artk
সোমবার, নভেম্বার ১৮, ২০১৯ ৫:৫০   |  ৩,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

রোববার, সেপ্টেম্বার ২২, ২০১৯ ৯:০৮

ভিসি নাসিরের পরিকল্পনাতেই শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা

media

হল না ছেড়ে গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পদত্যাগের দাবীতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশ পথে শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) দপুরে হামলার ঘটনা ঘটে। ভিসি ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের লেলিয়ে দেয়া বহিরাগতদের এই হামলায় আন্তত ৩০ জন শিক্ষার্থী আহত হন। তিনজন সাংবাদিকও আহত হয়েছেন।

হল না ছেড়ে গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পদত্যাগের দাবীতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশ পথে শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) দপুরে হামলার ঘটনা ঘটে। ভিসি ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের লেলিয়ে দেয়া বহিরাগতদের এই হামলায় আন্তত ৩০ জন শিক্ষার্থী আহত হন। তিনজন সাংবাদিকও আহত হয়েছেন।

ভিসির পরিকল্পনায়ই আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর ওই হামলা হয়েছে। বিভিন্ন পক্ষের সঙ্গে কথা বলে এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এই ঘটনার পর বিশ্ববিদ্যালয় উত্তাল হয়ে উঠেছে।

এই হামলার ঘটনার প্রতিবাদে পদত্যাগ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর ড. হুমায়ুন কবির। তিনি ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘শনিবার সকাল ৯টায় ভিসি শিক্ষকদের নিয়ে বৈঠক করেন । সেখানে বিশ্ববিদ্যালয় ছুটি ও হল বন্ধ করে দেয়ার কথা বলেন। হলের বিদ্যুৎ,পনিসহ সব সুবিধা বন্ধের কথা বলেন তিনি। তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের যেকোনো মূল্যে আন্দোলন থেকে সরিয়ে দিতে হবে। হল খালি করতে হবে। প্রয়োজনে ওদের বহিরাগতদের দিয়ে মেরে তাড়িয়ে দিতে হবে। তিনি সিদ্ধান্ত দেন পাশের সোনাপুর গ্রাম থেকে বহিরাগত এনে ছাত্রদের পিটিয়ে প্রবেশ থামানো হবে। আর ভিতরে যারা আছে আদের বহিরাগত দিয়ে হামলা করে বের করে দেয়া হবে।” 

এরপর দুপুরের দিকে এই হামলা হয় এবং বহিরাগতরা হামলা চালায়। হুমায়ুন কবির বলেন, ‘‘বহিরাগতরা ধারালো দেশীয় অস্ত্র দিয়ে শিক্ষার্থীদের উপর হামলা চালায়। বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢোকার পথে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে পাশের ঝিলে ফেলে দেয়া হয়। মিটিং-এর সিদ্ধান্তের সময় আমি প্রতিবাদ করতে পারিনি। কিন্তু হামলার পর বিবেকের তাড়নায় আমি পদত্যাগ করি।”

২১ সেপ্টেম্বর সকালেই বিশ্ববিদ্যালয়ে পূজার আগাম ১৫ দিন ছুটি ঘোষণা করে হলগুলো খালি করার নির্দেশ দেয়া হলেও শিক্ষার্থীরা তা মানেননি। কয়েকটি হলে তালা লাগিয়ে দেয়া হলেও তা ভেঙে শিক্ষার্থীরা হলে অবস্থান ও আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন । শিক্ষকদের একাংশও এই আন্দোলনে সংহতি জানিয়ে তাদের সঙ্গে অবস্থান নিয়েছেন।

আন্দোলনরত ছাত্রদের একজন রিয়াজুল ইসলাম জানান, ‘‘এই ভিসির লেলিয়ে দেয়া বাহিনী আমাদের ওপর হামলা করেছে। ভিসি ও তার দালালরা আগেই হামলার পরিকল্পনা করে। সে পদত্যাগ না করা পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।”

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর ড. মোহাম্মদ বসিরউদ্দিন বলেন, ‘‘শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। এটা ন্যাক্কারজনক। আমরা তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছি। তারাই বের করবে কারা হামলা করেছে।‘' তবে তিনি দাবী করেন, ‘‘ভিসি হামলার কোনো পরিকল্পনা বা নির্দেশ দেননি।”

ভিসিকে বার বার টেলিফোন করেও পাওয়া যায়নি। তবে হামলার ২৪ ঘন্টা পর এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, ‘‘বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ও হল ত্যাগের নির্দেশের পর বিশ্ববিদ্যালয়মুখী আসা শিক্ষার্থীদের উপর দুই কিলোমিটার দূরে রাস্তায় হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।”

এর আগে, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজ কী?', একজন নারী শিক্ষার্থীর এমন ফেসবুক পোস্টের জবাবে ভিসি টেলিফোনে ওই শিক্ষার্থীকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন।  তাকে সাময়িক বহিস্কারও করেছেন। এর আগেও ২৭ জন শিক্ষার্থীকে বহিস্কারের নোটিশ দিয়েছেন তিনি। এই পরিস্থিতিতে ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন শুরু করেন, যা ভিসির পদত্যাগের আন্দোলনে রূপ নেয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে ভিসি ১৮ সেপ্টেম্বর রাতে ওই নারী শিক্ষার্থীর বহিস্কারাদেশ প্রত্যাহার করেন। ফেসবুকে লেখালেখির জন্য কারো বিরুদ্ধে আর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে না বলেও জানানো হয়। কিন্তু শিক্ষার্থীরা ভিসির পদত্যাগের দাবী অনড় থাকেন। সূত্র: ডিডাব্লিউ।

 

নুডলস খাওয়া নিয়ে পায়রা বিদ্যুৎকেন্দ্রে চীনা শ্রমিক খুন পেঁয়াজের কেজি ৫৫ টাকার বেশি হলেই জরিমানা জাতির শত্রু মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ করতে হবে: অর্থমন্ত্রী মেলায় রাজস্ব আদায় ১ হাজার ৩৪৬ কোটি টাকা বিএনপির বেশিরভাগ নেতাই দলছুট: তথ্যমন্ত্রী পাবলিক ফান্ড আত্মসাতের আগেই তা রক্ষা সম্ভব: ইকবাল মাহমুদ শ্রীলংকার নতুন প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে বিডিবিএলের সাবেক জিএম কাদরীকে গ্রেপ্তার অর্থপাচার ও সন্ত্রাসে অর্থায়ন রোধে সব দেশের সাহায্য প্রয়োজন: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ফরিদপুর মেডিক্যালের সাবেক পরিচালকসহ ১২ জনকে তলব বঙ্গবন্ধু বিপিএলে মাশরাফি-তামিমদের চেয়ে বেশি মূল্য আফ্রিদি-গেইলদের হলি আর্টিসান হামলার রায় ২৭ নভেম্বর জেড ক্যাটাগরিতে যুক্ত ৯ কোম্পানি অভিভাবকের আয়ের ভিত্তিতে বেতন নির্ধারণের সুযোগ দিবে ইউডা অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় ৬ দিনের রিমান্ডে সম্রাট প্রধানমন্ত্রীকে বিএনপির চিঠি সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়সসীমা ৬০ মোরালেস সমর্থকদের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর সংঘর্ষে নিহত ৯ স্বর্ণ কেনার আগে যেসব বিষয় অবশ্যই খেয়াল রাখা উচিত লঞ্চের ধাক্কায় বালুবাহী জাহাজ ডুবে ৩ শ্রমিক নিখোঁজ রাজধানীর বনশ্রী থেকে সাংবাদিকের মরদেহ উদ্ধার চট্টগ্রামের পাথরঘাটায় গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে নিহত ৭ মুসলিমদেরও রাম মন্দিরের জন্য খুশি হওয়া উচিৎ: রামদেব সিরিয়ায় গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে নিহত ১৮ পেঁয়াজ খাওয়া বন্ধ: প্রধানমন্ত্রী যখন তখন হেসে ফেলেন? আপনার কী হয়েছে জানেন? ঘরোয়া পদ্ধতিতে দূর করুন ব্রণের দাগ পিইসি পরীক্ষা শুরু রোববার সৌদি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকের পরই নারীকর্মীর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত: মন্ত্রী পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধি: সোমবার দেশব্যাপী বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি