artk
শনিবার, ডিসেম্বার ১৪, ২০১৯ ৯:৪৩   |  ৩০,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

স্পোর্টস ডেস্ক

সোমবার, অক্টোবার ২৮, ২০১৯ ১০:১৮

শুধু গোলের জন্য খেলি না: মেসি

media

মেসি বলেছেন, ‘‘আমি ঠিক চিরাচরিত গোল স্কোরারদের মতো নই। আমার ভাল লাগে একটু নীচ থেকে খেলতে। যাতে অনেক আগে থেকেই বলের সঙ্গে আমার পায়ের সংযোগটা তৈরি হয়।  

বর্তমান ফুটবল জগতের অন্যতম সেরা তারকা লিওনেল মেসি। সম্প্রতি আর্জেন্টিনার প্রচারমাধ্যমে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়ে দিয়েছেন গোল করা নিয়ে তার নিজস্ব ভাবনার কথা। এটাও বুঝিয়ে দিয়েছেন, অন্য গোল শিকারি ফরোয়ার্ডদের মতো তিনি বিপক্ষ পেনাল্টি বক্সে বলের জন্য অপেক্ষা করা একেবারেই পছন্দ করেন না। সঙ্গে জানিয়েছেন, তার দেখা সেরা স্ট্রাইকার প্রাক্তন ব্রাজিল তারকা রোনাল্ডো লুইস নাজারিয়ো দে লিমা।

মেসি বলেছেন, ‘‘আমি ঠিক চিরাচরিত গোল স্কোরারদের মতো নই। আমার ভাল লাগে একটু নীচ থেকে খেলতে। যাতে অনেক আগে থেকেই বলের সঙ্গে আমার পায়ের সংযোগটা তৈরি হয়। সব সময় লক্ষ্য থাকে, অন্যদের বা নিজের জন্য গোলের সুযোগ তৈরি করার। সুযোগের জন্য অপেক্ষা করা নয়।’’ 

সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘‘একটা ম্যাচে অনেকক্ষণ যদি আমার সঙ্গে বলের যোগাযোগ না থাকে, তাহলে আমি সেই খেলা থেকে বেরিয়েও যেতে পারি।’’

মেসি অবশ্য স্বীকার করেছেন, ফুটবল জীবনের শুরু থেকেই তার এই ধরনের মানসিকতা ছিল না। এটা হয়েছে অনেক দিন ধরে খেলতে খেলতে। বার্সেলোনার কিংবদন্তি তারকার কথায়, ‘‘এখন অনেক আগে বল ধরে বিপক্ষ বক্সে এসে গোল করে যেতে বা করাতে বেশি ভাল লাগে। তবে শুধু গোল করার জন্য আমি ফুটবলটা খেলি না। শুরুতে যখন খেলতাম, তখন কিন্তু আমার ঠিক এই ধরনের মানসিকতা ছিল না। অনেক দিন ধরে খেলতে খেলতে নিজের মধ্যে একটা নিয়ন্ত্রণের মানসিকতা আনতে পেরেছি। যে কারণে যে কোনও ম্যাচেই আমি এখন মোক্ষম সময়ের অপেক্ষায় থাকতে পারি। দরকার হলে সেই মুহূর্ত তৈরিও করতে পারি।’’ 

এই সাক্ষাৎকারে মেসি স্পেনের ফুটবল আর দক্ষিণ আমেরিকার বিশেষ করে আর্জেন্টিনার ফুটবলের মূল পার্থক্যের কথাও বলেছেন। তার কথায়, ‘‘স্পেনে একটা ম্যাচ হেরে গেলে কিছুই প্রায় হয় না। ম্যাচ শেষ হলেই সবাই সব কিছু ভুলে যায়। কিন্তু আর্জেন্টিনায় কোনও ম্যাচে হারলে আপনি বাড়ি থেকেই বেরোতে পারবেন না। আমার দেশে এবং দক্ষিণ আমেরিকায় ফুটবল নিয়ে উন্মাদনা অনেক বেশি। সেটা দক্ষিণ আমেরিকার সব দেশের জাতীয় দলের ক্ষেত্রেও সত্যি। ওরা আপনাকে ঘুমোতে দেবে না। দরকার হলে, হোটেলে আপনার দিকে যা পাবে তা-ই ছুড়ে মারবে।’’

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ প্রমাণিত সু চির নেদারল্যান্ডস পার্লামেন্ট সফর বাতিল বিজয় দিবসে নিয়ন্ত্রিত থাকবে রাজধানীর সেসব সড়ক ভারতের নাগরিকত্ব আইন উপমহাদেশে সংঘাত সৃষ্টি করবে: ফখরুল বাংলাদেশের বাজারে আসুসের ডুয়াল স্ক্রিন ল্যাপটপ রাজাকারের তালিকার প্রথম পর্ব প্রকাশ রোববার সাভারে অস্ত্র-গুলিসহ ইউপি সদস্য আটক কেরানীগঞ্জে প্লাস্টিক কারখানায় আগুন: আরও ১ জনের মৃত্যু ভারত আমাদের জায়গা না দিলে কোথায় যাব: প্রশ্ন রূপা গাঙ্গুলীর মোশতাক, জিয়ার মতো মীরজাফররা আর যেন ক্ষমতায় না আসে: হাসিনা প্রকাশ্যে এলো মিথিলা-সৃজিতের মধুচন্দ্রিমার ছবি মাহমুদউল্লাহ ফেরার ম্যাচে চট্টগ্রামের জয় খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা কবির মুরাদ আর নেই শর্তসাপেক্ষে তামাবিল দিয়ে ভারতে যাওয়া শুরু ‘ঢাকার বাস দেখলে লজ্জা লাগে’ রুম্পাকে ধর্ষণের আলামত পাওয়া যায়নি: চিকিৎসক দৈনিক সংগ্রাম সম্পাদক ৩ দিনের রিমান্ডে বিসিবির খাবার খেয়ে ২৫ সাংবাদিক অসুস্থ নাঈমের ঝড়ে রংপুরের সংগ্রহ ১৫৭ সংগ্রাম সম্পাদকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা ভারতের এনআরসি বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের জন্য হুমকি: ফখরুল সংগ্রাম পত্রিকার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া উচিত : ওবায়দুল কাদের তরুণ ক্রীড়া সাংবাদিক অর্ণবের অকাল মৃত্য মাহমুদউল্লার ফেরার ম্যাচে টস জিতে ফিল্ডিংয়ে চট্টগ্রাম ‘ভারত বাঁচাও’ সমাবেশের ডাক কংগ্রেসের নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে মুর্শিদাবাদ ও উত্তর ২৪ পরগনায় ট্রেন-সড়ক অবরোধ মুসলিমবিদ্বেষী আইনের বিরুদ্ধে ভারতজুড়ে বিক্ষোভ বিনিয়োগে ঝুঁকির মাত্রা কমেছে মূলধন কমেছে ৮৬৭৭ কোটি টাকা, সূচকেও পতন