artk

স্টাফ রিপোর্টার

শনিবার, জানুয়ারি ২৫, ২০২০ ৮:৪৮

জনতাই আমাদের আগামী সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী: তাবিথ

media

শনিবার রাজধানীর মিরপুর, পল্লবী, ভাষানটেক ও মাটিকাটা এলাকায় নির্বাচনী জনসংযোগে তিনি এসব কথা বলেন।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়াল জনগনকে ভবিষ্যৎ সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী উল্লেখ করে বলেছেন, আর মাত্র সাত দিন। এই যাত্রায় আপনারাই হলেন আমাদের আগামী, আমাদের সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী।

শনিবার রাজধানীর মিরপুর, পল্লবী, ভাষানটেক ও মাটিকাটা এলাকায় নির্বাচনী জনসংযোগে তিনি এসব কথা বলেন।

তাবিথ উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে বলেন, যদি সবাই ঐক্য থাকেন, তাহলে আমাদের ভোট কেউ ছিনিয়ে নিতে পারবে না। মনে রাখবেন, আমাদের আবহাওয়া, আমাদের এলাকা, আমাদের উন্নয়ন, আমাদের দেশ-সবকিছু বদলে যেতে পারে। সে সম্ভাবনার জন্যই আপনারা ধানের শীষ প্রতীকে ভোট দেবেন।

দুপুরে পল্লবীতে এক পথসভায় রাজধানীবাসীকে ডেঙ্গু, পানি ও বায়ু দূষণে জনগণকে জীবন্ত মেরে ফেলার অভিযোগ করে তিনি বলেন একদিকে মশার জ্বালায় মশার ওষুধ কিনতে হচ্ছে, দূষণের জ্বালায় মাস্ক কিনতে হচ্ছে। দূষণে, ডেঙ্গুতে আমাদের জীবন্ত অবস্থায় মেরে ফেলা হচ্ছে। এ অবস্থার পরিবর্তন আনতেই হবে। পরিবর্তনের প্রতীক হচ্ছে ধানের শীষ।

তাবিথ আউয়াল আরও বলেন, দূষণ নিয়ন্ত্রণের জন্য উচ্চ আদালত রায় দিয়েছিল। আদালতের রায়ের পরপরই কিন্তু সিটি করপোরেশন কিছু পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করেছে। ভবিষ্যতে আমরা এমন মেয়র চাই যে আদালতের বা জনগণের দাবির অপেক্ষায় থাকব না। আমরা নিজের কাজ নিজের মন থেকে করব।

এর আগে বেলা ১১টায় মিরপুরের ৬ নম্বর সেকশন কাঁচাবাজারের পাশে পথসভার মাধ্যমে জনসংযোগ শুরু করেন তাবিথ আউয়াল। সেখানে তিনি বলেন, আমাদের মূল শক্তি হচ্ছে জনগণ। তারা আমাদের সঙ্গে আছেন। নির্বাচনী মাঠে আর কোনো অঘটন ঘটুক, তা চাই না। যত বাধা আসুক আমরা শৃঙ্খলা ভাঙবে না।

নির্বাচনী প্রচারণায় বিএনপির প্রার্থীদের ওপর হামলার বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের ভূমিকায় হতাশা প্রকাশ করেন তাবিথ আউয়াল। তিনি বলেন, দুঃখজনকভাবে বলতে হচ্ছে, নির্বাচন কমিশন যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করেননি। এ জন্য সামগ্রিকভাবে নির্বাচনে একটি নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। তারপরও আমাদের মনোবল শক্ত আছে, আমরা ইতিবাচক ভূমিকায় আছি। ভোটারদের মন এখন ১ ফেব্রুয়ারির দিকে। ভোটাররা কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারলে আমরা জয়লাভ করব।

এর পর মিরপুরের অনিক প্লাজার সামনে পথসভায় তাবিথ বলেন, ১ ফেব্রুয়ারি আপনারা ভোটের মাধ্যমে একটি রায়ই দিতে চান। তা হচ্ছে আর এক মুহূর্তও দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে বিনা অপরাধে কারাগারে রাখা যাবে না। তিনি বলেন, আমরা সবাই মুক্তি চাই। যেই দেশে জীবন্ত অবস্থায় মশার কামড়ে মারা যাই, দূষণে মারা যাই, সেই দেশে ব্যাপক পরিবর্তনের দাবি আপনারাই দিয়েছেন। এখন আপনারাই সেটা বাস্তবায়ন করার জন্য তাবিথ আউয়ালকে ধানের শীষে, সাজ্জাদ হোসেনকে ঘুড়ি ও মেহেরেন্নেছা হককে আনারস প্রতীকে ভোট দেবেন।

মাটিকাটায় তাবিথ আউয়াল বলেন, যে এলাকার বাজারেই যাই, দেখি দ্রব্যমূল্য অসহনীয় পর্যায়ে। এলাকায় শিশু ও মা-বোনেরা রাতে নির্ভয়ে চলাচল করতে পারেন না। তাদের নিরাপত্তার যথেষ্ট অভাব রয়েছে। বর্জ্য ব্যবস্থাপনা খুবই করুন, খেলার মাঠ নেই, বাতাস দূষিত। তিনি বলেন, দূষণ মুক্ত পরিবেশ তৈরির জন্য আদালত রায় দিয়েছে। যারা অতীতে দায়িত্বে ছিলেন, তারা আদালতের রায় মানেননি। জনগণের দাবিও তারা পূরণ করেননি। দায়িত্ব দিলে আমরা এ সব দাবি বাস্তবায়নের চেষ্টা করব।

এরপর তাবিথ আউয়াল ইসিবি চত্বরে, ভাষানটেক পকেট গেট, ভাষানটেক কাঁচাবাজার, মানিকদী মাঠের মোড়, বালুরঘাটে, আজিজ মার্কেটে, হাজী মার্কেটে ও আলাউদ্দিনটেকে পথসভা ও গণসংযোগ করেন। এ সময় জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার আমিনুল ইসলাম, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির দপ্তর সম্পাদক এবিএম রাজ্জাক, যুবদল উত্তরের সাধারণ সম্পাদক সফিকুল ইসলাম, জিয়া পরিষদের মহাসচিব এমতাজ হোসেনসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সব শেষে মিরপুর ১৪ নম্বরে পথসভা করেন তাবিথ আউয়াল। সেখানে এলডিপির সাধারণ সম্পাদক শাহাদত হোসেন সেলিম ও বিএনপির নেতা শাহিদা আক্তার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্রকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিল হুয়াওয়ে ‘ভারত বুঝুক, হারের পর সামনে এসে উল্লাস করলে কেমন লাগে’ মৎস্য কর্মকর্তা লাঞ্ছিত, উপজেলা চেয়ারম্যান বরখাস্ত নারায়ণগঞ্জে শিশুসহ একই পরিবারের দগ্ধ ৮ নায়ক মান্না চলে যাওয়ার ১ যুগ করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ১০০ জন বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ২ মেডিক্যাল শিক্ষার্থী নিহত ইঁদুরেই খেয়েছে ১ লাখ মেট্রিক টন ফসল করোনাভাইরাস আতঙ্কে সিঙ্গাপুরফেরত স্বামীকে রেখে পালালেন স্ত্রী ঘুষের অভিযোগ থেকে সিনহাকে অব্যাহতি কোভিড ১৯: এবার তাইওয়ানে প্রথম মৃত্যু ভোটাররা দেরিতে ঘুম থেকে উঠায় ভোট হবে ৯টায়: ইসি সচিব এই সেলফি তোলার পরেই ট্রেনের ধাক্কায় স্কুলছাত্রের মৃত্যু করোনাভাইরাস: প্রযুক্তিই চীনের শেষ ভরসা সঞ্চয়পত্রে নয়, সুদ কমেছে ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের: অর্থ মন্ত্রণালয় বিশ্বকাপজয়ী ৬ ক্রিকেটার নিয়ে বিসিবি একাদশ ঘোষণা সিরাজগঞ্জে বাস খাদে পড়ে নিহত ৩ চট্টগ্রাম, বগুড়া ও যশোর সিটিতে ভোট ২৯ মার্চ করোনাভাইরাস শনাক্তে বাংলাদেশকে উন্নত কিটস দেবে চীন একত্রে কাজ করবে ডিএসই ও সিএসই বিশ্রামে রিয়াদ, ফিরলেন তাসকিন-মোস্তাফিজ করের বকেয়া অর্থ না দেয়াও দুর্নীতি: দুদক চেয়ারম্যান দক্ষদের নিয়োগ দিচ্ছে টেসলা, ডিগ্রি না হলেও চলবে খালেদা জিয়ার প্যারোল আবেদন সরকার পায়নি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চিকেন পক্স হলে কী খাবেন বাংলা তারিখ ব্যবহারে নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট কারিগরি শিক্ষার্থীদের বেশি গুরুত্ব দেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ডিএসইএক্সের সেরা দ্বিতীয় উত্থান মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তৃতীয় মেয়াদে শপথ নিলেন কেজরিওয়াল ফিটনেস ও নিবন্ধনহীন গাড়ি বন্ধে সব জেলায় টাস্কফোর্স গঠনের নির্দেশ