artk

স্টাফ রিপোর্টার

রোববার, ডিসেম্বার ৮, ২০১৯ ১:২৭

রুম্পার বন্ধু সৈকতকে রিমান্ডে চায় পুলিশ

media

স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ছাত্রী পুলিশকন্যা রুবাইয়াত শারমিন রুম্পার মৃত্যুর ঘটনায় তার বন্ধু আব্দুর রহমান সৈকতকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে চাইছে পুলিশ।

রুম্পার মৃত্যুর তিন দিন পর শনিবার সন্ধ্যায় আটক করা সৈকতকে রোববার হত্যামামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে ঢাকার আদালতে পাঠানো হচ্ছে। 

গোয়েন্দা পুলিশের ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিভাগের উপ-কমিশনার রাজিব আল মাসুদ বলেন, “সৈকতকে সাতদিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হবে।”

বুধবার রাতে ঢাকার সিদ্ধেশ্বরীর একটি গলিতে রুম্পার লাশ পাওয়ার পর তার মৃত্যু রহস্যজনক মনে হওয়ায় রমনা থানার এসআই আবুল খায়ের অজ্ঞাতপরিচয় আসামিদের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

তখনও রুম্পার পরিচয় জানা যায়নি। পরদিন শনাক্ত হয় যে রুম্পা হবিগঞ্জে কর্মরত পুলিশ পরিদর্শক রোকনউদ্দিনের মেয়ে, তিনি পড়তেন স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটিতে, থাকতেন মা-ভাইসহ মালিবাগে।

রুম্পার লাশ শনাক্ত হওয়ার পর স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা একে হত্যাকাণ্ড দাবি করে তার বিচারের দাবিতে সড়কে নামে। তাদের মুখে আসে সৈকতের নাম। রুম্পার এক বান্ধবী বলেন, “আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজের বিবিএর ছাত্র সৈকত রুম্পার সাবেক প্রেমিক।”

তারপর শনিবার সন্ধ্যার পর খিলগাঁও এলাকা থেকে সৈকতকে আটক করে পুলিশ।

তবে রুম্পার মৃত্যুর বিষয়টি এখনও রহস্যময় গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের কাছে।

লাশ পাওয়ার পর ধারণা করা হচ্ছিল, আশপাশের উঁচু কোনো ভবন থেকে পড়ে রুম্পার মৃত্যু হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনেও সেই ইঙ্গিতই রয়েছে। কিন্তু আশপাশের ভবনগুলোর বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলে প্রামাণ্য কিছু পায়নি পুলিশ। 

তদন্তের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, “যে তিনটি ভবনের মাঝে রুম্পার মৃতদেহ পাওয়া গেছে, সেখানকার একটি ভবনের প্রবেশমুখে ৬ টা ২৭ মিনিটে রুম্পার শারীরিক গঠনের মতো একজনকে ঢুকতে দেখা গেছে। কিছুটা অস্পষ্ট ওই ছবি, ফলে সেটা রুম্পা কি না, তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।”

সৈকতকে হেফাজতে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে কিছু তথ্য পাওয়া যাবে বলে মনে করেন এই গোয়েন্দা কর্মকর্তা।

অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২ ফেব্রুয়ারি স্মার্ট ফোনের ধারণা বদলে দিতে আসছে ব্ল্যাক শার্ক থ্রি এসএসসি পরীক্ষার নতুন রুটিন প্রকাশ টাইগারদের জন্য পাকিস্তানে নিরাপত্তা ১০ হাজার পুলিশ কয়লার ব্যবহার থাকছে না জার্মানিতে এন্ড্রু কিশোরের চিকিৎসায় পূর্ণ সহায়তা দিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ বুধবার থেকে ই-পাসপোর্ট, মিলবে আগারগাঁও, উত্তরা ও যাত্রাবাড়ীতে মতিউর রহমানসহ ৬ জনকে গ্রেফতার ও হয়রানি না করার নির্দেশ সৌদি থেকে একদিনেই ফেরত ২২৪ বাংলাদেশি বাবার মৃত্যুর ৭ দিনের মাথায় বাসচাপায় নিহত ছেলে পরোয়ানার সঙ্গে গণমাধ্যমের স্বাধীনতার কোনো সম্পর্ক নেই: তথ্যমন্ত্রী ফরিদপুরে ঘুমন্ত মা-মেয়ের মৃত্যু আগুনে পুড়ে সৌদি ধনকুবেরের সঙ্গে রিয়ান্নার প্রণয়ের যবনিকা শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা নাগরিকত্ব আইন সংশোধনের প্রয়োজন ছিল না: শেখ হাসিনা নির্বাচন কমিশন একেবারেই ব্যর্থ ও অযোগ্য: মির্জা ফখরুল প্রথম আলো সম্পাদকসহ ৫ জনের জামিন আবেদন যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুকধারীর গুলিতে একই পরিবারের নিহত ৪ ইয়েমেনে হুতি বাহিনীর হামলায় সিহত ৬০ স্ত্রী-শাশুড়িসহ ৪ জনকে হত্যার পর আত্মহত্যা বন্ধের দিনে আদালতে নারীসহ ধরা খেলেন আইনজীবী ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা নিহত, ৬ কোটি টাকার ইয়াবা জব্দ জিম্বাবুয়েকে উড়িয়ে শুরু বাংলাদেশের যুব বিশ্বকাপ মঙ্গলবার থেকে আবারও শীত নামতে পারে পুতিন কে এবং তিনি কী চান? রাজকীয় উপাধি-প্রাসাদ ব্যবহার করবেন না হ্যারি ও মেগান আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে তুরাগতীরে মুসল্লিদের ঢল অস্টিওপরোসিস রোধ করে বাদাম ঢাকার দুই সিটির ভোট ১ ফেব্রুয়ারি এসএসসি পরীক্ষা শুরু ৩ ফেব্রুয়ারি: শিক্ষা মন্ত্রণালয়