artk
বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৪, ২০১৯ ৯:২৫   |  ১১,মাঘ ১৪২৫
রোববার, ফেব্রুয়ারী ৮, ২০১৫ ১০:৩৭

আটক

media


দলের সাফল্য এলে সব ম্যানেজমেন্টের! আর ব্যর্থতার দিনে সব দায় অধিনায়কের একার! এমন এক কঠিন সমস্যার মুখে পড়েছেন বাংলাদেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান ও টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম।

দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় টেস্ট নিয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে রাখঢাক না রেখেই মুশফিক যেসব মন্তব্য করেছেন, তা ভালোভাবে নিতে পারেনি বিসিবি। তাকে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দেয়ার গুঞ্জনটা উঠেছে এ কারণে। অবশ্য নাজমুলের ভাষ্য অনুযায়ী মুশফিকের ওপর এখনই আস্থা হারাচ্ছে না বিসিবি। তিনি বলেন, “তাকে সরিয়ে দেয়ার কোনো সিদ্ধান্ত এখনো হয়নি।”

মুশফিকের রহিমের মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় আজ সংবাদমাধ্যমকে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেন,“ মুশফিক যেসব মন্তব্য করছে সেটা দেশের ক্রিকেটের ভাবমূর্তি নষ্ট করছে। টস নিয়ে কোন অধিনায়ক সংবাদ মাধ্যমে এধরণের কথা বলতে পারে না। এটা দলের জন্য ভালো হচ্ছে না। বাংলাদেশের বডি ল্যাংগুয়েজ দেখে মনে হয়নি তারা জেতার জন্য মাঠে নেমেছে। এগুলো মুশফিকের ভ্যক্তিগত ব্যাপার। হয়তো তার কোন অস্বস্তি বা সমস্যা আছে। সেট হতে পারে কোচের সাথে, হতে পারে টিম ম্যানেজমেন্টের সাথে। দেশে আসার পথে সমস্যার সমাধান হবে।”

এছাড়া পাপন বলেন,“ও কিপিং করবে কি না, এটাও জিজ্ঞেস করেছিলাম, ও চারে ব্যাট করতে আগ্রহী কি না। কিন্তু ও তো নামেনি। ও তো ওর সিদ্ধান্তেই নেমেছে। তাহলে ওকে জিজ্ঞেস করতে হবে, টিম ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্ত মানে কী? একটা কথা বলে রাখি, সমস্যাটা মুশফিকের। মাশরাফি অধিনায়কত্ব করে না? ও কখনো এমন সমস্যায় পড়েনি। সাকিব কখনো এমন সমস্যায় পড়বে না, লিখে দিতে পারি।”

অধিনায়ক হয়েও বাউন্ডারিতে ফিল্ডিং প্রসঙ্গে মুশফিক বলেছিলেন,“কোচরা চেয়েছেন বাইরে ফিল্ডিং করি। টিম ম্যানেজমেন্ট যেটা বলবে, সেটাই তো করতে হবে।” এ বিষয়ে পাপন বলেন,“সে কোথায় ফিল্ডিং করবে, সে সিদ্ধান্ত টিম ম্যানেজমেন্টের ছিল না। সিদ্ধান্তটি ছিল তার ব্যক্তিগত। কেউ চাপিয়ে দেয়নি।”

নিউজবাংলাদেশ.কম