artk
মঙ্গলবার, মার্চ ২৬, ২০১৯ ৯:২৬   |  ১২,চৈত্র ১৪২৫

লাইফস্টাইল ডেস্ক

শনিবার, জানুয়ারি ৫, ২০১৯ ৭:১৫

ভুলো মনের সমাধান আঁকাআঁকি

লাইফস্টাইল ডেস্ক
media

স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদনে তিনি বলেন, “লেখার ক্ষেত্রে মস্তিষ্কের যতগুলো অংশ জেগে ওঠে তার থেকে বেশি অংশ জাগ্রত হয় কোনো কিছু আঁকার সময়। আমরা মনে করি চিত্রাঙ্কনের বহুমুখীতার কারণে তা স্মৃতিশক্তি ও মস্তিষ্কের জন্য বেশি কার্যকর।”

ভুলে যাওয়ার বিড়ম্বনা এড়াতে নোট লিখে রাখা বা মোবাইলে রিমাইন্ডার দেওয়ার পরও কাজ না হলে অঙ্কন প্রক্রিয়া হতে পারে সমাধান।

কারণ কানাডার ‘ইউনিভার্সিটি অফ ওয়াটারলু’তে ‘কগনিটিভ নিউরোসায়েন্স’য়ের উপর করতে যাওয়া পিএইচডি’র শিক্ষার্থী মেলিসা মিড তাদের গবেষণায় দেখতে পান আঁকার ফলে মনে থাকে বেশি।

স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদনে তিনি বলেন, “লেখার ক্ষেত্রে মস্তিষ্কের যতগুলো অংশ জেগে ওঠে তার থেকে বেশি অংশ জাগ্রত হয় কোনো কিছু আঁকার সময়। আমরা মনে করি চিত্রাঙ্কনের বহুমুখীতার কারণে তা স্মৃতিশক্তি ও মস্তিষ্কের জন্য বেশি কার্যকর।”

বৃদ্ধ ব্যক্তিদের স্মৃতিশক্তি ধরে রাখতে এই পদ্ধতি বিশেষ উপকারী হিসেবে উল্লেথ করে মেলিসা মিড বলেন, “প্রবীণদের স্মৃতিশক্তির উন্নয়নে এখন পর্যন্ত ব্যবহৃত সকল পদ্ধতির চাইতে চিত্রাঙ্কন পদ্ধতি সবচাইতে বেশি উপকারী।”

কয়েকটি ধাপে করা একাধিক পরীক্ষাভিত্তিক এই গবেষণায় অংশ নিয়েছিলেন বিভিন্ন বয়সের মোট ৪৮ জন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ। যুবক, বৃদ্ধ সকলকে মনে রাখার বিভিন্ন কৌশল ব্যবহার করে কোনো কিছু মনে রাখার চেষ্টা করান গবেষকরা।

অংশগ্রহণকারীরা সকলেই বেছে নেয় লেখা কিংবা এঁকে রাখার পদ্ধতি। পরিশেষে দেখা যায়, যে শব্দগুলো তারা লিখেছিলেন সেগুলোর তুলনায় যেগুলো তারা এঁকেছেন সেগুলো বেশি মনে রাখতে পেরেছেন।

গবেষকরা বলেন, “আপনি কতোটা ভালো বা কতোটা খারাপ আঁকেন তার উপর কোনো কিছু নির্ভর করেনা। যাই আঁকেন না কেনো তা আপনার স্মৃতিতে গেঁথে থাকবে গভীরভাবে।

‘ডিমেনশিয়া’ ভোগা রোগীদের কীভাবে এই পদ্ধতি ব্যবহার করে সাহায্য করা যায় সে বিষয়ে কাজ করছেন এই গবেষণার গবেষকরা।

ঐশ্বরিয়ার এই ছবি নিয়ে গুঞ্জন কেন? যুদ্ধের শঙ্কা আছে, পাকিস্তান প্রস্তুত: ইমরান খান ভোট কেনার অভিযোগে আ. লীগ নেতা বহিষ্কার! পুলিশ ডেকে খালি করতে হলো সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে মাশরাফির ভাবনায় ‘ফিনিশিং’ বিশ্বকাপের প্রস্তুতি প্রিমিয়ার লিগে নয়: মাশরাফি ইতালিতে গণহত্যা দিবস পালিত রাজধানীতে নির্মাণাধীন ভবন থেকে বাঁশ পড়ে নারীর মৃত্যু উত্তরা থেকে শিশু গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার, হত্যার অভিযোগ গোলান নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ বিএনপির চিকিৎসার জন্য জামিন পেলেন নওয়াজ শরিফ শাবি উপাচার্য বললেন, ‘এরা ছাত্রলীগ নামধারী জঙ্গি’ বাথরুমের গ্রিল ভেঙে আসামির পলায়ন ভারতের আকাশ দিয়ে মাহাথিরকে পাকিস্তানে যেতে দেয়া হয়নি রাস্তায় গাড়িবহর থামিয়ে তরমুজ বিক্রেতাকে ডাকলেন অর্থমন্ত্রী মশারি টানানোর লাঠি নিয়ে ৭ মার্চের ভাষণ শুনতে গিয়েছিলাম: সিইসি বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিচারণ করে কাঁদলেন মাহবুব তালুকদার ফুল দিয়ে ফেরার পথে বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হামলা বাংলাদেশে আমিত্ব একটি বড় সমস্যা: দুদক চেয়ারম্যান একসঙ্গে অন্তঃসত্ত্বা হাসপাতালের ৯ নার্স স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে এসে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ স্কুলছাত্রী নিহত ষোলো আনা মুক্তির জন্য আন্দোলন অব্যাহত রাখতে হবে: ড. কামাল যশোরে প্রথম সন্তান জন্মের ২৬ দিন পর জমজ সন্তান প্রসব! হবিগঞ্জে স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে হামলা, ২০ শিক্ষার্থী আহত জানেন কি ঢেঁড়সের এই উপকারিতাগুলো? স্বামী ও আমাকে হয়রানি করতেই এ মামলা: সালমা ফতুল্লায় ডাইং কারখানায় ভয়াবহ কেমিক্যাল বিস্ফোরণ টেকনাফে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে রোহিঙ্গা নিহত স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনায় স্কুলছাত্রী নিহত সাংবাদিকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারে বিএসইসির দুঃখ প্রকাশ