি। ‘প্রেমের সমাধি’ চলচ্চিত্রে তিনি প্রথম প্লেব্যাক করেন। হুমায়ূন আহমেদের ‘চন্দ্রকথা’, ‘দুই দুয়ারী’ ও ‘শ্যামল ছায়া’ চলচ্চিত্রেও গান গেয়েছেন সেলিম চৌধুরী।