artk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মঙ্গলবার, অক্টোবার ১৫, ২০১৯ ১১:৫৭

পাকিস্তানের ‘গাঢ় ধূসর’ তালিকায় পড়ার সম্ভাবনা

media

সন্ত্রাসবাদে অর্থ জোগানো রুখতে সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কড়া নজর রাখা এফএটিএফ পাকিস্তানকে পদক্ষেপ নেয়ার জন্য সময়সীমা দিলেও তা করতে অনেকটাই ব্যর্থ দেশটি। এর ফলে ওই দেশকে সন্ত্রাসবাদ রুখতে শেষ সতর্কতা দিয়ে ‘ডার্ক গ্রে’ বা ‘গাঢ় ধূসর’ (Grey List) তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হতে পারে। এটাই ওই দেশকে কালো তালিকাভুক্ত করার আগে শেষ সতর্কবার্তা। ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স (এফএটিএফ) এর চলমান পূর্ণাঙ্গ বৈঠকে উপস্থিত কর্মকর্তারা বলেন, যা ইঙ্গিত মিলছে সেই মতো, পাকিস্তানের সন্ত্রাস দমনে পর্যাপ্ত কাজ না করার কারণে অন্য সব সদস্য বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ার সম্ভাবনা। কেন না ওই দেশটি সন্ত্রাসদমনে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ না করায় এফএটিএফ-এর রোষের মুখে পড়তে পারে, ২৭টি পদক্ষেপের মধ্যে মাত্র ছয়টি করেছে তারা। ১৮ অক্টোবর পাকিস্তানের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

এফএটিএফের নিয়ম অনুসারে, ‘গ্রে’ এবং ‘ব্ল্যাক’ অর্থাৎ ‘ধূসর’ এবং ‘কালো’ তালিকার মধ্যবর্তী যে পর্যায় রয়েছে তা ‘ডার্ক গ্রে’ বা ‘গাঢ় ধূসর’ হিসাবে পরিচিত।

‘ডার্ক গ্রে’ বা ‘গাঢ় ধূসর’-এর অর্থ হলো ওই দেশটির প্রতি একটি কড়া সতর্কতা জারি করা, যাতে সংশ্লিষ্ট দেশটি উন্নতির শেষ সুযোগ পায়।

১৯৮৯ সালে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে নজর রাখার জন্যে এই সংস্থা এফএটিএফ প্রতিষ্ঠা করা হয়। এটি আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদে মদত দিয়ে অর্থ জোগানো এবং সন্ত্রাস সংক্রান্ত অন্যান্য আশঙ্কার বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য প্রতিষ্ঠিত হয়।

গত বছরের জুনে প্যারিসের এই নজরদারি সংস্থাটি পাকিস্তানকে গ্রে তালিকা অর্থাৎ ধূসর তালিকায় রাখে এবং ২০১৯ সালের অক্টোবরের মধ্যে সন্ত্রাসবাদ রুখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করার জন্যে ওই দেশকে সময় দেয়। সেইসঙ্গে এই সতর্কবার্তাও দেয়া হয় যে পাকিস্তান প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ না করতে পারলে তারও ইরান এবং উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে কালো তালিকাভুক্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকতে পারে।

যদি প্রকৃতঅর্থেই ‘ধূসর তালিকা’ থেকে ‘গাঢ় ধূসর তালিকা’-র অন্তর্ভুক্ত হয় পাকিস্তান তাহলে ওই দেশের পক্ষে আইএমএফ, বিশ্বব্যাংক এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে আর্থিক সহায়তা পাওয়া খুবই কঠিন হয়ে দাঁড়াবে। ফলে পাকিস্তানের বর্তমান আর্থিক অবস্থা আরও অনিশ্চিত হয়ে পড়বে। খবর এনডিটিভির।

পশুর চেয়েও নিকৃষ্ট ধর্ষক: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাসের কারণে হজে যাওয়া না হলে টাকা ফেরত: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দাঙ্গা নয়, দিল্লিতে পরিকল্পিত গণহত্যা হয়েছে: মমতা ভারতের সম্মান তলিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার: মমতা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সুনামগঞ্জে এনামুল-রুপন ছয় দিনের রিমান্ডে পিরোজপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা চলতি বছরই তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা: শ্রিংলা ঢাকা উত্তরের নির্বাচন বাতিল চেয়ে তাবিথের মামলা খুলনায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা অভিনেতা গোলাম মুস্তাফার জন্মদিন সোমবার আদালতে টাউট-বাটপার শনাক্তের নির্দেশ পাওয়ার ট্রলিকে ধাক্কা দিয়ে বিকল রেলইঞ্জিন কলকাতা সফরে এসে প্রবল বিক্ষোভের মুখে অমিত শাহ রোবট চালাবে গাড়ি! ভিপি নূরকে হত্যার হুমকি দেয়ার পর দুঃখ প্রকাশ টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭ জন নিহত রাখাইনপ্রদেশে সেনাদের গুলিতে শিশুসহ ৫ রোহিঙ্গা নিহত ইস্কাটনে ভবনে আগুন: মায়ের পর চলে গেলেন রুশদির বাবাও চট্টগ্রামে একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ২ দেশে প্রতিদিন যক্ষ্মায় মারা যায় ১৩০ জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনাভাইরাস আতঙ্কে আয়ারল্যান্ডের স্কুল বন্ধ ঘোষণা বিশিষ্ট সুরকার সেলিম আশরাফ আর নেই মোদীকে অতিথি হিসেবে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মধুর যত জাদুকরী গুণ চিপসের প্যাকেটের ভিতর খেলনা নয়: হাইকোর্ট আমার গাড়িতেও অস্ত্র আছে কী না আমি জানি না: শামীম ওসমান ফ্র্যান্সেও করোনা, অনিশ্চিত কান চলচ্চিত্র উৎসব উপনির্বাচন: গাইবান্ধা-৩ আসনে প্রতীক বরাদ্দ গুজব ও গণপিটুনি রোধে হাইকোর্টের ৫ নির্দেশনা