artk
বৃহস্পতিবার, অক্টোবার ১৭, ২০১৯ ১১:৩০   |  ২,কার্তিক ১৪২৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

রোববার, সেপ্টেম্বার ২২, ২০১৯ ১০:৩৮

ক্ষমতায় টিকতে ১৩৪ জনকে হত্যা যুবরাজের

media

চলতি বছর সৌদি আরবে রেকর্ডসংখ্যক মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত ১৩৪ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে। নিহতদের মধ্যে বেশিরভাগই সৌদি নাগরিক।

চলতি বছর সৌদি আরবে রেকর্ডসংখ্যক মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত ১৩৪ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে। নিহতদের মধ্যে বেশিরভাগই সৌদি নাগরিক।

তারা সবাই যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের প্রতিদ্বন্দ্বী। এর মধ্যে পাকিস্তান ও ইয়েমেনের নাগরিকও রয়েছেন। মূলত ভিন্নমতাবলম্বীদের দমন করতেই তাদের হত্যা করেছেন যুবরাজ।

শূলে চড়ানো আর মাথা কাটার মতো মধ্যযুগীয় পন্থায় এসব মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে ছয়জন শিশুও রয়েছে।

চলতি সপ্তাহে জেনেভায় জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদের ৪২তম অধিবেশনে যুক্তরাজ্যভিত্তিক দাতব্য সংস্থা ‘ডেথ পেনাল্টি প্রজেক্ট’র উপস্থাপিত এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে। শুক্রবার মিডল ইস্ট মনিটর এ খবর দিয়েছে।

৯ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদের অধিবেশন শেষ হবে ২৭ সেপ্টেম্বর। ‘ডেথ পেনাল্টি প্রজেক্ট’র প্রতিবেদনে বলা হয়, মৃত্যুদণ্ডের সংখ্যা ও হার কমিয়ে আনতে যুবরাজ মোহাম্মদের প্রতিশ্রুতি সত্ত্বেও মৃত্যুদণ্ড আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে।

জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদ জানিয়েছে, ক্ষমতায় টিকে থাকতে বিরোধীদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছেন যুবরাজ। এই মুহূর্তে সৌদির বিভিন্ন আদালতে তিন শিশুসহ ২৪ জন মৃত্যুদণ্ডের প্রতীক্ষায় প্রহর গুনছেন। কয়েক দিনের মধ্যেই তাদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হবে বলে জানানো হয়েছে প্রতিবেদনে।

গত জুলাই মাসের শেষে আন্তর্জাতিক আদালতের আইনজীবী ব্যারনেস হেলেনা কেনেডি জানিয়েছেন, সৌদি যুবরাজের ৩৭ জন রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে।

তার দাবি, অধিকাংশ মৃত্যুদণ্ড দেশের পূর্বপ্রান্তে কার্যকর করা হয়েছে। একই সুর শোনা গেছে ব্রিটিশ হাউস অব কমন্সের সদস্য ব্যারোনেস জ্যানেট হুইটেকারের কণ্ঠে।

মৃত্যুদণ্ড ঠেকাতে এবং অভিযুক্তদের সুবিচার দিতে সৌদি আরবের ওপর চাপ দেয়ার জন্য তিনি ব্রিটিশ পার্লামেন্টে আবেদন জানান।

হাব সভাপতিকে ‘ধমক’ দিলেন ধর্ম সচিব স্পর্শকাতর জায়গা থেকে মোবাইল টাওয়ার সরানোর নির্দেশ ব্রেক্সিট চুক্তিকে ‘ক্ষতিকর’ বললেন টিউলিপ নতুন ব্রেক্সিট চুক্তি চূড়ান্ত: জনসন ছেঁড়া জিন্স পরে ট্রোলের শিকার সারা ইমরান খানের বিরুদ্ধে সাবেক স্ত্রী রেহাম খানের অভিযোগ যে কোনো মূল্যে পার্বত্য অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠা করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যাসিনো বাণিজ্য: কাউন্সিলর সাঈদকে অপসারণ পদ্মায় বিজিবি-বিএসএফ গোলাগুলি, বিএসএফ জওয়ান নিহত! জাতীয় লিগে লেগ স্পিনার না খেলানোয় দুই কোচকে বিসিবিতে তলব দুধের চেয়েও বেশি ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম সজিনা পাতায় ফারমার্স ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যানসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা ভারত সফরের জন্য টাইগারদের টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা আবাসিক হলে গাঁজা সেবন: ২ ছাত্রলীগ নেতা আটক বিদেশি শিল্পীর বিজ্ঞাপনে অতিরিক্ত কর দিতে হবে: তথ্যমন্ত্রী গ্রামীণফোনের ১২ হাজার কোটি টাকা আদায়ে নিষেধাজ্ঞা ২৪ ঘণ্টায় ২৪৮ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি পুঁজিবাজারের পতন রোধে বিক্ষোভে বিনিয়োগকারীরা আমি তো আসলে মরেই গিয়েছিলাম: ওবায়দুল কাদের কঠোরভাবে নিয়ম মানুন, ইউজিসিকে প্রধানমন্ত্রী গাড়ি নিবন্ধনে জালিয়াতি: মুসা বিন শমসেরের বিরুদ্ধে মামলা ট্রাম্পের চিঠি ‘ডাস্টবিনে ছুঁড়ে ফেলেছিলেন’ এরদোয়ান গণভবনে যাবেন না যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক! ঢাকা কলেজ ছেড়ে কুষ্টিয়া সরকারি কলেজে আবরারের ভাই পুঁজিবাজারে সব ধরনের সূচকে পতন পরীক্ষার হলে ঢুকে ২০ ছাত্রের চুল কেটে দিলেন মাদরাসা অধ্যক্ষ আনোয়ারায় অ্যাম্বুলেন্সের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত ২ প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ পেতে নন এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের অবস্থান যুদ্ধাপরাধ: রাজশাহীর টিপু সুলতানের রায় যে কোনো দিন আবরার হত্যার দায়ে ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করার দাবি আ স ম রবের