artk
শনিবার, ডিসেম্বার ৭, ২০১৯ ৩:৫০   |  ২৩,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

নিউজ ডেস্ক

শনিবার, নভেম্বার ১৬, ২০১৯ ৭:০৮

বগুড়ায় জেল জরিমানার ভয়ে ৬ রুটে বাস চলাচল বন্ধ

media

‘সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮’ কার্যকর হলে জেল-জরিমানা গুণতে হবে এমন শঙ্কায় পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই বগুড়ার আভ্যন্তরীণ ও আন্তঃজেলার ৬টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন চালকরা।

‘সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮’ কার্যকর হলে জেল-জরিমানা গুণতে হবে এমন শঙ্কায় পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই বগুড়ার আভ্যন্তরীণ ও আন্তঃজেলার ৬টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন চালকরা।

শনিবার সকাল থেকে এ ঘটনায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা।

বাস চলাচল বন্ধ হওয়া রুটগুলো হলো- বগুড়া থেকে নওগাঁ, সান্তাহার, আক্কেলপুর, আবাদপুকুর, চাঁপাপুর, মোলামগাড়ি। একইসাথে বগুড়া-জয়পুরহাট ও বগুড়া-গাইবান্ধা রুটে বাস চলাচল সীমিত হয়ে পড়েছে। এই দুই রুটে বাস চলাচল সকালে বন্ধ থাকলেও দুপুরে কিছুটা স্বাভাবিক হয়।

এদিকে বাস চলাচল বন্ধ থাকায় যাত্রী দূর্ভোগের সুযোগ নিচ্ছে সিএনজি চালিত অটোরিকশা ও ব্যাটারি চালিত ইজিবাইক চালকরা। যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়ার জন্য অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে তারা।

বগুড়া সদর থানার ওসি এস এম বদিউজ্জমান জনান, দুপুর ২টার দিকে বগুড়া সদর থানা পুলিশ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে গিয়ে পরিবহন মালিক-শ্রমিক নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে চালকদের সঙ্গে বৈঠক করেন। সেখানে পুলিশের পক্ষ থেকে আশ্বাস দেওয়া হয় যে, যেসব চালক বিআরটিএ অফিসে হালনাগাদ করার জন্য কাগজপত্র জমা দিয়েছেন তাদের কোনো হয়রানি করা হবে না। পুলিশের এই আশ্বাসে চালকরা বাস চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

তবে তার এখনো কোনো বাস্তবচিত্র দেখা যায়নি।

বগুড়া মোটর যান মালিক গ্রুপের হিসাব অনুযায়ী আন্তঃজেলা ও আভ্যন্তরীণী রুটে প্রায় ৭০০ বাস চলাচল করে। তবে সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এসব বাসের প্রায় ৯০ শতাংশেরই ফিটনেস নেই। এমনকি চালকদেরও লাইসেন্স নবায়ন করা হয়নি।

পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত ১ নভেম্বর নতুন সড়ক আইন কার্যকর হলেও সরকারের পক্ষ থেকে দুই সপ্তাহ তা শিথিল রাখার ঘোষণা দেওয়া হয়। শুক্রবার সেই সময়সীমা পেরিয়ে যাওয়ায় যে কোনো সময় অভিযান চালানো হবে-এমন শঙ্কা থেকেই চালকরা বাস চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেন।

বগুড়া কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে বসে থাকা নওগাঁ-বগুড়া রুটের বাস চালক মোহাম্মদ সাগর জানান, কারও চাপে নয় বরং তারা স্বেচ্ছায় মালিকের কাছে চাবি জমা দিয়ে এসেছেন। কারণ নতুন আইনে তাদের পক্ষে বাস চালানো সম্ভব নয়। তার মতে, আইন তৈরির আগে মহাসড়কে সিএনজি অটোরিকশা চলাচল বন্ধসহ পুলিশের হয়রানি বন্ধ করা দরকার।

ওই একই রুটের অপর এক বাসের হেলপার রবিউল ইসলাম বলেন, সড়কে অনেক কারণেই দূর্ঘটনা ঘটে। কিন্তু নতুন আইন অনুযায়ী সব দোষ আমাদের নিতে হবে। আইন এত কঠোর করা হয়েছে যে তা আমাদের পক্ষে মানা সম্ভব নয়।

বাস চলাচল বন্ধ রাখার কারণে বগুড়া কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালের সামনে এখন সিএনজি চালিত অটোরিকশা ও ব্যাটারি চালিত ইজিবাইকের ভিড় বেড়েছে। যাত্রীদের কাছ থেকে বাসের তুলনায় দুইগুণ অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। সাধারণ যাত্রী আব্দুল কায়েম জানান, বগুড়া থেকে দুপচাঁচিয়ায় বাসের ভাড়া ৩০ টাকা। কিন্তু সিএনজি চালিত অটোরিকশায় ৫০ থেকে ৬০ টাকা নেওয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, ‘এখন আমাদের কোনো উপায় নেই। তারা যা চাবে তাই দিতে হবে।’

অবশ্য বগুড়া জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সামছুদ্দিন শেখ হেলাল সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, তাদেরকে না জানিয়েই কয়েকটি রুটে বাস চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। তার আশা দ্রুতই যান চলাচল আবার স্বাভাবিক হবে।

বগুড়া মোটর মালিক গ্রুপের সহ-সভাপতি তৌফিক হাসান ময়না জানান, মূলত চালকরা ভীত হয়েই বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়। তবে পুলিশের সঙ্গে বৈঠকের পর তারা আবারও বাস চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এসএ গেমসে নেপালকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ হৃৎদপিণ্ড বন্ধ হওয়ার ৬ ঘণ্টা পর বেঁচে উঠলেন এক নারী খালেদার মুক্তির দাবিতে রোববার বিএনপির বিক্ষোভ বাংলায়ও রায় লেখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পেট্রোবাংলা ভবনে অগ্নিকাণ্ড প্রবাসীর বাড়িতে ৩ লাশ ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ কাশ্মীরের হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট বাতিল অভিশংসনের দ্বারপ্রান্তে ট্রাম্প মুন্সিগঞ্জে লঞ্চের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ২০ বাংলাদেশের ১৭ জেলেকে ফেরত দিয়েছে মিয়ানমার বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির প্রস্তাব বাতিলের দাবিতে গণস্বাক্ষর শনিবার বাঁশখালীতে জেলের জালে বিশাল হোয়েল শার্ক! সিলেট আ.লীগের নেতৃত্ব হারালেন কামরান পৃথিবীর অনেক দেশের তুলনায় আমরা মেধাবী: তথ্যমন্ত্রী ধর্মঘটে অচল অবস্থা বিরাজ করছে ফ্রান্সে চট্টগ্রামে এবার থানায় বিক্রি হবে পেঁয়াজ ভারতের অবদান ছাড়া মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস অসম্পূর্ণ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী শিকাগোর অফিস-আদালতে বাংলা ভাষা! খালেদার স্বাস্থ্য বিষয়ে নিরপেক্ষ প্রতিবেদন নিয়ে ফখরুলের সংশয় ১৭ জেলেকে আটক করেছে মিয়ানমার উল্টোপথের বাসের চাকায় পিষ্ট পথচারী অবশেষে বিয়ের পিঁড়িতে মিথিলা-সৃজিত রুম্পার মৃত্যুর ধোঁয়াশা কাটেনি ১ জন ছাড়া অন্য যেকোনো পদে পরিবর্তন: কাদের আপিল বিভাগে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে সরকার: মন্ত্রী বীরত্বে পদক পাচ্ছেন ডিজিসহ বিজিবির ৬০ সদস্য আইএস এর সেই টুপি খুঁজে পাচ্ছে না পুলিশ নামাজ পড়লে সুস্থ থাকা যায়: মার্কিন গবেষণা মৌলভীবাজারে ৪শ একর জমিতে কমলার চাষ