artk
শুক্রবার, অক্টোবার ১৮, ২০১৯ ১:২৮   |  ২,কার্তিক ১৪২৬
বৃহস্পতিবার, মে ২১, ২০১৫ ৯:০১

তামিলদের সঙ্গে সমঝোতা প্রতিষ্ঠায় নীতি বদলের ইঙ্গিত শ্রীলঙ্কার

media

সংখ্যালঘু তামিল জনগোষ্ঠীর সঙ্গে সমঝোতা প্রতিষ্ঠায় নীতি বদলের ইঙ্গিত দিয়েছেন শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা। তামিল টাইগার বাহিনীকে (এলটিটিই) গৃহযুদ্ধে পরাস্ত করার ষষ্ঠ বার্ষিকীতে রাখা প্রেসিডেন্টের বক্তব্যে এ ইঙ্গিত পাওয়া যায়। বিবিসি।

দিনটিকে ‘বিজয় দিবসের’ পরিবর্তে জাতিগত মৈত্রী পুনঃপ্রতিষ্ঠায় আগ্রহ দেখিয়ে ‘স্মরণ দিবস’ হিসেবে পালন উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে গত মঙ্গলবার বক্তব্য রাখেন  প্রেসিডেন্ট সিরিসেনা। বক্তব্যে তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘লড়াইটা যখন শেষ হয়, তখন আমরা সবাই খুশি ছিলাম। কিন্তু যুদ্ধ-পরবর্তী সময়ে যেসব ঘটনা ঘটেছে, তাতে কি আমরা খুশি হতে পারি? আমরা আমাদের জনগণের হৃদয় ও মন জয় করতে পারিনি। হৃদয় ও মন জয় করতে পারলেই শুধু প্রকৃত পুনর্মিত্রতা অর্জন করা সম্ভব হবে।’

বিবিসি জানায়, শ্রীলঙ্কার দীর্ঘ গৃহযুদ্ধকালীন সময়ের ঘটনাবলির সত্য প্রতিষ্ঠা এবং ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার কথাও বলেন গত জানুয়ারির নির্বাচনে বিজয়ী হওয়া সিরিসেনা।

উল্লেক্য, উত্তর-পূর্ব শ্রীলঙ্কার তামিল অধ্যুষিত এলাকাগুলো নিয়ে পৃথক দেশ প্রতিষ্ঠায় লড়াইরত এলটিটিইকে ২০০৯ সালের ১৮ মে চূড়ান্তভাবে পরাজিত করে শ্রীলঙ্কার সেনাবাহিনী। এরপর থেকে দিনটিকে ‘বিজয় দিবস’ হিসেবে পালন করে আসছিল দেশটি।

মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ) গত রোববারই একটি বিবৃতি দিয়ে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা তদন্তে শ্রীলঙ্কার নতুন সরকারের প্রতিশ্রুতি নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছিল। সাবেক প্রেসিডেন্ট জাতীয়তাবাদী মাহিন্দা রাজাপক্ষে গৃহযুদ্ধের শেষ পর্যায়ে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ ও সার্বিকভাবে তামিলদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ বরাবরই পাশ কাটিয়ে চলার চেষ্টা করেন।

কিন্তু সিরিসেনার বক্তব্যকে দেশটির নীতি বদলানোর ইঙ্গিত হিসেবেই দেখা হচ্ছে। সিরিসেনার প্রশাসন যে সত্যিই নীতি বদলের পথে হাঁটছে, তার আরেক ইঙ্গিত গৃহযুদ্ধে নিহত তামিলদের স্মরণে অনুষ্ঠান করতে দেওয়া।

নিহত বেসামরিক তামিলদের স্মরণে গত সোমবার একটি স্মরণ অনুষ্ঠান হয়। ২০০৯ সালে গৃহযুদ্ধের অবসান ঘটার পর এই প্রথম এ ধরনের অনুষ্ঠানের অনুমতি দেওয়া হলো।

জাতিসংঘের হিসেবে, শ্রীলঙ্কার গৃহযুদ্ধে ৮০ হাজার থেকে ১ লাখ লোকের প্রাণহানি ঘটে।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসজে

হাব সভাপতিকে ‘ধমক’ দিলেন ধর্ম সচিব স্পর্শকাতর জায়গা থেকে মোবাইল টাওয়ার সরানোর নির্দেশ ব্রেক্সিট চুক্তিকে ‘ক্ষতিকর’ বললেন টিউলিপ নতুন ব্রেক্সিট চুক্তি চূড়ান্ত: জনসন ছেঁড়া জিন্স পরে ট্রোলের শিকার সারা ইমরান খানের বিরুদ্ধে সাবেক স্ত্রী রেহাম খানের অভিযোগ যে কোনো মূল্যে পার্বত্য অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠা করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যাসিনো বাণিজ্য: কাউন্সিলর সাঈদকে অপসারণ পদ্মায় বিজিবি-বিএসএফ গোলাগুলি, বিএসএফ জওয়ান নিহত! জাতীয় লিগে লেগ স্পিনার না খেলানোয় দুই কোচকে বিসিবিতে তলব দুধের চেয়েও বেশি ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম সজিনা পাতায় ফারমার্স ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যানসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা ভারত সফরের জন্য টাইগারদের টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা আবাসিক হলে গাঁজা সেবন: ২ ছাত্রলীগ নেতা আটক বিদেশি শিল্পীর বিজ্ঞাপনে অতিরিক্ত কর দিতে হবে: তথ্যমন্ত্রী গ্রামীণফোনের ১২ হাজার কোটি টাকা আদায়ে নিষেধাজ্ঞা ২৪ ঘণ্টায় ২৪৮ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি পুঁজিবাজারের পতন রোধে বিক্ষোভে বিনিয়োগকারীরা আমি তো আসলে মরেই গিয়েছিলাম: ওবায়দুল কাদের কঠোরভাবে নিয়ম মানুন, ইউজিসিকে প্রধানমন্ত্রী গাড়ি নিবন্ধনে জালিয়াতি: মুসা বিন শমসেরের বিরুদ্ধে মামলা ট্রাম্পের চিঠি ‘ডাস্টবিনে ছুঁড়ে ফেলেছিলেন’ এরদোয়ান গণভবনে যাবেন না যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক! ঢাকা কলেজ ছেড়ে কুষ্টিয়া সরকারি কলেজে আবরারের ভাই পুঁজিবাজারে সব ধরনের সূচকে পতন পরীক্ষার হলে ঢুকে ২০ ছাত্রের চুল কেটে দিলেন মাদরাসা অধ্যক্ষ আনোয়ারায় অ্যাম্বুলেন্সের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত ২ প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ পেতে নন এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের অবস্থান যুদ্ধাপরাধ: রাজশাহীর টিপু সুলতানের রায় যে কোনো দিন আবরার হত্যার দায়ে ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করার দাবি আ স ম রবের