artk
মঙ্গলবার, জুন ১৬, ২০১৫ ৯:৪৯

গুছিয়ে উঠতে হিমশিম খাচ্ছে বিএনপি

media

ঢাকা: লাগাতার আন্দোলন থেকে সরে আসার পর পুনরায় আন্দোলন শুরু করার ক্ষেত্র প্রস্তুত করতে হিমশিম খাচ্ছে বিএনপি।

চলতি বছরের ৫ জানুয়ারি থেকে লাগাতার অবরোধ কর্মসূচি পালন করে বিএনপি। সরকারের কঠোর অবস্থান, কৌশল আর আন্দোলনে দলীয় নেতাকর্মীদের অংশগ্রহন না থাকায় পিছু হঠতে বাধ্য হন তিন মাস ধরে কার্যালয়ে অবরুদ্ধ জীবন যাপন করা বিএনপির হাইকমান্ড। ঢাকা ও চট্টগ্রামের তিন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশগ্রহণের ঘোষণা দিয়ে পরোক্ষভাবে আন্দোলন থেকে সরে আসে বিএনপি। যদিও সিটি নির্বাচন বয়কট করে দলটি।

লাগাতার আন্দোলন থেকে বিএনপির সরে আসার দুই মাস পেরিয়ে গেছে। আসন্ন ঈদের আগে রাজপথের কোনো কর্মসূচি নেই দলটির। খুব তাড়াতাড়ি দল গুছিয়ে কর্মপদ্ধতি নির্ধারণের কথা থাকলেও তা স্তব্ধ হয়ে রয়েছে। এ অবস্থায় পরবর্তী দু’বার বড় ধরনের আন্দোলন করতে গিয়ে দলটি তার সাংগঠনিক বড় ধরনের শক্তি ক্ষয় করে ফেলেছে। তাই পরর্বতী আন্দোলনে যাওয়ার আগে খুব তাড়াতাড়ি দল গোছানোর সিদ্ধান্ত নেয় বিএনপি। বিএনপি চেয়ারপারসনও সংবাদর্কমীদের বলেছেন, দল গোছানোর প্রক্রিয় চলছে। যোগ্যদের যোগ্য স্থান দেওয়া হবে।

নেতাকর্মীরা বলেছেন, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের দাবিতে আন্দোলন করতে গিয়ে ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলের কেন্দ্রীয় কমিটির গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের নামে একাধিক মামলা হয়েছে। এসব মামলায় দলটির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবসহ দলের স্থায়ী কমিটির কয়েকজন নেতা এখনো কারাগারে রয়েছেন। পাশাপাশি দলটির সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলোর নেতাদের নামে একাধিক মামলা হয়েছে। ফলে এসব সংগঠনগুলোর প্রধান নেতারা দলের কোনো কর্মসূচিতে অংশ নিতে পারছেন না। তারা গ্রেফতার এড়াতে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। এই অবস্থার মধ্যে তারাও সংগঠনের দিকে নজর দিতে পারছেন না। প্রকাশ্যে সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করতে পারছেন না। যার প্রভাব পড়ছে কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত।

এছাড়া দলটির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলোকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী ও গতিশীল করার ক্ষেত্রেও দেখা দিয়েছে জটিলতা। কোনোভাবেই সক্রিয় করা যাচ্ছে না ঢাকা মহানগর বিএনপি, যুবদল, শ্রমিকদল, মহিলা দল, কৃষকদল, ছাত্রদল, ওলামাদলসহ দলটির অন্যান্য সংগঠনগুলোকে। ফলে বিএনপির প্রতিটি স্তরে এখন চলছে এক ধরণের সংকট, অস্থিরতা ও নীরবতা।

নির্দেশনার জন্য সারাদেশের নেতাকর্মী বিশেষ করে তৃণমূল নেতাকর্মীরা তাকিয়ে আছেন হাইকমান্ডের দিকে। কিন্তু দলের বর্তমান নাজুক সাংগঠনিক কাঠামো পুনর্নির্মাণ করে নতুন কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নে হিমশিম খাচ্ছেন বিএনপির হাইকমান্ড। এতে নেতাকর্মীদের মধ্যে হতাশা বেড়েই চলেছে।

দীর্ঘদিন দলের স্থায়ী কমিটির এবং ২০ দলীয় জোটের কোন বৈঠক হয়নি। কবে হবে তাও কেউ জানেন না। হাই কমান্ডের সাথে বৈঠক না হওয়ায় দলের পরবর্তী পদক্ষেপ কী হবে তা নিয়ে অন্ধকারে রয়েছেন দলের সিনিয়র নেতারা।

অপরদিকে, নেতাকর্মীদের নামে মামলা, জেলে থাকা, নিষ্ক্রিয়তা, নয়াপল্টন ও গুলশান কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের আনাগোনা না থাকা, সিনিয়র নেতাদের ফোনালাপ ফাঁস, অভ্যন্তরীণ আস্থার অভাব, জামায়াত ছাড়ার নানামুখী চাপ বাড়ছে বিএনপিতে। এ অবস্থায় চতুর্মুখী চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছেন বিএনপির হাই কমান্ড।

পথ খুঁজে পাচ্ছে না বিএনপি
আপাতত কঠোর আন্দোলনে যাচ্ছে না বিএনপি। কঠোর আন্দোলনে না গিয়ে দল পুনর্গঠন, নেতাকর্মীদের জামিন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মনোভাব বিশ্লেষণ ও তাদের সাথে সম্পর্কোন্নয়নে সময় ব্যয় করবে দলটি। তবে এসবের পাশাপাশি নেতাকর্মীদের চাঙ্গা রাখতে প্যাকেজ কর্মসূচি হাতে নেওয়া হবে। এর মধ্যে ঢাকা ও ঢাকার বাইরে সমাবেশ করার পরিকল্পনা রয়েছে। সেই সমাবেশে বিএনপি চেয়ারপারসন উপস্থিত থাকবেন। এছাড়া রোজার মাস জুড়ে ইফতার পার্টির মাধ্যমে সাংগঠনিক কার্যক্রম এগিয়ে নিতে কাজ করবে দলটি। কবে নাগাদ দলটি আন্দোলনে যাবে তার কোন নিশ্চয়তা নেই। দলের সিনিয়র নেতারা বলছেন, দিনক্ষণ ঠিক করে আন্দোলন হয় না। আমরা এখন দল পুনর্গঠন করছি। সময়মতো আন্দোলনে যাবে বিএনপি।

থমকে আছে দল গোছানোর কার্যক্রম
জানা গেছে, মির্জা ফখরুলসহ সিনিয়র নেতারা কারাগারে থাকায় থমকে গেছে পুনর্গঠন প্রক্রিয়া। তারা জামিনে বের না হওয়া পর্যন্ত নতুন করে বিএনপি ও এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কমিটি পুনর্গঠনের সম্ভাবনা কম।

দল পুনর্গঠন প্রসঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, দল পুনর্গঠনে ত্যাগী নেতা-কর্মীদের মূল্যায়ন করা হবে। গণমাধ্যমে যে যাই লিখুক না কেনো দল ঐক্যবদ্ধ আছে, সংগঠিত আছে। আমরা দল গোছাচ্ছি। তিন মাস আমি যখন অবরুদ্ধ ছিলাম, নেতা-কর্মীদের খোঁজ রেখেছি। যারা আন্দোলন-সংগ্রামে সক্রিয় ছিলো, দলের প্রতি নিবেদিত, যারা দলের সঙ্গে বেঈমানি করেনি, অবশ্যই আমরা তাদের সম্মানিত করব।

নেতাকর্মী শূন্য নয়াপল্টন কার্যালয়
তিন সিটি নির্বাচনে অংশগ্রহণের ঘোষণা দেওয়ার পর গত ৫ এপ্রিল বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আদালতে হাজির হয়ে জামিন পান, বিনা বাধায় নিজের বাসভবনেও ফিরে যান তিনি। আইনশৃঙ্খলাবাহিনী কোন বাধা না দেওয়ায় তালা ভেঙে ৩ মাস পর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে প্রবেশ করে বিএনপি নেতাকর্মীরা। এখনো কার্যালয় খোলাই আছে, তবে নেতাকর্মীদের আনাগোনা নেই আগের মতো।

নয়াপল্টন কার্যালয়ের এক অফিস কর্মী জানান, কার্যালয়ের প্রতিদিনের চিত্র এমনই। ব্রিফিং থাকলে মিডিয়ায় চেহারা দেখানোর জন্য কিছু নেতাকর্মী আসেন, শেষ হলেই চলে যান। আগে যে একটা সরগরম পরিবেশ ছিলো, সারাদিন নেতাকর্মীদের আনাগোনা ছিলো, এখন তা আর নেই। কোন দরকার থাকলে নেতাকর্মীরা আসেন, আবার চলে যান।

কার্যালয়ের সামনে দায়িত্বরত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সূত্র জানান, এপ্রিল মাসে কার্যালয় খোলার পর থেকে প্রতিদিন সকাল নয়টা থেকে রাত ৯টা/১০টা পর্যান্ত খোলা থাকে। নেতাকর্মীদের আসতে যেতে কোনো বাধা নেই।

তিনি জানান, আগের মতো এখন নেতাকর্মীদের আনাগোনা নেই। মাঝে মাঝে ছাত্রদল নেতাকর্মীরা আসেন। ব্রিফিং থাকলে কয়েকজন সিনিয়র নেতা ও কর্মী আসেন। ব্রিফিং শেষেই তারা চলে যান। নিজ তলার দোকানটি খোলা থাকে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপির সহদফতর সম্পাদক আসাদুল করিম শাহীন নিউজবাংলাদেশকে বলেন, “পার্টি অফিস কারা সরগরম করবে, অধিকাংশই তো জেলে। আর যারা সবসময় পার্টি অফিস গরম করে রাখতো তাদের মধ্যে অনেকেই চিরতরে হারিয়ে গেছেন। তবে খুব তাড়াতাড়ি পার্টি অফিস পূর্বে চেহারায় ফিরে আসবে।”

গুলশান কার্যালয়ের অবস্থা আরো খারাপ। সেখানে এখন নেতাকর্মীরা একেবারে যান না বললেই চলে।

নিউজবাংলাদেশ.কম/আরআর/এজে

যুক্তরাষ্ট্রকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিল হুয়াওয়ে ‘ভারত বুঝুক, হারের পর সামনে এসে উল্লাস করলে কেমন লাগে’ মৎস্য কর্মকর্তা লাঞ্ছিত, উপজেলা চেয়ারম্যান বরখাস্ত নারায়ণগঞ্জে শিশুসহ একই পরিবারের দগ্ধ ৮ নায়ক মান্না চলে যাওয়ার ১ যুগ করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ১০০ জন বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ২ মেডিক্যাল শিক্ষার্থী নিহত ইঁদুরেই খেয়েছে ১ লাখ মেট্রিক টন ফসল করোনাভাইরাস আতঙ্কে সিঙ্গাপুরফেরত স্বামীকে রেখে পালালেন স্ত্রী ঘুষের অভিযোগ থেকে সিনহাকে অব্যাহতি কোভিড ১৯: এবার তাইওয়ানে প্রথম মৃত্যু ভোটাররা দেরিতে ঘুম থেকে উঠায় ভোট হবে ৯টায়: ইসি সচিব এই সেলফি তোলার পরেই ট্রেনের ধাক্কায় স্কুলছাত্রের মৃত্যু করোনাভাইরাস: প্রযুক্তিই চীনের শেষ ভরসা সঞ্চয়পত্রে নয়, সুদ কমেছে ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের: অর্থ মন্ত্রণালয় বিশ্বকাপজয়ী ৬ ক্রিকেটার নিয়ে বিসিবি একাদশ ঘোষণা সিরাজগঞ্জে বাস খাদে পড়ে নিহত ৩ চট্টগ্রাম, বগুড়া ও যশোর সিটিতে ভোট ২৯ মার্চ করোনাভাইরাস শনাক্তে বাংলাদেশকে উন্নত কিটস দেবে চীন একত্রে কাজ করবে ডিএসই ও সিএসই বিশ্রামে রিয়াদ, ফিরলেন তাসকিন-মোস্তাফিজ করের বকেয়া অর্থ না দেয়াও দুর্নীতি: দুদক চেয়ারম্যান দক্ষদের নিয়োগ দিচ্ছে টেসলা, ডিগ্রি না হলেও চলবে খালেদা জিয়ার প্যারোল আবেদন সরকার পায়নি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চিকেন পক্স হলে কী খাবেন বাংলা তারিখ ব্যবহারে নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট কারিগরি শিক্ষার্থীদের বেশি গুরুত্ব দেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ডিএসইএক্সের সেরা দ্বিতীয় উত্থান মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তৃতীয় মেয়াদে শপথ নিলেন কেজরিওয়াল ফিটনেস ও নিবন্ধনহীন গাড়ি বন্ধে সব জেলায় টাস্কফোর্স গঠনের নির্দেশ