artk
শুক্রবার, মে ২২, ২০১৫ ৫:১৪

সাংসদের ইন্ধনে নিয়োগ বাণিজ্য!

media

দিনাজপুর: দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগ দেওয়াকে কেন্দ্র করে চলছে নিয়োগ বাণিজ্য। একের পর এক নিয়োগ বাণিজ্য হলেও এসব বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন ডিজির প্রতিনিধি। আর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান জানিয়েছেন, স্থানীয় সংসদ সদস্যের মনোনীত প্রার্থীকে নিয়োগ দিতে সামান্য অনিয়ম করা হয়েছে। আর সংসদ সদস্য সাংবাদিকদের নির্বাচনী বোর্ডে যাওয়ার এখতিয়ার নেই এবং নিয়োগ স্থগিত করার ক্ষমতা কারও নেই বলে চ্যালেঞ্জ করেছেন।

বৃহস্পতিবার দিনাজপুর সরকারি কলেজ অধ্যক্ষের কার্যালয়ে দিনাজপুর জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলার দাউদপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের প্রভাষক (পদার্থ বিজ্ঞান) পদে নিয়োগ পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। দুপুর দুটায় নিয়োগ পরীক্ষার সময় দেওয়া হলেও পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ৩ জনকে সঙ্গে নিয়ে মাইক্রোবাস ও একটি কারযোগে দাউদপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ ফজলুল হক, প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আশেরুল ইসলাম, গভর্নিং বডির সদস্য আল আলিমুল রাজী বিকেল সোয়া ৩ টার দিকে দিনাজপুর সরকারি কলেজে প্রবেশ করেন।

এর আগেই সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ আসে যে, নিয়োগ পরীক্ষায় যে ৩ জন অংশগ্রহণ করছে, তার মধ্যে ২ জন বৈধ এবং একজন অবৈধ। পাশাপাশি ওই পদে যারা আবেদন করেছেন তাদের পরীক্ষার বিষয়ে কোনো চিঠি দেওয়া হয়নি এবং নিজ লোকদের দিয়ে ভুয়া আবেদন করা হয়েছে। এই পদে দিনাজপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য শিবলী সাদিকের মনোনীত একজনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। এজন্য ওই প্রার্থীর কাছ থেকে সাড়ে ৭ লাখ টাকা নেওয়া হয়েছে। আর দিনাজপুর সরকারি কলেজে নিয়োগ পরীক্ষা বাবদ দেওয়া হবে মোটা অংকের ঘুষ। এর আগেও দাউদপুর ডিগ্রি কলেজে একই কায়দায় নিয়োগ পরীক্ষা হয়েছে এবং কর্তৃপক্ষের মনোনীত প্রার্থীকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে কজন সাংবাদিক দিনাজপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষের কার্যালয়ে প্রবেশ করে নিয়োগের বিষয়ে জানতে চান। এ সময় ওই পদে ১০টি আবেদনপত্র যাচাই করে দেখা যায়, একই নামে ২টি, একই মোবাইল নম্বর দিয়ে ২টি সহ ৬টি আবেদনপত্র ভুয়া। বাকি ৪টি আবেদনপত্রের মধ্যে ২ জনকে কোনো চিঠি দেওয়া হয়নি। আর প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষেরই লোকজনকে ভুয়া আবেদনকারী সাজিয়ে ৩ জনকে নিয়ে আসা হয়েছে। যাদের মধ্যে একজনকে তারা ওই পদে নিয়োগ দেবেন।

ওই পদে আবেদনকারী মাহফুজার রহমান মোবাইলফোনে জানান, নিয়োগ পরীক্ষার ব্যাপারে তাকে বুধবার সন্ধ্যায় মোবাইল ফোনে জানানো হয়েছে। কিন্তু যেহেতু তিনি ঢাকায় থাকেন, সেজন্য তার পক্ষে আসা সম্ভব হয়নি।

এই পদে রুবেল খন্দকার ও শরিফুল ইসলাম নামে দুটি আবেদনকারীর মোবাইল নম্বর (০১৭২২০৭৯৮৫৫) একই পাওয়া যায়। এই নম্বরে মোবাইল করলে জানানো হয়, তার বাড়ি রংপুরে তিনি কোনো আবেদন করেননি। তবে তিনি নাম প্রকাশ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

এদিকে ওইসব আবেদনপত্র যাচাইকালে শুরু হয় তদবির। দাউদপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষের মোবাইলের মাধ্যমে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন দিনাজপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের ওই পরীক্ষা স্থগিত না করার জন্য বলেন। এক পর্যায়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, নিয়োগ নির্বাচনী বোর্ডে সাংবাদিকদের যাওয়ার কোনো এখতিয়ার নেই এবং এই পরীক্ষা বন্ধ করারও কারও ক্ষমতা নেই বলে তিনি সাংবাদিকদের চ্যালেঞ্জ করেন।
 
পরে উপস্থিত সাংবাদিকরা নিয়োগ নির্বাচনী বোর্ডের ডিজির প্রতিনিধি ও দিনাজপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আবু বকর সিদ্দিককে বলেন, ইতোপূর্বেও এই বোর্ডে অবৈধভাবে শিক্ষক নিয়োগ হয়েছে। এই পরীক্ষাটিও অবৈধভাবে করা হবে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, আগে যদি কোনো অবৈধভাবে শিক্ষক নিয়োগ হয়ে থাকে আমার জানা নেই। তবে এই পরীক্ষাটি স্থগিত করা হবে এবং এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক পদে নিয়োগের সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে নিয়ে বৈধতা যাচাই করা হবে।

বিকেল ৫ টার দিকে নিয়োগ নির্বাচনী বোর্ডের সভাপতি ও দাউদপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আশেরুল ইসলাম, ডিজির প্রতিনিধি ও দিনাজপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আবু বকর সিদ্দিক, বিষয় বিশেষজ্ঞ দিনাজপুর সরকারি কলেজের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাহাদত হোসেন, গভর্নিং বডির সদস্য আল আলিমুল রাজী ও সদস্য সচিব দাউদপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ ফজলুল হককের স্বাক্ষর নিয়ে পরীক্ষাটি স্থগিত করা হয়।

দাউদপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ ফজলুল হক জানান, স্থানীয় সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক এই প্রতিষ্ঠানের সভাপতি। তার মনোনীত প্রার্থীকে নিয়োগ দিতেই সভাপতির নির্দেশে এটি করা হয়েছে। ওই প্রার্থীর কাছে টাকা লেনদেনের বিষয়ে তার জানা নেই বলে জানান তিনি।

দাউদপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আশেরুল ইসলাম জানান, সভাপতির নির্দেশে তিনি এই বোর্ডে এসেছেন। এ বিষয়ে তিনি কোনো কিছুই জানেন না।

নিউজবাংলাদেশ.কম/কেজেএইচ

শিল্প-কারখানার পাশে জলাধার থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী ব্যালটে ভোট চায় বিএনপি রাজধানীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কারখানার মালিকের মৃত্যু মানুষের মাধ্যমেই ছড়াচ্ছে চীনের রহস্যজনক ভাইরাস মৌলভীবাজারে যুবককে কুপিয়ে হত্যা সাবেক প্রতিমন্ত্রী ইসমত আরা সাদেক আর নেই আবরার হত্যার চার্জ গঠন শুনানি ৩০ জানুয়ারি তাবিথের প্রচারণায় হামলা চীনের ভাইরাস ঠেকাতে শাহজালালে সর্বোচ্চ সতর্কতা শ্রীলংকায় গৃহযুদ্ধে নিখোঁজ সবাই নিহত: প্রেসিডেন্ট অভিশংসনের মামলায় ট্রাম্পের খালাস দাবি রাজধানীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত সমুদ্র পথে মালয়েশিয়াগামী ২৩ রোহিঙ্গা উদ্ধার বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের কাছে ৩ দফা রকেট হামলা রাজধানীতে পুলিশের মারধরের শিকার দুই সাংবাদিক মেয়েকে হত্যার দায়ে বাবা গ্রেপ্তার রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে আমরা সহায়তা দিতে প্রস্তুত: জাপানের রাষ্ট্রদূত চাঁদপুরে ৪ টি ইটভাটা গুড়িয়ে ৪৪ লাখ টাকা জরিমানা আদনান সামির নাগরিকত্ব নিয়ে প্রশ্ন রাজা মুরাদের স্কাউটরাই জাতির পিতার স্বপ্নের বাংলাদেশ বিনির্মাণে নেতৃত্ব দেবে: রাষ্ট্রপতি চীনে ভাইরাস: শাহজালাল বিমানবন্দরে বিশেষ সতর্কতা বিশ্বের প্রথম কৃত্রিম মানব ‘নিওন’ খান টোবকোর সত্বাধিকারী সহ ২ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট বাবার সাথে অভিমান কিশোরীর আত্মহত্যা ওয়েট অ্যান্ড সি: সাঈদ খোকনের ব্যাপারে দুদক চেয়ারম্যান আগামীতে আইসিসির সব আয়োজনে বিড করবে বাংলাদেশ: পাপন যশোরে ৯৪টি সোনার বারসহ ৩ যুবক আটক ১৯ সদস্যের প্রাথমিক টেস্ট দল ঘোষণা পাকিস্তানের পুঁজিবাজারে সূচক উত্থান ৯ মাসে যানজট নিরসন করতে দেখিনি, ৩ মাসে কি করবেন: আতিকুলকে তাবিথ