artk
শনিবার, ডিসেম্বার ১৪, ২০১৯ ১০:৩৯   |  ৩০,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

খুলনা সংবাদদাতা

রোববার, নভেম্বার ১০, ২০১৯ ৪:৪৪

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডব: সাতক্ষীরায় ৫০ হাজার ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত

media

সাতক্ষীরার উপকূলীয় এলাকা ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে বিধ্বস্ত হয়েছে ৫০ হাজার ঘরবাড়ি। দিশেহারা হয়ে পড়েছে মানুষ। তবে রোববার দুপুর ১২টা পর্যন্ত জেলার কোথাও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

সাতক্ষীরার উপকূলীয় এলাকা ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে বিধ্বস্ত হয়েছে ৫০ হাজার ঘরবাড়ি। দিশেহারা হয়ে পড়েছে মানুষ। তবে রোববার দুপুর ১২টা পর্যন্ত জেলার কোথাও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

উপকূলীয় এলাকা শ্যামনগর উপজেলার গাবুরা, বুড়িগোয়ালিনী ও পদ্মপুকুর ইউনিয়নে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া জেলার বিভিন্ন অঞ্চলেও কমবেশি ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে।

শ্যামনগর উপজেলার গাবুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিএম মাসুদুল আলম বলেন, এলাকায় একটি ঘরবাড়িও নেই। এখানকার বেশিরভাগ ঘরবাড়িই হচ্ছে মাটির তৈরি। দুই একটি টিনের। মাটির তৈরি ঘরবাড়ি ও টিনের ঘরবাড়ি সব বিধ্বস্ত হয়েছে। আমার ইউনিয়নে পাঁচ হাজারেরও অধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। রাস্তাঘাটে গাছপালা পড়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। এলাকার মাছের ঘেরগুলো সব ভেসে গেছে।

একই উপজেলার বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ভবতোষ মন্ডল বলেন, ইউনিয়নের দুই হাজারেরও অধিক কাঁচা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। মাটির তৈরি কোনো ঘরবাড়িই ভালো নেই। রাস্তাঘাট বন্ধ হয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে গেছে। মাছের ঘেরগুলোও ভেসে গেছে।

অন্যদিকে আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু হেনা শাকিল জানান, হাজার হাজার ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। মানুষের থাকার জায়গাটুকুও অবশিষ্ট নেই। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

রোববার ভোররাত থেকে শুরু হওয়া প্রবল ঘূর্ণঝড়ে সাতক্ষীরা সদর, তালা, আশাশুনি ও শ্যামনগর উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সাতক্ষীরা জেলা কন্ট্রোল রুমের তত্ত্বাবধায়ক জেলা ডিআরআরও প্রশান্ত কুমার রায় জানান, জেলাব্যাপী ৫০ হাজার কাঁচা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। এর মধ্যে আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৩৩ হাজার ৬৬০টি ঘর। সম্পূর্ণরুপে বিধ্বস্ত হয়েছে ১৬ হাজার ৫৮০টি ঘরবাড়ি। এছাড়া জেলার কোথাও কোনো হাতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

 

২ সপ্তাহ পর বেনাপোল দিয়ে কাঁচামাল ঢুকছে বাংলাদেশে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিসকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ প্রমাণিত সু চির নেদারল্যান্ডস পার্লামেন্ট সফর বাতিল বিজয় দিবসে নিয়ন্ত্রিত থাকবে রাজধানীর সেসব সড়ক ভারতের নাগরিকত্ব আইন উপমহাদেশে সংঘাত সৃষ্টি করবে: ফখরুল বাংলাদেশের বাজারে আসুসের ডুয়াল স্ক্রিন ল্যাপটপ রাজাকারের তালিকার প্রথম পর্ব প্রকাশ রোববার সাভারে অস্ত্র-গুলিসহ ইউপি সদস্য আটক কেরানীগঞ্জে প্লাস্টিক কারখানায় আগুন: আরও ১ জনের মৃত্যু ভারত আমাদের জায়গা না দিলে কোথায় যাব: প্রশ্ন রূপা গাঙ্গুলীর মোশতাক, জিয়ার মতো মীরজাফররা আর যেন ক্ষমতায় না আসে: হাসিনা প্রকাশ্যে এলো মিথিলা-সৃজিতের মধুচন্দ্রিমার ছবি মাহমুদউল্লাহ ফেরার ম্যাচে চট্টগ্রামের জয় খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা কবির মুরাদ আর নেই শর্তসাপেক্ষে তামাবিল দিয়ে ভারতে যাওয়া শুরু ‘ঢাকার বাস দেখলে লজ্জা লাগে’ রুম্পাকে ধর্ষণের আলামত পাওয়া যায়নি: চিকিৎসক দৈনিক সংগ্রাম সম্পাদক ৩ দিনের রিমান্ডে বিসিবির খাবার খেয়ে ২৫ সাংবাদিক অসুস্থ নাঈমের ঝড়ে রংপুরের সংগ্রহ ১৫৭ সংগ্রাম সম্পাদকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা ভারতের এনআরসি বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের জন্য হুমকি: ফখরুল সংগ্রাম পত্রিকার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া উচিত : ওবায়দুল কাদের তরুণ ক্রীড়া সাংবাদিক অর্ণবের অকাল মৃত্য মাহমুদউল্লার ফেরার ম্যাচে টস জিতে ফিল্ডিংয়ে চট্টগ্রাম ‘ভারত বাঁচাও’ সমাবেশের ডাক কংগ্রেসের নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে মুর্শিদাবাদ ও উত্তর ২৪ পরগনায় ট্রেন-সড়ক অবরোধ মুসলিমবিদ্বেষী আইনের বিরুদ্ধে ভারতজুড়ে বিক্ষোভ