artk
শনিবার, নভেম্বার ১৬, ২০১৯ ৬:১৬   |  ২,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

শনিবার, অক্টোবার ১৯, ২০১৯ ৬:৫৮

জনগণের সঙ্গে রাষ্ট্রের বৈরী সম্পর্ক তৈরি হয়েছে: সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী

media

ইমেরিটাস অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেছেন, এই রাষ্ট্রের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের একটা বৈরী সম্পর্ক হয়েছে। কেবল রাষ্ট্র নয়, জনগণের সঙ্গেও রাষ্ট্রের একটা বৈরী সম্পর্ক তৈরি হয়েছে।

রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে শনিবার সকালে এক স্মরণসভা অনুষ্ঠানে সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী এসব কথা বলেন।

মীজানূর রহমান শেলীকে স্মরণ করতে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে একাডেমিক প্রেস অ্যান্ড পাবলিশার্স লাইব্রেরি (এপিপিএল)। সহযোগিতায় ছিল ড. মীজানূর রহমান শেলী পরিষদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, “ব্রিটিশের রাষ্ট্র, পাকিস্তানের রাষ্ট্র এবং এখন বাংলাদেশের রাষ্ট্রের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের একটা বৈরী সম্পর্ক হয়েছে এবং এই রাষ্ট্রকে চিনতে মীজানূর রহমান শেলীর কাজ সাহায্য করে। রাষ্ট্রকে তিনি জানার চেষ্টা করেছিলেন, যা আমাদের জানতে সাহায্য করে।” 

তিনি বলেন, “এই রাষ্ট্রকে বদলাতে হবে। আর বদলানোর জন্য জ্ঞানের প্রয়োজন। উত্তেজিত হয়ে, আবেগ দিয়ে রাষ্ট্রকে ছোট করা হয়েছে। কিন্তু, রাষ্ট্রের চরিত্র বদলায়নি।”

সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, “আমরা এই উপলব্ধিতে পৌঁছেছি যে, এই রাষ্ট্রকে বদলাতে হবে। এই বদলানো কথা দিয়ে, বক্তৃতা দিয়ে, উত্তেজনা প্রকাশ করে, হঠাৎ উত্তেজিত হয়ে, আবেগ দিয়ে রাষ্ট্র ছোট হয়েছে। বড় রাষ্ট্র থেকে ছোট রাষ্ট্র হয়েছে। কিন্তু রাষ্ট্রের যন্ত্রগুলো বদলায়নি। সে বদলানোর ক্ষেত্রে জ্ঞানের আড়ষ্টতা আছে। রাষ্ট্রের গোটা ব্যবস্থা ও বৈরী সম্পর্কের মধ্য দিয়ে আমাদের বড় হতো হচ্ছে।”

মীজানূর রহমানের সহপাঠী হিসেবে স্মৃতিচারণ করেন জাতীয় অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী। তিনি বলেন, “১৯৫৩ সাল থেকে আমাদের বন্ধুত্ব। শেলীর বিভিন্ন বিষয়ের ওপর পড়াশোনা ছিল। সাহিত্য, সাধারণ জ্ঞান থেকে শুরু করে সে প্রচুর বই পড়ত স্কুল জীবন থেকেই। যেকোনো বিষয় নিয়ে প্রাসঙ্গিক ঘটনা বলে মজা করতে পারত।”

সভাপতির বক্তব্যে সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক রহিম বক্স তালুকদার বলেন, “ছাত্র হিসেবে শেলী যেমন কৃতি ছিলেন, তেমনি সরকারি কর্মকর্তা হিসেবেও তিনি কৃতিত্ব লাভ করেন। তাঁর কাছ থেকে এই রাষ্ট্রের যা যা নেওয়ার ছিল, তা রাষ্ট্র নিতে পারেনি।”

অনুষ্ঠান থেকে বলা হয়, মীজানূর রহমান শেলী একাধারে পদস্থ সরকারি কর্মকর্তা, সমাজবিজ্ঞানী, শিক্ষাবিদ ও রাজনীতি বিশ্লেষক। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন। শিক্ষকতা ছেড়ে ১৯৬৭ সালে তিনি সরকারি চাকরিতে যোগ দেন। তিনি লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আন্তর্জাতিক রাজনীতির ওপর ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৮০ সালে সমাজকল্যাণ অধিদপ্তরের পরিচালক থাকা অবস্থায় চাকরি থেকে অব্যাহতি নেন শেলী। তিনি তথ্য ও পানিসম্পদ মন্ত্রী ছিলেন।

স্মরণ সভা অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন লেখক জাকিউদ্দিন আহমেদ, সাবেক মন্ত্রী জাকারিয়া চৌধুরী, সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আবুল হাসান চৌধুরী, সাবেক পররাষ্ট্রসচিব মহিউদ্দিন আহমদ প্রমুখ।

টাঙ্গাইলে নারীসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী আটক দুর্ঘটনায় নাশকতা আছে কিনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে: রেলমন্ত্রী ফেলে যাওয়া ২০ লাখ টাকা ফেরত দিলেন রিকশাচালক লাল মিয়া এবার আকাশপথে পেঁয়াজ আমদানির সিদ্ধান্ত ৫ এম্পিয়ারের ব্যাটারি নিয়ে বাজারে আসছে ভিভো ইউ ২০ গুলতেকিনকে নিয়ে তসলিমা নাসরিনের স্ট্যাটাস যৌনকর্মে বাধ্য করায় ২ নারীসহ আটক ৪ বাণিজ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ চায় বাংলাদেশ ন্যাপ তদন্ত প্রতিবেদন: দায়ী তূর্ণা নিশীথার চালক ও গার্ড মন্ত্রীদের বক্তব্য পেঁয়াজের সিন্ডিকেটকে উস্কে দিচ্ছে: রিজভী কুয়েতের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ পেঁয়াজের কেজি আড়াইশ বই কিনলে পেঁয়াজ ফ্রি প্রাতঃভ্রমণে বের হয়ে ট্রলিচাপায় প্রাণ হারালেন খাদ্য কর্মকর্তা ধূসর আকাশ, বিষাক্ত বাতাস স্বজনদের পরিকল্পনাতেই খুন হন সগিরা মোর্শেদ টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা নিহত ময়মনসিংহে কলেজ ছাত্রীকে অপহরণকালে আটক ১০ আরিফের সহায়তায় ফুটপাতে থাকা সেই শিশুদের সরিয়ে নিলো পুলিশ পেঁয়াজের কেজি ২০০ টাকা হবে কোনো দিন ভাবিনি: তোফায়েল মেলার প্রথম দিনেই আয়কর আদায় ৩২৩ কোটি টাকা প্রথম দিনেই প্রধানমন্ত্রীর আয়কর বিবরণী জমা রাঙার বিরুদ্ধে মানহানির মামলা পেঁয়াজ নিয়ে মারামারি! সূচকে পতন লেনদেনও মন্দা জেএসসি প্রশ্নের ছবি তুলে পালানোর চেষ্টা, ২ কলেজছাত্রের দণ্ড চট্টগ্রামে দুই সিমেন্ট কারখানাকে জরিমানা অফিসে ইয়াবা সেবন ভূমি কর্মকর্তার দেশে সব ধরনের রেনিটিডিন বিক্রি স্থগিত সেন্টমার্টিনে ১১৯ রোহিঙ্গা আটক