artk
মঙ্গলবার, নভেম্বার ১৯, ২০১৯ ৭:৩৬   |  ৫,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ইশ্বরগঞ্জ সংবাদদাতা

শনিবার, অক্টোবার ১৯, ২০১৯ ২:১৬

ঈশ্বরগঞ্জে ছাত্র খুন: থানায় বাদী সেজে মামলা করল কে?

media

১৬ বছরের ছেলে সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত। তাকে নিয়ে হাসপাতালে ছোটাছুটি মা–বাবার। পরদিন ছেলে মারা গেল। স্বজনেরা লাশ নিয়ে বাড়ি ফিরে জানতে পারলেন, থানায় হত্যা মামলা হয়ে গেছে। কিন্তু পরিবার কিছুই জানে না।

১৬ বছরের ছেলে সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত। তাকে নিয়ে হাসপাতালে ছোটাছুটি মা–বাবার। পরদিন ছেলে মারা গেল। স্বজনেরা লাশ নিয়ে বাড়ি ফিরে জানতে পারলেন, থানায় হত্যা মামলা হয়ে গেছে। কিন্তু পরিবার কিছুই জানে না।

পরিবার ও এলাকাবাসী বলছে, আসল খুনিদের বাঁচাতে ও নিরীহ লোকদের ফাঁসাতে কেউ মামলাটি করতে পারে। ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর মা–বাবা ও ভাইকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় পুলিশ। ফেরার পর থেকে তাঁরা আর কিছু বলছেন না।

নিহত কিশোরের নাম মো. জায়দুল ইসলাম। তার বাবা ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ শহরের দত্তপাড়ার রফিকুল ইসলাম। সে পড়ত উপজেলা শহরের শিমুলতলা মোড়ের প্রতিশ্রুতি মডেল হাইস্কুলে। জায়দুল গত বছর এসএসসি পরীক্ষায় অকৃতকার্য হয়েছিল। আবার পরীক্ষা দেওয়ার জন্য টেস্ট পরীক্ষা দিচ্ছিল।

ঘটনার শুরু গত মঙ্গলবার সকালে। জায়দুলের ইংরেজি দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা ছিল সেদিন। রিকশায় করে স্কুলে যাচ্ছিল পরীক্ষা দিতে। পথে উপজেলা মৎস্য খামারের কাছে ছয়-সাতজনের একটি দল রিকশাটি থামায়। তারা ছেলেটিকে রিকশা থেকে নামিয়ে গলায় ছুরিকাঘাত করে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হয়ে তাকে নেওয়া হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে মঙ্গলবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে মারা যায় সে।

জায়দুলের বাবা রফিকুল ইসলাম বুধবার প্রতিবেদককে বলেন, তার ছেলে কোনো রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিল না। কেন তাকে মেরে ফেলা হলো, বুঝতে পারছি না।’ তবে প্রতিশ্রুতি মডেল হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক শোয়েব মোহাম্মদ বলেন, মহল্লার কিছু ছেলের সঙ্গে জায়দুলের ঝামেলা চলছিল। বিষয়টি সে তাঁকে ফোনে জানিয়েছিল।

মামলা হলো, পরিবার কিছুই জানল না?

সংকটাপন্ন অবস্থায় জায়দুলকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঢাকায় নিয়ে যায় পরিবার। সঙ্গে ছিলেন মা নুরেজা পারভীন, ভাই তারেকুল ইসলামসহ কয়েকজন। বুধবার দুপুরে লাশ নিয়ে তারা বাড়িতে ফেরেন। অথচ ঈশ্বরগঞ্জ থানায় মামলা রেকর্ডের সময় দেখানো হয়েছে ১৬ অক্টোবর রাত ১২টা ৫ মিনিট। এজাহারে বাদীর নাম রয়েছে ‘জায়দুলের মা মোছা. নুরজাহান’।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জায়দুলের বাড়িতে যান সাংবাদিকেরা। মা নুরেজা পারভীন বলেন, ছেলের চিকিৎসা নিয়েই তিনিসহ স্বজনেরা ব্যস্ত ছিলেন। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তারা দত্তপাড়ার বাড়িতে ফেরেন। এই সময়ের মধ্যে তিনি বা পরিবারের কেউ থানায় যাননি। থানা থেকেও কেউ বাড়িতে আসেননি। মামলার এজাহারটি দেখালে নুরেজা বারবার বলতে থাকেন, ‘আমি মামলা করার জন্য থানায় যাইনি। থানা থেকে পুলিশের কেউ আমার কাছে আসেনি।’ বাবা রফিকুলও একই কথা বলেন। তাঁর ভাষ্য, তার স্ত্রী ঘটনার পর থেকে পুত্রশোকে কাতর। তিনি কখনো থানায় যাননি। কীভাবে মামলা হয়েছে, তা তাঁরা জানেন না।

এখন সবাই চুপ

বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর বৃহস্পতিবার বিভিন্ন মহলে তোলপাড় শুরু হয়। খবর যায় ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) শাহ আবিদ হোসেনের কাছে। বৃহস্পতিবার বেলা তিনটার দিকে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ‘ঈশ্বরগঞ্জ থানা থেকে আমাকে জানানো হয়েছে, নিহতের মা মামলা দায়ের করেছেন।’ এই প্রতিবেদক এসপির কাছে জানতে চান, মামলা রেকর্ড করার যে সময় উল্লেখ করা হয়েছে, ওই সময় নিহতের মা ঈশ্বরগঞ্জে ছিলেন না। তাহলে তিনি কীভাবে মামলা করলেন। জবাবে এসপি বলেন, ‘আমি বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখছি।’

বৃহস্পতিবার বিকেল পৌনে চারটার দিকে বাড়িতে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ঈশ্বরগঞ্জ থানা থেকে একদল পুলিশ জায়দুলদের বাড়িতে গিয়েছিল। তারা জায়দুলের মা-বাবা ও বড় ভাই তারেকুল ইসলামকে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে নিয়ে গেছে। সন্ধ্যার দিকে অবশ্য তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়। এ বিষয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহম্মেদ কবীর হোসেন বলেন, মামলা নিয়ে কে বা কারা পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ করেছে। এ বিষয়ে জানতে তাঁদের ডাকা হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সোয়া ছয়টার দিকে পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন বলেন, জায়দুল আহত হওয়ার পর তাঁর মা থানায় হত্যাচেষ্টার অভিযোগ দিয়েছিলেন বলে স্বীকার করেছেন। ওই অভিযোগটিই আদালতের অনুমতি নিয়ে ৩০২ ধারার (হত্যার অভিযোগ) মামলায় রূপান্তর করেছে পুলিশ। মামলায় বাদীর নাম দেখানো হয়েছে ‘নুর জাহান’। কিন্তু জায়দুলের মায়ের নাম তো নুরেজা পারভীন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে শাহ আবিদ হোসেন বলেন, নুরেজা পারভীনেরই ডাকনাম নুরজাহান।

তবে মামলার বিষয়ে ওসি আহম্মেদ কবীর হোসেন গতকাল শুক্রবার বলেন, বাদীর পক্ষ থেকে বুধবার রাতে এক ব্যক্তি থানায় এসে এজাহার দিয়ে যান।

গতকাল বিকেলে জায়দুলের বড় ভাই তারেকুল ইসলামকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি শুধু বলেন, ‘আমি ভাই হত্যার বিচার চাই।’ মামলা সম্পর্কে তিনি কিছু বলতে চাননি।

তারেক রহমানই ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কাজ শুরু করেন: ফখরুল রাঙ্গামাটিতে জেএসএসের দুই পক্ষের গোলাগুলিতে নিহত ৩ রিভিউ পরিবর্তন: ইমনের পরিবর্তে কায়কোবাদ ২৮৭ জনকে নিয়োগ দিবে দুদক ৫ দিনে রাজস্ব আদায় ১ হাজার ৬৫৮ কোটি টাকা শোভন-রাব্বানীসহ ১০৫ জনের সম্পদের অনুসন্ধানে দুদক মুনাফা ছাড়া পেঁয়াজ বিক্রির আহবান মেয়র খোকনের লোহাগড়ায় ডেঙ্গু জ্বরে যুবকের মৃত্যু সড়ক আইন বাস্তবায়ন হবেই: ওবায়দুল কাদের বিজ্ঞাপনে ক্যাটরিনার জায়গায় বাংলাদেশের মিম! মধ্যপ্রাচ্যের ৫ দেশে গৃহকর্মী না পাঠাতে রিট র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলমকে হাই কোর্টে তলব ‘অতি দ্রুত’ পেঁয়াজের বাজার স্বাভাবিক হয়ে আসবে: বাণিজ্য সচিব শাকিব খানকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা ক্যালিফোর্নিয়ায় পারিবারিক অনুষ্ঠানে গুলিতে নিহত ৫, আহত ১০ ‘আইনের লাগাম ছিঁড়তে’ ১০ জেলায় বাস বন্ধ সড়ক আইন প্রয়োগে বাড়াবাড়ি না করার নির্দেশ মন্ত্রীর ‘গ্রামীণফোনের বিষয়ে আদালতের বাইরে কোনো মীমাংসা নয়’ আবরার হত্যা: পলাতক ৪ জনের বিরুদ্ধে পরোয়ানা রাজধানীতে বায়ু দূষণ চরম মাত্রায় ঠেকেছে বিমানে আমদানির খবরে কমছে পেঁয়াজ দাম এরশাদপুত্র এরিককে খেতে না দেয়ার অভিযোগ নওগাঁয় ট্রাকচাপায় মা-মেয়ে নিহত ২২-২৪ নভেম্বর শালুক-এর লেখক পাঠক শুভাকাঙ্ক্ষীদের নিবিড় সম্মিলন চৌমুহনীতে আগুনে অর্ধশতাধিক দোকান পুড়ে ছাই কানাডার সম্মানজনক জাতিগত পুরস্কার পেয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশি সোনাইমুড়ীতে বাস-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে ৩ আরোহীর মৃত্যু ঝিনাইদহে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক ব্যক্তি নিহত নুডলস খাওয়া নিয়ে পায়রা বিদ্যুৎকেন্দ্রে চীনা শ্রমিক খুন পেঁয়াজের কেজি ৫৫ টাকার বেশি হলেই জরিমানা