artk

স্টাফ রিপোর্টার

শুক্রবার, ডিসেম্বার ১৩, ২০১৯ ৬:২০

শাজাহান খানের সম্পত্তির খোঁজ নেয়া উচিৎ: নিক্সন চৌধুরী

media

তিনি বলেছেন, ‘শাজাহান খানকে আমি আওয়ামী লীগ নেতা মনেই করি না। আমি এখনও উনাকে জাসদ নেতাই মনে করি। আমাকে ফরিদপুর-৪ আসনের জনগণ বড় স্বপ্ন নিয়ে ভোট দিয়েছে। তাদের নিরাপত্তা সব কিছু দেখব বলেই আমাকে ভোট দিয়েছে।’

আবারও সাবেক নৌমন্ত্রী ও সরকার দলীয় সংসদ সদস্য শাজাহান খানকে নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা করলেন মজিবুর রহমান নিক্সন চৌধুরী।

তিনি বলেছেন, ‘শাজাহান খানকে আমি আওয়ামী লীগ নেতা মনেই করি না। আমি এখনও উনাকে জাসদ নেতাই মনে করি। আমাকে ফরিদপুর-৪ আসনের জনগণ বড় স্বপ্ন নিয়ে ভোট দিয়েছে। তাদের নিরাপত্তা সব কিছু দেখব বলেই আমাকে ভোট দিয়েছে।’

বৃহস্পতিবার রাতে বেসরকারি টিভি চ্যানেল ‘ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশন’র এক আলোচনা অনুষ্ঠানে এ সব কথা বলেন ফরিদপুর-৪ আসনের এই সংসদ সদস্য।

শাজাহান খান জাসদের জন্য নিজের বাবার বিরুদ্ধে নির্বাচনী প্রচারণা করেছেন উল্লেখ করে মজিবুর রহমান নিক্সন চৌধুরী বলেন, ‘উনার নির্বাচনী এলাকায় যখন জননেত্রী শেখ হাসিনা এক জনকে মনোনীত করলেন, তখন উনি আপন ভাইকে স্বতন্ত্র দাঁড় করিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান করে নিয়ে আসলেন। তখন কি উনার নৌকার জন্য দরদ ছিল না? আসলে উনার রাজনৈতিক ব্যাপারে শুধু আমি ভিকটিম না, সারা বাংলাদেশের মানুষ ভিকটিম।’

তিনি আরও বলেন, ‘শাজাহান খানের শরীর থেকে এখনও জাসদের গন্ধ যায়নি। উনি গণবাহিনী করতেন। আমি চ্যালেঞ্জ করলাম উনি গণবাহিনী করতেন। বইয়ে লেখা আছে উনি গণবাহিনীর কমান্ডার ছিলেন। আমি একজন স্বাধীনতা বিরোধী ব্যক্তির বিপক্ষে ইলেকশন করেছি। দুই দুইবার জনগণ রায় দিয়েছে স্বাধীনতার বিরোধীর বিপক্ষে। আমার পক্ষে রায় দিয়েছে।’

সাবেক নৌমন্ত্রীর সম্পদ যাচাই করে দেখার কথা উল্লেখ করে নিক্সন চৌধুরী বলেন, ‘মাদারীপুরে তিনি ১০ তলা বিল্ডিং বানিয়েছেন অনুমতি ছাড়া। আজকে নৌমন্ত্রী হওয়ার পর উনার চাচার ঘরের দাদা কোটি কোটি টাকার মালিক। আজকে ‘সার্বিক’ বাসের মালিক তারা। পেট্রোল পাম্পের মালিক। তার ১০ বছর আগে কিছু ছিল না। আজকে তার সম্পত্তি কি হয়েছে! বিদেশে হসপিটাল বানাচ্ছে কোটি কোটি টাকা দিয়ে। আমার তো মনে হয় তার সম্পত্তি ১০ বছর আগে কি ছিল, এখন কি হয়েছে সেটার খোঁজ নেয়া উচিৎ।’

রাজনৈতিক অঙ্গীকার থাকলেই দেশের উন্নয়ন সম্ভব: প্রধানমন্ত্রী সুন্দর ও সুশাসিত ঢাকা গড়ার প্রতিশ্রুতি তাপসের সিটি নির্বাচনে ৬৭ বিদেশি পর্যবেক্ষক কুয়াশায় ঢাকা রাজধানী বনের ভেতর কাঠকয়লা তৈরির কারখানা এসএসসির প্রবেশপত্র আটকিয়ে টাকা আদায়ের অভিযোগ অনিয়মের দায়ে যশোর শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান ওএসডি রাজনীতিতে নামছেন বঙ্গবন্ধু পরিবারের আরেক সদস্য দিনাজপুরে সড়কে প্রাণ গেলো ৩ যুবকের করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ১৩২ ঢাবির ৬৭ শিক্ষার্থীকে স্থায়ী বহিষ্কার আমাদের গ্যাস আমরা জনকল্যাণে ব্যবহার করব: প্রধানমন্ত্রী কমলায় বিপ্লব: স্কুল প্রতিষ্ঠা করে পদ্মশ্রী বিজয় সিজিসির সংযোজন ও সংশোধন অনুমোদন ঢাকার ২ সিটি নির্বাচন: শুক্রবার থেকে ঢাকায় যান চলাচল বন্ধ শর্ত না মানায় কন্টিনেন্টাল ইনস্যুরেন্সকে সতর্ক সব জেলাকে রেল নেটওয়ার্কের আওতায় আনতে নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর রিজেন্ট টেক্সটাইলের প্রত্যেক পরিচালককে ২ লাখ টাকা করে জরিমানা আমান ফিডের প্রত্যেক পরিচালককে ২৫ লাখ টাকা করে জরিমানা কক্সবাজারকে ব্যয়বহুল শহর হিসেবে ঘোষণা সোলেইমানি হত্যার নীল নকশাকারী ডি আন্দ্রিয়া বিমান দুর্ঘটনায় নিহত পুঁজিবাজারে সূচকের উত্থান কার্ডের স্বল্পতার কারণে ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রিন্ট হচ্ছে না: কাদের এসএমএসে জানা যাবে ভোটার নম্বর ও ভোটকেন্দ্র এবি ব্যাংকের অর্থ আত্মসাৎ, ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা মেট্রোরেল উদ্বোধন ২০২১ সালের ১৬ ডিসেম্বর ঝিনাইদহ পলিটেকনিকের দুই শিক্ষার্থীর কৃষিভিত্তিক রোবট পাহাড়তলীতে বাস উল্টে নারীসহ নিহত ২ আহাদুজ্জামান আলীর নক্ষত্র নিভে যায় পদ ছাড়লেন আবদুল্লাহ, কাতারের নতুন প্রধানমন্ত্রী খালিদ