artk
সোমবার, নভেম্বার ১৮, ২০১৯ ৩:২০   |  ৩,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

বৃহস্পতিবার, অক্টোবার ১৭, ২০১৯ ৪:৪৪

প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ পেতে নন এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের অবস্থান

media

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাক্ষাৎ পেতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গণ অবস্থান নিয়েছেন নন এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশন। এমপিও নীতিমালা বাতিলের দাবিতে চলা তাদের এ কর্মসূচির আজ তৃতীয় দিন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাক্ষাৎ পেতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গণ অবস্থান নিয়েছেন নন এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশন। এমপিও নীতিমালা বাতিলের দাবিতে চলা তাদের এ কর্মসূচির আজ তৃতীয় দিন।

বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় তারা এ কর্মসূচি শুরু করেন। 

গণঅবস্থান কর্মসূচিতে নেতারা জানান, এমপিও নীতিমালা ২০১৮ এ নিম্নমাধ্যমিক শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থী চাওয়া হয়েছে ১৫০জন। কিন্তু পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ও ফলাফল চাওয়া হয়নি। তাহলে নিম্নমাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলো কোন মানদণ্ডে এমপিও করা হবে বিষয়টি স্পষ্ট নয়।

অপরদিকে মাধ্যমিক পর্যায়ে সহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থী চাওয়া হয়েছে শহর পর্যায়ে ৩শ জন এবং মফস্বলে ২শ জন। আবার বালিকা বিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে শিক্ষার্থী চাওয়া হয়েছে শহরে ২শ জন মফস্বলে ১শ জন। কিন্তু উভয় প্রতিষ্ঠানের জন্য পরীক্ষার্থী চাওয়া হয়েছে ৪০ জন। 

যদি ২শ জনে ৪০ জন পরীক্ষার্থী হয় সে অনুযায়ী আনুপাতিক হারে ১শ ৫০ জনে ২৬ জন এবং ১শ জনে হতে হবে ১৩ জন। উচ্চ-মাধ্যমিক শহর সহশিক্ষায় ২শ জন শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে পরীক্ষার্থী চাওয়া হয়েছে ৬০ জন আবার নারীশিক্ষায় ১শ ৫০ জনে পরীক্ষার্থী চাওয়া হয়েছে ৬০ জন। 

তারা জানান, ২শ জন শিক্ষার্থীর বিপরীতে ৬০ জন পরীক্ষার্থী চাওয়া হলে ১শ ৫০ জনে ৪৫ জন হবে। মফস্বলে সহশিক্ষা ১শ ৫০ জন শিক্ষার্থীতে পরীক্ষার্থী চাওয়া হয়েছে ৪০ জন। নারী শিক্ষায় ১শ ২০ শিক্ষার্থীর মধ্যে চাওয়া হয়েছে ৪০ জন পরীক্ষার্থী। ১শ ৫০ জন শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে ৪০ জন পরীক্ষার্থী হলে ১শ ২০ জনের ক্ষেত্রে হবে ৩২ জন। 

স্নাতকে সহশিক্ষায় শহরে ২শ ৫০ জন শিক্ষার্থীতে পরীক্ষার্থী ৬০ জন পরীক্ষার্থী। কিন্তু এখানে স্নাতক শিক্ষার্থী চাওয়া হয়েছে ৫০ জন। কিন্তু পরীক্ষার্থী ৬০ জন। যা সম্পূর্ণ অসংগতিপূর্ণ। আবার নারীশিক্ষার জন্য শিক্ষার্থী ১শ ৫০ জনের ডিগ্রি স্তরে শিক্ষার্থী ৩০জনের বিপরীতে ৪০জন পরীক্ষার্থী চাওয়া হয়েছে। এইচএসসি বিএম স্তরে প্রতি ট্রেডে শিক্ষার্থী ৩০ জনের বিপরীতে ৪০জন পরীক্ষার্থী চাওয়া হয়েছে। যা সম্পূর্ণ অযৌক্তিক। অনুরূপভাবে মাদরাসা, কারিগরি ও বিএম কলেজে উল্লেখিত সমস্যাগুলো ২০১৮ এমপিও নীতিমালায় বিদ্যমান।

বক্তারা বলেন, “আমাদের জানামতে আবেদন চাওয়ার সময় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাবলিক পরীক্ষার ফলাফলের জাতীয় হার ৭০% এর নিচে ছিল। এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের শুধুমাত্র স্তর এমপিওর নামে শিক্ষক এমপিওর পরিবর্তে প্রতিষ্ঠান এমপিও বলে চালিয়ে দেয়ার অপকৌশল আমরা দেখতে পাচ্ছি।”

বক্তারা আরো বলেন, “এই ভুলে ভরা নানা অসংগতিপূর্ণ নীতিমালা অনুসরণ করে এমপিও তালিকা প্রকাশ হলে, বাংলাদেশের বেসরকারি শিক্ষা ব্যবস্থা অত্যন্ত ক্ষতিগ্রস্থ হবে এবং সরকার ব্যাপক জনসমালোচনার মুখে পড়বে এবং জন অসন্তোষ তৈরী হবে। 

সংগত কারণে এই অসংগতি পূর্ণ ও ভুলেভরা নীতিমালা অনুসরণ করে এমপিও তালিকা প্রকাশ না করার জন্য সবিনয় অনুরোধ জানান তারা। 

তারা বলেন, দীর্ঘ অপেক্ষার পর প্রকাশিত এমপিও প্রাপ্তি থেকে স্বীকৃতি প্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানগুলি বাদ পড়বে। আমরা বিশ্বাস করি একমাত্র মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাতের মাধ্যমেই এই জটিলতা নিরসন সম্ভব।

এমপিও নীতিমালা ২০১৮ প্রকাশের পূর্বে অতীতে যে মানদণ্ড অনুসরণ করে যেসকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত হয়েছে, সে মানদণ্ড অনুসরণ করে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত শুধুমাত্র নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো একযোগে এমপিওভুক্ত করার জোর দাবি জানান বক্তারা।

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ বিনয় ভূষণ রায়সহ অন্যান্য সদস্যরা।

নুডলস খাওয়া নিয়ে পায়রা বিদ্যুৎকেন্দ্রে চীনা শ্রমিক খুন পেঁয়াজের কেজি ৫৫ টাকার বেশি হলেই জরিমানা জাতির শত্রু মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ করতে হবে: অর্থমন্ত্রী মেলায় রাজস্ব আদায় ১ হাজার ৩৪৬ কোটি টাকা বিএনপির বেশিরভাগ নেতাই দলছুট: তথ্যমন্ত্রী পাবলিক ফান্ড আত্মসাতের আগেই তা রক্ষা সম্ভব: ইকবাল মাহমুদ শ্রীলংকার নতুন প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে বিডিবিএলের সাবেক জিএম কাদরীকে গ্রেপ্তার অর্থপাচার ও সন্ত্রাসে অর্থায়ন রোধে সব দেশের সাহায্য প্রয়োজন: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ফরিদপুর মেডিক্যালের সাবেক পরিচালকসহ ১২ জনকে তলব বঙ্গবন্ধু বিপিএলে মাশরাফি-তামিমদের চেয়ে বেশি মূল্য আফ্রিদি-গেইলদের হলি আর্টিসান হামলার রায় ২৭ নভেম্বর জেড ক্যাটাগরিতে যুক্ত ৯ কোম্পানি অভিভাবকের আয়ের ভিত্তিতে বেতন নির্ধারণের সুযোগ দিবে ইউডা অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় ৬ দিনের রিমান্ডে সম্রাট প্রধানমন্ত্রীকে বিএনপির চিঠি সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়সসীমা ৬০ মোরালেস সমর্থকদের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর সংঘর্ষে নিহত ৯ স্বর্ণ কেনার আগে যেসব বিষয় অবশ্যই খেয়াল রাখা উচিত লঞ্চের ধাক্কায় বালুবাহী জাহাজ ডুবে ৩ শ্রমিক নিখোঁজ রাজধানীর বনশ্রী থেকে সাংবাদিকের মরদেহ উদ্ধার চট্টগ্রামের পাথরঘাটায় গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে নিহত ৭ মুসলিমদেরও রাম মন্দিরের জন্য খুশি হওয়া উচিৎ: রামদেব সিরিয়ায় গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে নিহত ১৮ পেঁয়াজ খাওয়া বন্ধ: প্রধানমন্ত্রী যখন তখন হেসে ফেলেন? আপনার কী হয়েছে জানেন? ঘরোয়া পদ্ধতিতে দূর করুন ব্রণের দাগ পিইসি পরীক্ষা শুরু রোববার সৌদি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকের পরই নারীকর্মীর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত: মন্ত্রী পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধি: সোমবার দেশব্যাপী বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি