artk
শুক্রবার, নভেম্বার ১৫, ২০১৯ ৫:৩৩   |  ১,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ফারুক আফিনদী

রোববার, অক্টোবার ১৩, ২০১৯ ১২:৩০

ছাত্ররাজনীতি বন্ধ করে লাভ কি কিছু হবে?

media

কাউকে মারতে, মেরে ফেলতে ঠিক কতজন দুর্বৃত্তের প্রয়োজন? আবরারকে মেরেছিল ১৯ জন। মদ্যপ অবস্থায় মারের মাত্রাটা বেশি হয়ে গেছে। শেষে আবরার মারাই গেলো। হয় তো খুনের পরিকল্পনাই ছিল ছাত্রলীগের দুর্বৃত্তদের। কিন্তু তাকে খুন করতে কি এতগুলো লোকের দরকার ছিল? ছিল না। মেরে ফেলতে ঠিক কতজন লোকের প্রয়োজন সেটা ঠিক করে বলা যায় না। হয়তো দুয়েকজন হলেও চলে।

শিক্ষাঙ্গনে কাউকে শায়েস্তা করতে বা আবরারের মতো পিটিয়ে মেরে ফেলতে চার বা পাঁচজন হলেই চলে। কিন্তু পেছনে একটা শক্তি থাকতে হয়। সে শক্তি দলীয় ক্ষমতা বা সাংগঠনিক জনবল। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সেই সুবিধাটা রয়েছে বলেই তারা আবরারের মতো একজন মেধাবী ছাত্রকে পিটিয়ে মেরে ফেলতে পেরেছে। বুয়েটের এই ঘটনায় সব দোষ চাপলো ছাত্র রাজনীতির ওপর। সবাই ভেউ ভেউ করে বলতে লাগলো- ছাত্র রাজনীতি বন্ধ করা হোক। ফলে হলোও তাই। বুয়েটের জ্ঞানী কর্তৃপক্ষ ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি বন্ধ করে দিলো। প্রশ্ন হলো, এতে কি রাজনীতি বন্ধ হয়ে যাবে? এর ফলে ক্যাম্পাসে আনুষ্ঠানিক সাংগঠনিক কার্যক্রম বন্ধ থাকবে হয় তো। এতে রাজনীতি কমবে না সামান্যও।

ক্যাম্পাসে একটা রাজনৈতিক বলয় তৈরি হতে কী লাগে। একই রাজনৈতিক বিশ্বাসের একটা দল বা গোষ্ঠী মিলিত হতে তো আর কোনো বাধা নেই, আড্ডায় বিধিনিষেধ নেই। নিষেধাজ্ঞার ফলে বুয়েটে আর মিছিল থাকলো না মিটিং থাকলো না। কিন্তু আড্ডা আড্ডার জায়গায় থাকবে। আর সে আড্ডায় থাকবে নিজ নিজ রাজনৈতিক দলের আলোচনা। রাজনৈতিক এই যোগাযোগ অনানুষ্ঠানিকভাবে থেকে যাবে হলে হলে। ব্যাচে ব্যাচে। একইভাবে তাদের আন্তঃযোগাযোগও সামান্যতম বিঘ্নিত হবে না।

ছাত্রলীগ বা অন্য কোনো সংগঠনের কারো ওপর কোনো আঘাত(?) এলে এক প্রান্তের হল থেকে অন্য প্রান্তের হলে কিভাবে দ্রুত ছড়িয়ে পড়বে সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না। সুতরাং অ্যাকশনে যেতেও কাল বিলম্ব হবে না। আবারারের মতো অন্য কাউকে ‘শায়েস্তা’ করতে চাইলেও একই পন্থায় এগোবে। শুধু এখানে কোনো ছাত্রলীগ থাকবে না। সব ঘটনা আগের মতোই ঘটে যাবে। কিন্তু দোষটা আর ছাত্রলীগের ওপর চাপানো যাবে না।
তাই, একটু তলিয়ে চিন্তা করে দেখা যায়, বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করায় ছাত্রলীগের বরং লাভই হলো। এতে সংগঠন ‘নিষ্কলুষ’ থাকবে।

তদন্ত প্রতিবেদন: দায়ী তূর্ণা নিশীথার চালক ও গার্ড মন্ত্রীদের বক্তব্য পেঁয়াজের সিন্ডিকেটকে উস্কে দিচ্ছে: রিজভী কুয়েতের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ পেঁয়াজের কেজি আড়াইশ বই কিনলে পেঁয়াজ ফ্রি প্রাতঃভ্রমণে বের হয়ে ট্রলিচাপায় প্রাণ হারালেন খাদ্য কর্মকর্তা ধূসর আকাশ, বিষাক্ত বাতাস স্বজনদের পরিকল্পনাতেই খুন হন সগিরা মোর্শেদ টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা নিহত ময়মনসিংহে কলেজ ছাত্রীকে অপহরণকালে আটক ১০ আরিফের সহায়তায় ফুটপাতে থাকা সেই শিশুদের সরিয়ে নিলো পুলিশ পেঁয়াজের কেজি ২০০ টাকা হবে কোনো দিন ভাবিনি: তোফায়েল মেলার প্রথম দিনেই আয়কর আদায় ৩২৩ কোটি টাকা প্রথম দিনেই প্রধানমন্ত্রীর আয়কর বিবরণী জমা রাঙার বিরুদ্ধে মানহানির মামলা পেঁয়াজ নিয়ে মারামারি! সূচকে পতন লেনদেনও মন্দা জেএসসি প্রশ্নের ছবি তুলে পালানোর চেষ্টা, ২ কলেজছাত্রের দণ্ড চট্টগ্রামে দুই সিমেন্ট কারখানাকে জরিমানা অফিসে ইয়াবা সেবন ভূমি কর্মকর্তার দেশে সব ধরনের রেনিটিডিন বিক্রি স্থগিত সেন্টমার্টিনে ১১৯ রোহিঙ্গা আটক প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা শুরু ১৭ নভেম্বর ৬৯ বার পেছাল সাগর-রুনি হত্যার তদন্ত প্রতিবেদন এবার সিগন্যালের ভুলে রংপুর এক্সপ্রেসে আগুন রংপুর এক্সপ্রেসের ইঞ্জিনসহ ৭ বগি লাইনচ্যুত, তিনটিতে আগুন ক্ষুদ্রঋণে দারিদ্র বিমোচন হয় না: প্রধানমন্ত্রী দুদকের হাতে আটক জনপ্রতিনিধিসহ ৫ সরকারি কর্মকর্তা খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে আপিল এবার সৌদি কারাগারে আরেক আলেমের মৃত্যু