artk
মঙ্গলবার, নভেম্বার ১২, ২০১৯ ১১:১৯   |  ২৮,কার্তিক ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

সোমবার, অক্টোবার ২১, ২০১৯ ৬:৫৭

স্টেম সেলে ৫৮ শতাংশ কিডনি রোগী সুস্থ

media

কিডনি রোগের চিকিৎসায় স্টেম সেল পদ্ধতি প্রয়োগের মাধ্যমে সাফল্য অর্জন করেছেন বাংলাদেশের চিকিৎসকরা। দেশে এই পদ্ধতির চিকিৎসায় এখন পর্যন্ত ৫৮ শতাংশ রোগী কিডনি সমস্যা থেকে নিরাময় লাভ করেছেন। এই চিকিৎসার প্রসার ঘটাতে পারলে কিডনি চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

কিডনি রোগের চিকিৎসায় স্টেম সেল পদ্ধতি প্রয়োগের মাধ্যমে সাফল্য অর্জন করেছেন বাংলাদেশের চিকিৎসকরা। দেশে এই পদ্ধতির চিকিৎসায় এখন পর্যন্ত ৫৮ শতাংশ রোগী কিডনি সমস্যা থেকে নিরাময় লাভ করেছেন। এই চিকিৎসার প্রসার ঘটাতে পারলে কিডনি চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

সোমবার সকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে দুদিনের অসংক্রামক রোগ সম্পকির্ত বৈজ্ঞানিক সম্মেলনের শেষ দিনের সেশনে উপস্থাপিত প্রবন্ধে এ তথ্য জানানো হয়। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ লেজার অ্যান্ড সেল সার্জারি ইনস্টিটিউট অ্যান্ড হসপিটালের (বিএলসিএস হাসপাতাল) চিফ কনসালটেন্ট ডা. জাহাঙ্গীর মো. সারওয়ার।

সেমিনারে জাহাঙ্গীর মো. সারওয়ার বলেন, গবেষকরা জানান, অকেজো কিডনির কার্যকারিতা ফেরাতে চিকিৎসা বিজ্ঞানের সর্বাধুনিক আবিষ্কার স্টেম সেল চিকিৎসা পদ্ধতি। স্টেম সেলের প্রয়োগ শরীরের অকেজো রক্তনালী সচল করা, ক্ষত সারানো, ক্ষতিগ্রস্ত স্নায়ু পুনরুজ্জীবিত করা, স্বাস্থ্যকর নাইট্রিক অক্সাইড রিসেপটর ফিরিয়ে আনতে ভূমিকা রাখে। 

দুরারোগ্য বিভিন্ন রোগের ক্ষেত্রে দীর্ঘমেয়াদী ও ব্যয়বহুল চিকিৎসার পাশাপাশি স্টেম সেল চিকিৎসায় এখন পর্যন্ত সাফল্য পাওয়া যাচ্ছে। আক্রান্ত রোগীদের কেউ কেউ আগে সপ্তাহে তিন থেকে চারদিন ডায়ালাইসিস করাতেন। স্টেম সেল প্রয়োগের পর ধীরে ধীরে তাদের ডায়ালাইসিসের প্রয়োজনীয়তা কমেছে। পর্যায়ক্রমে ডায়ালাইসিস ছাড়াই এসব রোগী সুস্থ জীবনযাপন করতে পারবেন।

সেমিনারে কিডনি বিশেষজ্ঞরা বলেন, কিডনি ট্রান্সপ্ল্যান্ট অত্যন্ত ব্যয়বহুল। তার উপর সুস্থ কিডনি সংগ্রহ করাও দুরূহ। ডায়ালাইসিস নির্ভরতা কমিয়ে রোগীকে সুস্থ করে তুলতে স্টেম সেল পদ্ধতি কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে।

ভারতে পেঁয়াজের দাম না পেয়ে কৃষকের কান্না রেফারিকে এসপি হারুনের মারধরের ভিডিও ভাইরাল ‘ঘন কুয়াশার কারণে লালবাতি দেখতে পাননি চালক’ জাতীয় আয়কর মেলা শুরু বৃহস্পতিবার শিশুটির নাম নাইমা, সঙ্গে থাকা মা ও দাদীর সন্ধান মিলছে না খালেদা জিয়া নিজে হাতে খেতেও পারেন না: মির্জা ফখরুল আর দেখা যাবে না সোহার হাসিমুখ ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত হত্যা: আ.লীগ নেতা মাসুম কারাগারে গয়েশ্বর বাবু বিএনপি নামক বটগাছ থেকে কবে সরবেন: হাছান মাহমুদ অসুস্থ মায়ের পাশে থাকতে দেশে ফিরলেন মোসাদ্দেক ভুল প্রকাশের দায়ে ডিএসইর জুবায়ের বরখাস্ত সম্রাট ও এনামুলের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা ঢাকা উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলনে ভাঙচুর দেশে ফেরার কারণ জানালেন মোসাদ্দেক রেলকর্মীদের আরো দক্ষ করা উচিত: প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামের সঙ্গে ঢাকা ও সিলেটের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি হতে লাগবে স্নাতক মেক্সিকোতে আশ্রয় পেলেন ইভো মোরালেস বুলবুলে নিখোঁজ ৯ জেলের মরদেহ উদ্ধার ট্রেন দুর্ঘটনায় হতাহতের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর শোক ১২ নভেম্বর: উপকূলবাসী আজো ভোলেনি ভয়াল সেই স্মৃতি পেঁয়াজের দাম বাড়ছেই জেএসসি-জেডিসির ৫ পরীক্ষার নতুন সময়সূচি সকালে ঘুম থেকে উঠে পানি পানে ৬ উপকার যুক্তরাজ্যে গাঁজার তৈরি দুটো ওষুধের অনুমোদন স্বেচ্ছাসেবক লীগের ঢাকা মহানগর উত্তরের সম্মেলন মঙ্গলবার চারদিনের সফরে মঙ্গলবার নেপাল যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি কসবায় ২ ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১৫ রাজনীতি গাড়ি-বাড়ি করার পেশা নয়: রাষ্ট্রপতি রাঁঙ্গার বিচারের ভার জনগণের কাছে দিলেন নূর হোসেনের মা