artk
বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বার ৫, ২০১৯ ৮:২৮   |  ২১,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা

রোববার, অক্টোবার ৬, ২০১৯ ৮:৫৬

সোনারগাঁয়ের মেঘনায় প্রকাশ্যে বালু লুট

media

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার আনন্দবাজার এলাকায় দিনরাত ২৪ ঘণ্টা মেঘনা নদীর বালু লুট করছে চিহ্নিত বালু সন্ত্রাসী চক্র। প্রকাশ্যে নদীর বালু লুটপাট করলেও স্থানীয় প্রশাসন কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

অভিযোগ উঠেছে, উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের আনন্দবাজার এলাকায় ইজারা ছাড়াই ৩০ থেকে ৪০টি ড্রেজার দিয়ে নিয়মিত দিনরাত মেঘনা নদীর বালু বাল্কহেডে করে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে বিক্রি করছে একটি সন্ত্রাসী চক্র। নদীর তীরবর্তী হাড়িয়া, নুনেরটেক, সোনাময়ী ও মামরকপুর গ্রামের মানুষ নদী ভাঙ্গনের কবলে ভিটেমাটি হারানোর ভয়ে আতঙ্কিত। এর আগে বালু সন্ত্রাসীদের বাধা দেওয়ায় নুরু মিয়া, আমজাদ হোসেন, আলমগীর মিয়া, নুর হোসেনসহ ১০ গ্রামবাসীকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করেছে। বালু সন্ত্রাসীরা প্রশাসনের কয়েকজন কর্মকর্তার সঙ্গে আতাত করে প্রকাশ্যে বালু লুট করে নিয়ে যাচ্ছে।

শুক্রবার রাতে এবং শনিবার সকালে আনন্দবাজার এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, ৩০ থেকে ৪০টি বড় ড্রেজার আনন্দবাজারের ২০০ মিটার দূরত্বে নদী থেকে বালু তুলছে। স্থানীয় লোকজন যাতে এতে বাধা দিতে না পারে, সে জন্য নদীতে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে একটি সন্ত্রাসী বাহিনী পাহারা দিচ্ছে। গ্রামবাসী জানান, সরকারের কাছ থেকে কোনো রকম অনুমতি বা ইজারা না নিয়ে এই এলাকায় অবৈধভাবে বালু তোলা হচ্ছে।

আনন্দবাজার এলাকার বাসিন্দারা বলেন, “যারা বালু তুলছে তাদের সবাই চিনে, আমরা নাম বলে বিপদে পড়তে চাই না। চক্রটি স্থানীয় প্রশাসন, জনপ্রতিনিধিদের মদদে সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিয়ে বালু লুটপাট করছে।”

নদীর তীর থেকে অবৈধভাবে বালু কেটে নেয়ার কারণে বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের আনন্দবাজার, মামরকপুর, হারিয়া, সোনাময়ী, সাতভাইয়াপাড়াসহ সাত গ্রামের বাসিন্দাদের বাড়িঘর ও ফসলি জমি ভেঙে যাচ্ছে। যে কোনো সময় কয়েকশ বছরের ঐতিহ্যবাহী আনন্দবাজার হাট, তীরবর্তী ভিটেবাড়ি ও ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে।

নাম প্রকাশ না শর্তে স্থানীয়রা বলেন, “আমরা যাদের নির্বাচিত করেছি, তারাই অবৈধভাবে নদী থেকে বালু উত্তোলন করে আমাদের বাড়িঘর নদীগর্ভে বিলীন কর দিচ্ছে। নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধে আমরা একাধিকবার ইউএনওকে স্মারকলিপি দিয়েছি। বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছি। আন্দোলন করার পর প্রশাসন অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধের প্রতিশ্রুতি দিলেও কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না।”

প্রশাসনের সহযোগিতায় বালু লুটপাট করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তারা।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অঞ্জন কুমার সরকার বলেন, “অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের খবর পেয়েছি। অবশ্যই ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে বালু লুট চক্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।”

আইএস এর সেই টুপি খুঁজে পাচ্ছে না পুলিশ নামাজ পড়লে সুস্থ থাকা যায়: মার্কিন গবেষণা মৌলভীবাজারে ৪শ একর জমিতে কমলার চাষ ২০১৯ সালের সেরা অ্যাপ কল অফ ডিউটি আ.লীগে এখন কর্মীর চেয়ে নেতার সংখ্যা বেশি: কাদের প্রকৌশল শিক্ষায়ও সৃজনশীলতার প্রচুর সুযোগ রয়েছে: রাষ্ট্রপতি ‘সুদের হার কমেনি, ১১ মাস কী করলেন অর্থমন্ত্রী’ ৬ রানে অলআউট মালদ্বীপ পিরোজপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ২ জনের মৃত্যু পুঁজিবাজারে সূচকের পতন, লেনদেনও মন্দা রোহিঙ্গাদের কারণে স্থানীয়দের কর্মসংস্থানের সুযোগ কমছে: টিআইবি বিএনপির আইনজীবীদের বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করা উচিত: নাসিম আপিল বিভাগে এমন অবস্থা আগে কখনো দেখিনি: প্রধান বিচারপতি প্রতিবন্ধীদের জন্য উপজেলায় সহায়তা কেন্দ্র চালু হবে: প্রধানমন্ত্রী চিশতির শ্যালক কামাল গ্রেপ্তার এবার হবে ২৩৮ কিলোমিটার পাতাল রেল ৩ দেশ থেকে ভারতে যাওয়া অমুসলিমরা নাগরিকত্ব পাবেন রোহিঙ্গাদের কারণে কক্সবাজারবাসী ‘মানসিক চাপে’: টিআইবি বিএনপি অরাজকতা করলে সমুচিত জবাব দেয়া হবে: কাদের খালেদার জামিনে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ: ফখরুল ব্যাংকাররা সুবিধা নিলেন কিন্তু সুদহার কমালেন না: বাণিজ্যমন্ত্রী খামারিকে খুন করে গরু-ছাগল লুট জুয়া খেলার সময় হাতেনাতে ধরা ৩ সরকারি কর্মকর্তা আমি খুব বেশি পেঁয়াজ খাই না: সংসদে ভারতের অর্থমন্ত্রী আদালতে হট্টগোল, বিচারপতিদের এজলাস ত্যাগ নেইমার-এমবাপ্পের গোলে পিএসজির টানা তৃতীয় জয় হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ৫৬তম মৃত্যুবার্ষিকী বৃহস্পতিবার আবারও পিছিয়েছে খালেদার জামিন শুনানি বাংলাদেশের জন্য হজ কোটা বাড়লো ১০ হাজার শীতে যেসব লক্ষণে শরীরে পানির ঘাটতি প্রকাশ পায়