artk
রোববার, জুন ২১, ২০১৫ ৮:১৫

সাকার আপিল শুনানি অব্যাহত

media

ঢাকা: মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় ট্রাইব্যুনালের দেওয়া মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর মামলার আপিল শুনানি অব্যাহত আছে।

রোববার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ সাকার মামলা শুনানি গ্রহণ করে পরবর্তী তারিখ ধার্য না করেই আদালত থেকে উঠে যান। এ মামলার আপিল শুনানি পরবর্তী কার্যতালিকায় এলে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর পক্ষে আদালতে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট এএসএম শাহজাহান। তিনি তৃতীয় দিনের শুনানিতে মামলায় প্রসিকিউশনের পক্ষে আনা সাক্ষীর জবানবন্দি ও সাকার বিরুদ্ধে আনা তৃতীয় অভিযোগ পাঠ করেন। এ সময় রাষ্ট্রপক্ষে উপস্থিত ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

২০১৩ সালের ২৯ অক্টোবর মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী মামলায় খালাস চেয়ে আপিল করেন। আপিল আবেদনে মোট এক হাজার তিনশ ২৩ পৃষ্ঠার নথিপত্রে বিভিন্ন ডকুমেন্টসহ ২৭টি গ্রাউন্ড রয়েছে। যার আপিল নম্বর ১২২/১৩।

২০১৪ সালের ১ অক্টোবর ট্রাইব্যুনাল চেয়ারম্যান বিচারপতি এটিএম ফজলে কবীরের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে মৃত্যুদণ্ডের রায় ঘোষণা করেন। রায়ে তার বিরুদ্ধে আনা ২৩টি অভিযোগের মধ্যে নয়টি অভিযোগের প্রমাণ হয়।

বাকি ১৪টি প্রমাণ করতে পারনি প্রসিকিউশন। প্রমাণিত অভিযোগগুলো হলো-২, ৩, ৪, ৫, ৬, ৭, ৮, ১৭ ও ১৮ নম্বর। এর মধ্যে ৩, ৫, ৬ ও ৮ নম্বর অভিযোগে তাকে ফাঁসির জন্য মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। আর ২, ৪, ৭ অভিযোগে ২০ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এছাড়া ১৭ এবং ১৮ নম্বর অভিযোগে পাঁচ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

রায়ে বলা হয়, আসামি সাকা চৌধুরী তার ও তার পক্ষে দেওয়া সাফাই সাক্ষ্যে ৭১ সালের ২৯ মার্চ থেকে ১৯৭৪ সাল পর্যন্ত দেশে না থাকার যে সাক্ষ্য দিয়েছে, তা প্রমাণিত হয়নি। পক্ষান্তরে প্রসিকিউশনের দেওয়া সাক্ষ্য ও ডকুমেন্টে প্রমাণিত হয়েছে, একাত্তরে সাকা চৌধুরী দেশে ছিলেন এবং চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় পাকবাহিনীর সহযোগী হিসেবে মানবতবাবিরোধী বিভিন্ন অপরাধ করেছেন। যা প্রসিকিউশন সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে পেরেছে।

মানবতাবিরোধী অপরাধের ২০১১ সালের ১৪ নভেম্বর সাকা চৌধুরীর বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিল করেন প্রসিকিউশন। ওই বছরের ১৮ নভেম্বর তার বিরুদ্ধে এ আনুষ্ঠানিক অভিযোগ আমলে নেন  ট্রাইব্যুনাল। এরপর ২০১২ সালের ৪ এপ্রিল তার বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট ২৩টি অভিযোগে চার্জ গঠন করা হয়।

সাকা চৌধুরীর বিরুদ্ধে গত বছরের ১৪ মে থেকে এ বছর ১৩ জুন পর্যন্ত প্রসিকিউশনের সাক্ষ্যগ্রহণ ও আসামিপক্ষের জেরা সম্পন্ন হয়। তার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিয়েছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা (আইও) মো. নূরুল ইসলাম।

ঘটনা ও জব্দ তালিকার সাক্ষ্য মিলিয়ে প্রসিকিউশনের মোট ৪১ জন সাক্ষী রয়েছে। চারজন সাক্ষীর আইওর কাছে দেওয়া জবানবন্দিকেই সাক্ষ্য হিসেবে গ্রহণ করা হয়েছে।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এটিএস/কেজেএইচ

যুক্তরাষ্ট্রকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিল হুয়াওয়ে ‘ভারত বুঝুক, হারের পর সামনে এসে উল্লাস করলে কেমন লাগে’ মৎস্য কর্মকর্তা লাঞ্ছিত, উপজেলা চেয়ারম্যান বরখাস্ত নারায়ণগঞ্জে শিশুসহ একই পরিবারের দগ্ধ ৮ নায়ক মান্না চলে যাওয়ার ১ যুগ করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ১০০ জন বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ২ মেডিক্যাল শিক্ষার্থী নিহত ইঁদুরেই খেয়েছে ১ লাখ মেট্রিক টন ফসল করোনাভাইরাস আতঙ্কে সিঙ্গাপুরফেরত স্বামীকে রেখে পালালেন স্ত্রী ঘুষের অভিযোগ থেকে সিনহাকে অব্যাহতি কোভিড ১৯: এবার তাইওয়ানে প্রথম মৃত্যু ভোটাররা দেরিতে ঘুম থেকে উঠায় ভোট হবে ৯টায়: ইসি সচিব এই সেলফি তোলার পরেই ট্রেনের ধাক্কায় স্কুলছাত্রের মৃত্যু করোনাভাইরাস: প্রযুক্তিই চীনের শেষ ভরসা সঞ্চয়পত্রে নয়, সুদ কমেছে ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের: অর্থ মন্ত্রণালয় বিশ্বকাপজয়ী ৬ ক্রিকেটার নিয়ে বিসিবি একাদশ ঘোষণা সিরাজগঞ্জে বাস খাদে পড়ে নিহত ৩ চট্টগ্রাম, বগুড়া ও যশোর সিটিতে ভোট ২৯ মার্চ করোনাভাইরাস শনাক্তে বাংলাদেশকে উন্নত কিটস দেবে চীন একত্রে কাজ করবে ডিএসই ও সিএসই বিশ্রামে রিয়াদ, ফিরলেন তাসকিন-মোস্তাফিজ করের বকেয়া অর্থ না দেয়াও দুর্নীতি: দুদক চেয়ারম্যান দক্ষদের নিয়োগ দিচ্ছে টেসলা, ডিগ্রি না হলেও চলবে খালেদা জিয়ার প্যারোল আবেদন সরকার পায়নি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চিকেন পক্স হলে কী খাবেন বাংলা তারিখ ব্যবহারে নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট কারিগরি শিক্ষার্থীদের বেশি গুরুত্ব দেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ডিএসইএক্সের সেরা দ্বিতীয় উত্থান মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তৃতীয় মেয়াদে শপথ নিলেন কেজরিওয়াল ফিটনেস ও নিবন্ধনহীন গাড়ি বন্ধে সব জেলায় টাস্কফোর্স গঠনের নির্দেশ